বুধবার, ২৮ অক্টোবর ২০২০, ০২:১৬ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম :
ধর্ষণের শাস্তি মৃত্যুদণ্ড, চূড়ান্ত অনুমোদন বন্ধ হচ্ছে অবৈধ মোবাইল হ্যান্ডসেট দেশপ্রেমে উদ্বুদ্ধ হয়ে সাংবাদিকদের কাজ করতে হবে : প্রধানমন্ত্রী জাতির জনকের প্রতিকৃতিতে ঢাকাস্থ গোপালগঞ্জ সাংবাদিক সমিতির নতুন কমিটির শ্রদ্ধা নিবেদন নিক্সনকে ৮ সপ্তাহের আগাম জামিন নিজস্ব প্রতিবেদক বিএনপির মত ইতিহাসে এমন ব্যর্থ দল আর কেউ দেখেনি-ওবায়দুল কাদের সম্পত্তি হাতিয়ে নিতে অন্য নারী দিয়ে স্বামীর বিরুদ্ধে ধর্ষণ মামলা! ধামরাইয়ে বালিয়া ইউনিয়নে শেখ রাসেল এর জন্মদিন পালিত ফরিদপুরে প্রতারক হাচান কবিরাজের কান্ড! (পর্ব-১) নাগরপু‌রে পাকু‌টিয়া ইউ‌নিয়‌নে, নারী ধর্ষন ও নির্যাতন বি‌রোধী বিট পু‌লি‌শিং সমা‌বেশ অনু‌ষ্ঠিত
কালীগঞ্জে রাস্তার সঠিক কাজ করতে গিয়ে বিপাকে উপজেলা প্রকৌশলী

কালীগঞ্জে রাস্তার সঠিক কাজ করতে গিয়ে বিপাকে উপজেলা প্রকৌশলী

লালমনিরহাট জেলা প্রতিনিধি
লালমনিরহাটের কালীগঞ্জ উপজেলার তুষভান্ডার ইউনিয়ন পরিষদ হতে দলগ্রাম রাস্তাটির কার্পেটিং কাজ ভাল করতে গিয়ে বিপাকে পড়েছেন উপজেলা প্রকৌশল আবু তৈয়ব মোহাম্মদ সামছুজ্জামান। ঠিকাদারের লোকজন ১০ মিটার কাজ খারাপ করায় তিনি তা তুলে আবার করতে গিয়ে এ বিপত্তির সৃষ্টি হয়। ইতোমধ্যেই অনেক পত্রপত্রিকাতেও তার বিরুদ্ধে খবর প্রকাশিত হয়। যা সঠিক নয় বলে জানিয়েছেন ওই প্রকৌশলী। সরেজমিনে পরিদর্শন করে জানা যায়, পল্লী সড়ক ও কালভার্ট মেরামত কর্মসূচির আওতায় ২০১৯-২০২০ অর্থবছরে তুষভান্ডার ইউনিয়ন পরিষদ হতে দলগ্রাম রাস্তাটির ২৬৫০ মিটার মেরামত করার জন্য বিনিময় ট্রেডার্স এর সাথে চুক্তি করা হয়। সে মোতাবেক ঠিকাদার জুনের মধ্যে অধিকাংশ কাজ শেষ করার জন্য রাতদিন কাজ করতে থাকে। কাজ শেষের দিকে এলে বৃষ্টির কারণে ৩০ মিটার অংশে সিলকোট সমাপ্ত করা সম্ভব হয়নি।
পরবর্তীতে গত ১০ সেপ্টেম্বর ওই ৩০ মিটার অংশের কাজ শুরু করা হলে ২০ মিনিটের সিলকোট করার পর হঠাৎ আবারও বৃষ্টি শুরু হয়। পরে উপসহকারী প্রকৌশলী কাজ বন্ধ করে চলে যান।
কিন্তু উপজেলা প্রকৌশলীর দপ্তরের লোকজন চলে আসার পর ঠিকাদারের লোকজন পূর্বের বিটুমিন মিশ্রিত এক গাড়ি পাথর ভেজা বেডে দিয়ে রোলিং করে চলে যায়। বিষয়টি জানার সাথে সাথে উপজেলা প্রকৌশলী নির্বাহী প্রকৌশলীকে জানান।
উপজেলা প্রকৌশলী ও নির্বাহী প্রকৌশলী ঠিকাদারকে ওই ১০ মিটারের অংশ তুলে পুনঃরায় কাজ করে দেওয়ার জন্য বলেন। পরবর্তীতে ওই ভেজা বেডের অংশটুকু তুলে ঠিকাদার সিলকোট করে দেয়। এ সময় নির্বাহী প্রকৌশলী ও উপজেলা প্রকৌশলী উপস্থিত ছিলেন মর্মে জানা যায়। ওই খারাপ অংশটি তুলে ফেলার সময় কেবা কারা ছবি তুলে সাংবাদিকদের মিথ্যা তথ্য দিয়ে পত্রিকায় রিপোর্ট করতে সহযোগিতা করে। এ ব্যপারে উপজেলা প্রকৌশলী বলেন, বৃষ্টি শুরু হওয়ার পূর্বের মিশ্রিত একগাড়ি মাল ড্যাম বেডে দিয়ে রোলিং করেছে যা ইতোমধ্যে সংশোধন করা হয়েছে। উপজেলা প্রকৌশলী আরো বলেন, কাজে বিপিসি বিটুমিন ও ভালো মানের খোয়া ব্যবহার করা হয়েছে। রাস্তাটি সরেজমিনে ঘুড়ে দেখা যায় কোথাও রাস্তা উঠে যায়নি। রাস্তার সিলকোট কাজ ভালো হয়েছে।

খবরটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved 2018 khoborbangladesh.com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com