ঢাকা ০১:৩৭ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২৯ মে ২০২৪, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম :
দ্বাদশ জাতীয় সংসদের পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির তৃতীয় বৈঠক অনুষ্ঠিত ৫ বছরের অধিক প্রেষনে দায়িত্ব পালন করছেন চীফ ইঞ্জিনিয়ার মঞ্জুরুল কবীর! বিআইডব্লিউটিএর অতি: পরিচালক আরিফ উদ্দিনের সম্পদের পাহাড়! শাহআলীতে গৃহবধূকে গলা কেটে হত্যাকারি পলাতক স্বামী গ্রেফতার  অতি:পরিচালক আরিফ উদ্দিন এখন বিআইডব্লিউটিএ‘র অঘোষিত “রাজা”! সাভারে এক ইউপি চেয়ারম্যানের সম্পদের পাহাড়! সিরাজদিখানে মঈনুল হাসান নাহিদকে বিকল্প ধরার সমর্থন মির্জাগঞ্জের ইউ,পি সচিব পরকীয়া প্রেমিকার হত্যাকাণ্ডে পুলিশ হেফাজতে শেষ মুহূর্তের প্রচারণায় মানুষের ভালবাসায় আমি মুগ্ধ: চেয়ারম্যান প্রার্থী পলাশ মানবতার আড়ালে ভয়ংকর ফয়সাল বাহিনী, পিস্তল ঠেকিয়ে টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগ

নওগাঁর সাপাহারে অলৌকিক ভাবে মেয়ে হতে ছেলেতে রুপান্তর!

নাদিম আহমেদ অনিক, নওগাঁ জেলা প্রতিনিধি
নওগাঁর সাপাহারে অলৌকিক ভাবে মেয়ে থেকে  লিঙ্গ পরিবর্তন করে ছেলে হয়ে যাবার গুঞ্জন উঠেছে। চাঞ্চল্যকর এ ঘটনাটি ঘটেছে সাপাহার উপজেলার শিমূলডাঙ্গা রামাশ্রম গ্রামে।
স্থানীয় লোজকজন ও ওই মেয়ের পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, শিমূলডাঙ্গা রামাশ্রম গ্রামের রাজকুমার কর্মকার ও পুস্প রানীর বড় মেয়ে  টুম্পা কর্মকারের বয়স ১৩ বছর। পারিবারকি অস্বচ্ছলতার ও বাবা প্রতিবন্ধী হওয়ায় জন্য বিভিন্ন কাজ কর্ম করে। গত ১০/১২ দিন আগে হঠাৎ টুম্পার শারিরীক অবয়ব ও কন্ঠের  কিছুটা পরিবর্তন লক্ষ্য করেন তার পরিবার। পরিশ্রমের কারনে হয়তো এমনটা মনে হচ্ছে তাই আর বাড়াবাড়ি করেননি তারা।
টুম্পা কর্মকার বলেন গত ১০/১২  দিন আগে তার লিঙ্গ পরিবর্তন হলে স্থানীয় এক ভাবীকে ঘটনাটি অবহিত করেন। পরবর্তী সময়ে সেই ভাবী তার পরিবারকে জানালে তারা স্বচক্ষে দেখার পর ধীরে ধীরে ঘটনাটি ছড়িয়ে পড়ে।
টুম্পার মা পুষ্প কর্মকার বলেন, আমার মেয়ের শারিরীক ঘঠন পরিবর্তন হলেও প্রথমে আমরা সেটা কিছু মনে করিনি। পরে স্বচক্ষে তার লিঙ্গ পরিবর্তন দেখে আমরা চমকে উঠি।
স্থানীয়রা বলছেন, টুম্পা রানী কর্মকার রাস্তার মাটি কাটার কাজ করে। তার অবয়বের কিছু পরিবর্তন লক্ষ্য করা গেলে স্থানীয় ইউপি সদস্য ইসমাইল হোসেন তাকে প্রাথমিক ভাবে দেখলে তিনি লিঙ্গ পরিবর্তনের বিষয়ে নিশ্চিত হন।
এ বিষয়ে স্থানীয় ইউপি সদস্য ইসমাইল হোসেনের সাথে কথা হলে তিনি ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন।
বিষয়টি নিয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আব্দুল্যাহ আল মামুনের সাথে কথা হলে তিনি জানান, ঘটনার সত্যতা পাওয়া গেলে উপজেলা প্রশাসন হতে প্রযোজ্য ক্ষেত্রে প্রয়োজনীয় ব্যাবস্থা গ্রহন করা হবে।
সাপাহার উপজেলা স্বাস্থ্য ও প.প কর্মকর্তা ডাঃ রুহুল আমিন বলেন, লিঙ্গ পরিবর্তন হতে পারে তবে সেটা অনেক সময়ের ব্যাপার। যদি ঘটনা সত্য হয় তাহলে তা উন্নত পরীক্ষা নিরীক্ষার মাধ্যমে নিশ্চিত করা যেতে পারে।
বিষয়টি নিয়ে এলাকায় বেশ চাঞ্চল্যকর অবস্থা সৃষ্টি হয়েছে।
ট্যাগস
জনপ্রিয় সংবাদ

