ঢাকা ০৪:৫৯ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১৫ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম :
ভূল অসত্য সংবাদ পরিবেশন করায় ব্যবসায়ীর  সংবাদ সম্মেলন কেটালী পাড়ায় দিনে দুপুরে সরকারী কোয়াটারে চুরি জনবান্ধব ভূমি সংস্কারে অগ্রাধিকার দিচ্ছে সরকার: ভূমিমন্ত্রী ভূমি অফিসে যেন কোনো দালাল না থাকে: মন্ত্রী ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন অফিসার শাহীন আলম বিলাশবহুল ৮তলা বাড়ীর মালিক! মুক্তিযুদ্ধের চলচ্চিত্র ‘অপারেশন জ্যাকপট’ নিয়ে এতো অনাসৃষ্টি কেন? চকরিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য ও প:প: কর্মকর্তা ডা: শোভন দত্তের বিরুদ্ধে সরকারী টাকা আত্মসাত,বিদেশে টাকা পাচার,অবৈধ সম্পদ অর্জন ও নারী কেলেংকারীর অভিযোগ! দদুকের তদন্ত থাকা কর্মকর্তাকে চুক্তিভিত্তিক ডিজি নিয়োগের তোড়জোড়! গাজীপুর সিটি করপোরেশনের গাড়িচাপায় শ্রমিক নিহত, মহাসড়ক অবরোধ মির্জাগঞ্জে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ও  শহীদ  দিবসে বাংলাদেশ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির শ্রদ্ধা নিবেদন 

মাগুরা মহম্মদপুর সজীবের রমরমা মাদক ব্যবসা! নেই পুলিশের নজরদারী

নিজস্ব প্রতিনিধি : মাগুরা জেলার, মহম্মদপুর থানাধীন রাজাপুর ইউনিয়ন এলাকায় চলছে রমরমা মাদক ব্যবসা। ওই এলাকায় সন্ধ্যার পরই বাংলা মদ, গাঁজা ও ইয়াবা ট্যাবলেট বিক্রি হচ্ছে অবাধে। রাজাপুর এলাকায় মাদক ব্যবসা নিয়ন্ত্রণ করছে রাজাপুর বাজারের পাশে, সরদার বাড়ীর পাশে অবস্থিত মৃত আজিজার মাষ্টারের ছেলে সজীব।

জানা যায়, মাদক ব্যবসায়ী সজীব রাজাপুর গড়ে তুলেছে মাদক বিক্রির নেটওয়ার্ক। রাজাপুর এলাকা থেকে মাগুরা ও মহম্মদপুরের বিভিন্ন জায়গায় মাদকদ্রব্য সাপ্লাই করা হচ্ছে। সজীবের মাদক বানিজ্যের মূল স্পট হলো রাজাপুর ব্রীজ ও রাজপাট হাই স্কুল মাঠের দক্ষিণে পল্লী বিদ্যুত অফিসের পাশে ফাঁকা মাঠ। প্রতিদিন রাতে গাঁজা ও ইয়াবা আসে সজীবের কাছে। এখান থেকে মাগুরার বিভিন্ন এলাকায় গাঁজাসহ বিভিন্ন মাদকদ্রব্য সাপ্লাই হচ্ছে। সজীবের সিন্ডিকেটে অন্যতম সদস্যরা হচ্ছে রাজপাট এলাকার জিঞ্জার আলীর ছেলে সাহেব, নিত্যানান্দপুর গ্রামের শহীদ বিশ্বাসের ছেলে ফিরোজ ও রাজাপুরের নামধারী কাঠ ব্যবসায়ী আমিনুর।
স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, সজীবের মাদক ব্যবসার ক্ষমতার নেপথ্যে রয়েছে দলীয় নেতাদের আশ্রয় ও প্রশাসনের নীরব ভূমিকা। পুলিশকে ম্যানেজ করে মাদক ব্যবসা পরিচালনা করছে সজীব। প্রতি সপ্তাহে রাজাপুর ফাঁড়ীর ইনচার্জকে মাসহারা দিয়ে এই মাদক বাণিজ্য চালিয়ে আসছে।
অপর একটি সূত্র জানায়, রাজাপুর এখন মাদকের আখড়ায় পরিণত হয়েছে। সন্ধ্যার পরই বাংলা মদ, গাঁজা ও ইয়াবা ট্যাবলেট বিক্রি হয়। মাদকের করাল গ্রাসে রাজাপুর, মহম্মদপুর ও মাগুরা বিভিন্ন এলাকার জনজীবন বিপন্ন হয়ে পড়েছে।

