সোমবার, ২৬ অক্টোবর ২০২০, ০৭:৩৬ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম :
ধর্ষণের শাস্তি মৃত্যুদণ্ড, চূড়ান্ত অনুমোদন বন্ধ হচ্ছে অবৈধ মোবাইল হ্যান্ডসেট দেশপ্রেমে উদ্বুদ্ধ হয়ে সাংবাদিকদের কাজ করতে হবে : প্রধানমন্ত্রী জাতির জনকের প্রতিকৃতিতে ঢাকাস্থ গোপালগঞ্জ সাংবাদিক সমিতির নতুন কমিটির শ্রদ্ধা নিবেদন নিক্সনকে ৮ সপ্তাহের আগাম জামিন নিজস্ব প্রতিবেদক বিএনপির মত ইতিহাসে এমন ব্যর্থ দল আর কেউ দেখেনি-ওবায়দুল কাদের সম্পত্তি হাতিয়ে নিতে অন্য নারী দিয়ে স্বামীর বিরুদ্ধে ধর্ষণ মামলা! ধামরাইয়ে বালিয়া ইউনিয়নে শেখ রাসেল এর জন্মদিন পালিত ফরিদপুরে প্রতারক হাচান কবিরাজের কান্ড! (পর্ব-১) নাগরপু‌রে পাকু‌টিয়া ইউ‌নিয়‌নে, নারী ধর্ষন ও নির্যাতন বি‌রোধী বিট পু‌লি‌শিং সমা‌বেশ অনু‌ষ্ঠিত
নেত্রকোণার মোহনগঞ্জে দেখা মিললো বঙ্গবন্ধুর এক পাগল বক্তের

নেত্রকোণার মোহনগঞ্জে দেখা মিললো বঙ্গবন্ধুর এক পাগল বক্তের

নেত্রকোণা প্রতিনিধি
নেত্রকোণা জেলার মোহনগঞ্জ উপজেলার পৌর শহরে দেখা মিলেশে বঙ্গবন্ধুর এক পাগল বক্তের। ১৯৭৫ সালে বঙ্গবন্ধু সহ স্বপরিবারের হত্যার পর থেকে এখন পর্যন্ত বঙ্গবন্ধুর আর্দশকে বুকে ধারন করে চলেছেন বঙ্গবন্ধুর এক পাগল বক্ত মোঃ আবুল কাসেম ফকির। তিনি পেশায় একজন রাজমিস্ত্রী হয়েও শত কষ্টের মাঝে জীবন যাপন করতে গিয়েও বঙ্গবন্ধুর আদর্শকে ভুলে যাননি। তিনি এখনো মনে করেন বঙ্গবন্ধু বেছে আছেন সকল বক্তের অন্তরে। তাই মোঃ আবুল কাসেম ফকির সেই আদর্শকে ধরে রাখার জন্য নিজের বিটে বাড়ি বিক্রয় করে সেই বিক্রয়ের টাকা দিয়ে একটি ছবি ফ্লিম তৈরি করেন । এছাড়াও তিনি মনে করেন নেত্রকোণা জেলা শহরের প্রয়াত জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও বার বার নেত্রকোণা ২ আসনে নির্বাচিত এমপি মরহুম ফজলুল রহমান খানও বঙ্গবন্ধুর বক্ত ছিলেন। এখন দেখছি বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স চেয়ারম্যান ও সাবেক সিনিয়র সচিব, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় সাজ্জাদুল হাসানও বঙ্গবন্ধুর আদর্শকে ধরে রাখার জন্য নেত্রকোণা উন্নয়নের কাজ করে যাচ্ছেন। আমার মনে হয় সারাবিশে^ বঙ্গবন্ধুর মত মানুষ আমরা আর পাবো না। মরহুম ফজলুল রহমান খান এমপি নেত্রকোণার শহরের একজন বিশিষ্ট লোক ছিলেন। তিনিও মরেননি আমার মনে হয় তিনি এখনো বেছে আছেন আমাদের মাঝে। এখন দেখছি মোহনগঞ্জের কৃতি সন্তান হাওর পুত্র সাজ্জাদুল হাসান উনি মনে হয় মোহনগঞ্জের আরোও উন্নয়ন করবে। তিনি ছাড়া আমি আর কোন ভাল লোক দেখি না। আল্লাহ যেন সাজ্জাদুল হাসানকে হায়াত দান করেন। এলাকাবাসীর সূত্রে জানা যায় মোঃ আবুল কাসেম ফকির দীর্ঘদিন ধরে বঙ্গবন্ধুর এই ছবিটিকে নিয়ে অনেক কান্নাকাটি করেন। তিনি বঙ্গবন্ধু ও নেত্রকোণার প্রয়াত এমপি মরহুম ফজলুল রহমান খানও সাজ্জাদুল হাসানের একজন অন্ধ বক্ত। তিনি দীর্ঘদিন ধরে মোহনগঞ্জ পৌরসভার ফায়ার সার্ভিস সংলগ্ন এলাকা টেংগাপাড়ায় বসবাস করেন। আমরা যতটুকু জানি এই পাগল নেত্রকোণার মৌগাতী ইউনিয়নের কুনিয়া গ্রামের বাসিন্দা।

খবরটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved 2018 khoborbangladesh.com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com