দ্বাদশ জাতীয় সংসদের পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির তৃতীয় বৈঠক অনুষ্ঠিত

নওগাঁর সাপাহারে অলৌকিক ভাবে মেয়ে হতে ছেলেতে রুপান্তর!

আপডেট টাইম : ০৮:১০:৩৯ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ৩ মে ২০২১
নাদিম আহমেদ অনিক, নওগাঁ জেলা প্রতিনিধি
নওগাঁর সাপাহারে অলৌকিক ভাবে মেয়ে থেকে  লিঙ্গ পরিবর্তন করে ছেলে হয়ে যাবার গুঞ্জন উঠেছে। চাঞ্চল্যকর এ ঘটনাটি ঘটেছে সাপাহার উপজেলার শিমূলডাঙ্গা রামাশ্রম গ্রামে।
স্থানীয় লোজকজন ও ওই মেয়ের পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, শিমূলডাঙ্গা রামাশ্রম গ্রামের রাজকুমার কর্মকার ও পুস্প রানীর বড় মেয়ে  টুম্পা কর্মকারের বয়স ১৩ বছর। পারিবারকি অস্বচ্ছলতার ও বাবা প্রতিবন্ধী হওয়ায় জন্য বিভিন্ন কাজ কর্ম করে। গত ১০/১২ দিন আগে হঠাৎ টুম্পার শারিরীক অবয়ব ও কন্ঠের  কিছুটা পরিবর্তন লক্ষ্য করেন তার পরিবার। পরিশ্রমের কারনে হয়তো এমনটা মনে হচ্ছে তাই আর বাড়াবাড়ি করেননি তারা।
টুম্পা কর্মকার বলেন গত ১০/১২  দিন আগে তার লিঙ্গ পরিবর্তন হলে স্থানীয় এক ভাবীকে ঘটনাটি অবহিত করেন। পরবর্তী সময়ে সেই ভাবী তার পরিবারকে জানালে তারা স্বচক্ষে দেখার পর ধীরে ধীরে ঘটনাটি ছড়িয়ে পড়ে।
টুম্পার মা পুষ্প কর্মকার বলেন, আমার মেয়ের শারিরীক ঘঠন পরিবর্তন হলেও প্রথমে আমরা সেটা কিছু মনে করিনি। পরে স্বচক্ষে তার লিঙ্গ পরিবর্তন দেখে আমরা চমকে উঠি।
স্থানীয়রা বলছেন, টুম্পা রানী কর্মকার রাস্তার মাটি কাটার কাজ করে। তার অবয়বের কিছু পরিবর্তন লক্ষ্য করা গেলে স্থানীয় ইউপি সদস্য ইসমাইল হোসেন তাকে প্রাথমিক ভাবে দেখলে তিনি লিঙ্গ পরিবর্তনের বিষয়ে নিশ্চিত হন।
এ বিষয়ে স্থানীয় ইউপি সদস্য ইসমাইল হোসেনের সাথে কথা হলে তিনি ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন।
বিষয়টি নিয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আব্দুল্যাহ আল মামুনের সাথে কথা হলে তিনি জানান, ঘটনার সত্যতা পাওয়া গেলে উপজেলা প্রশাসন হতে প্রযোজ্য ক্ষেত্রে প্রয়োজনীয় ব্যাবস্থা গ্রহন করা হবে।
সাপাহার উপজেলা স্বাস্থ্য ও প.প কর্মকর্তা ডাঃ রুহুল আমিন বলেন, লিঙ্গ পরিবর্তন হতে পারে তবে সেটা অনেক সময়ের ব্যাপার। যদি ঘটনা সত্য হয় তাহলে তা উন্নত পরীক্ষা নিরীক্ষার মাধ্যমে নিশ্চিত করা যেতে পারে।
বিষয়টি নিয়ে এলাকায় বেশ চাঞ্চল্যকর অবস্থা সৃষ্টি হয়েছে।