ট্যাগস
জনপ্রিয় সংবাদ

ভূল অসত্য সংবাদ পরিবেশন করায় ব্যবসায়ীর  সংবাদ সম্মেলন

মাগুরা মহম্মদপুর সজীবের রমরমা মাদক ব্যবসা! নেই পুলিশের নজরদারী

আপডেট টাইম : ০৫:২১:২৩ অপরাহ্ন, সোমবার, ৬ মে ২০১৯

নিজস্ব প্রতিনিধি : মাগুরা জেলার, মহম্মদপুর থানাধীন রাজাপুর ইউনিয়ন এলাকায় চলছে রমরমা মাদক ব্যবসা। ওই এলাকায় সন্ধ্যার পরই বাংলা মদ, গাঁজা ও ইয়াবা ট্যাবলেট বিক্রি হচ্ছে অবাধে। রাজাপুর এলাকায় মাদক ব্যবসা নিয়ন্ত্রণ করছে রাজাপুর বাজারের পাশে, সরদার বাড়ীর পাশে অবস্থিত মৃত আজিজার মাষ্টারের ছেলে সজীব।

জানা যায়, মাদক ব্যবসায়ী সজীব রাজাপুর গড়ে তুলেছে মাদক বিক্রির নেটওয়ার্ক। রাজাপুর এলাকা থেকে মাগুরা ও মহম্মদপুরের বিভিন্ন জায়গায় মাদকদ্রব্য সাপ্লাই করা হচ্ছে। সজীবের মাদক বানিজ্যের মূল স্পট হলো রাজাপুর ব্রীজ ও রাজপাট হাই স্কুল মাঠের দক্ষিণে পল্লী বিদ্যুত অফিসের পাশে ফাঁকা মাঠ। প্রতিদিন রাতে গাঁজা ও ইয়াবা আসে সজীবের কাছে। এখান থেকে মাগুরার বিভিন্ন এলাকায় গাঁজাসহ বিভিন্ন মাদকদ্রব্য সাপ্লাই হচ্ছে। সজীবের সিন্ডিকেটে অন্যতম সদস্যরা হচ্ছে রাজপাট এলাকার জিঞ্জার আলীর ছেলে সাহেব, নিত্যানান্দপুর গ্রামের শহীদ বিশ্বাসের ছেলে ফিরোজ ও রাজাপুরের নামধারী কাঠ ব্যবসায়ী আমিনুর।
স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, সজীবের মাদক ব্যবসার ক্ষমতার নেপথ্যে রয়েছে দলীয় নেতাদের আশ্রয় ও প্রশাসনের নীরব ভূমিকা। পুলিশকে ম্যানেজ করে মাদক ব্যবসা পরিচালনা করছে সজীব। প্রতি সপ্তাহে রাজাপুর ফাঁড়ীর ইনচার্জকে মাসহারা দিয়ে এই মাদক বাণিজ্য চালিয়ে আসছে।
অপর একটি সূত্র জানায়, রাজাপুর এখন মাদকের আখড়ায় পরিণত হয়েছে। সন্ধ্যার পরই বাংলা মদ, গাঁজা ও ইয়াবা ট্যাবলেট বিক্রি হয়। মাদকের করাল গ্রাসে রাজাপুর, মহম্মদপুর ও মাগুরা বিভিন্ন এলাকার জনজীবন বিপন্ন হয়ে পড়েছে।