ঢাকা ০৩:৩৩ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২৯ মে ২০২৪, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম :
দ্বাদশ জাতীয় সংসদের পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির তৃতীয় বৈঠক অনুষ্ঠিত ৫ বছরের অধিক প্রেষনে দায়িত্ব পালন করছেন চীফ ইঞ্জিনিয়ার মঞ্জুরুল কবীর! বিআইডব্লিউটিএর অতি: পরিচালক আরিফ উদ্দিনের সম্পদের পাহাড়! শাহআলীতে গৃহবধূকে গলা কেটে হত্যাকারি পলাতক স্বামী গ্রেফতার  অতি:পরিচালক আরিফ উদ্দিন এখন বিআইডব্লিউটিএ‘র অঘোষিত “রাজা”! সাভারে এক ইউপি চেয়ারম্যানের সম্পদের পাহাড়! সিরাজদিখানে মঈনুল হাসান নাহিদকে বিকল্প ধরার সমর্থন মির্জাগঞ্জের ইউ,পি সচিব পরকীয়া প্রেমিকার হত্যাকাণ্ডে পুলিশ হেফাজতে শেষ মুহূর্তের প্রচারণায় মানুষের ভালবাসায় আমি মুগ্ধ: চেয়ারম্যান প্রার্থী পলাশ মানবতার আড়ালে ভয়ংকর ফয়সাল বাহিনী, পিস্তল ঠেকিয়ে টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগ

ঢাকা-১৪ আসনে এখলাস উদ্দিন মোল্লাহকে আওয়ামীলীগের এমপি হিসেবে দেখতে চাই : জনগণ

সোহেল রানা/শরিফুল ইসলাম রনি
মিরপুরের ঐতিহ্যেবাহী মোল্লাহ্ পরিবারের কৃতিসন্তান সাবেক এমপি মরহুম আলহাজ্ব মোঃ হারুন অর রশিদ মোল্লাহর সুযোগ্য বড় ছেলে বিশিষ্ট্য রাজনীতিবিদ ও সমাজ সেবক আলহাজ্ব মোঃ এখলাস উদ্দিন মোল্লাহকে ঢাকা ১৪ আসনের উপ-নির্বাচনে আওয়ামীলীগ থেকে এম.পি হিসেবে দেখতে চাই ওই আসনের দল মত নির্বিশেষে সকলে। এলাকাবাসিরা জানান এক মাত্র তিনিই হলেন মিরপুরের সব চেয়ে সিনিয়র নেতা, সাবেক এমপি আসলামুল হকের বিপরীতে তার কোন বিকল্প আর কাউকে দেখছেন না ঢাকা ১৪ আসনের জনগণ। এমনটাই দাবী করে শুক্রবার ঢাকা ১৪ আসন, গাবতলী এলাকায় রাস্তায় জনসমুদ্রে পরিনিত হয়। আলহাজ্ব মোঃ এখলাস উদ্দিন মোল্লাহ্ শুক্রবার গাবতলী এলাকার বাগবাড়ী বার আনী মসজিদে জুম্মার নামাজ আদায় করতে গেলে এলাকার লোকজন খবর পেয়ে মিরপুরের প্রিয় নেতা ও সকলের মধ্যেমনি আলহাজ্ব মোঃ এখলাস উদ্দিন মোল্লাকে একনজর দেখার জন্য রাস্তায় হাজার হাজার মানুষের ঢল নামে তখন তিনি সকলকে সামাজিক দূরুত্ব বজায় থাকার জন্য সকলকে আহবান জানান। তাদের একটায় দাবী ঢাকা-১৪ আসনের উপনির্বাচনে সাবেক এমপি আসলামুলের জায়গায় এমপি হিসেবে আমরা আলহাজ্ব মোঃ এখলাস উদ্দিন মোল্লাহকে চাই। জনগণকে সামাল দিতে আইনশৃংখলা বাহিনী হিমশিম খান।

আলহাজ্ব মোঃ এখলাস উদ্দিন মোল্লাহ বলেন আমি আওয়ামীলীগ পরিবারের সন্তান, জনগণের সমর্থনে আজ আমার এই ভালোবাসা, আমি জনগণকে ভালোবাসি বলে তারা আমাকেও মনে প্রাণে ভালোবাসে তাই তাদের ভালোবাসার কারণে আমি আওয়ামীলীগের মনোনয়ন নিয়ে এমপি হয়ে বাকীটা জীবন তাদের খেদমত করতে চাই আর এই সুযোগ জাতির জনক বঙ্গবন্ধু কণ্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আমাকে দিবেন বলে আশাবাদী। জনতার ঢলের মাঝে উপস্থিতি ছিলেন ঢাকা মহানগর উত্তরের ৯নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর মুজিব সরোয়ার মাসুম, কাউন্দিয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান শান্ত খান, ৯নং ওয়ার্ডের আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মোহাম্মদ আলীসহ প্রমুখ রাজনৈতিক ব্যক্তিরা। চলচ্চিত্র অঙ্গনের খলনায়ক মনোয়ার হোসেন ডিপজলের উপস্থিতি থাকার কথা থাকলেও তিনি অসুস্থতার কারণে আসতে পারেননি। ডিপজল তার এক প্রতিনিধিকে ফুলের নৌকা প্রতিক দিয়ে পাঠিয়েদেন।
আলহাজ্ব মোঃ এখলাস উদ্দিন মোল্লাহর বাবা মরহুম আলহাজ্ব হারুন-অর-রশিদ মোল্লাহ ২৭ বছর ধরে মিরপুরের প্রেসিডেন্ট ছিলেন, এর পর ড. কামালের সাথে সংসদ নির্বাচনে লড়াই করে সংসদ সদস্য হয়েছেন এর আগে এখলাস উদ্দিন মোল্লাহর দাদা অর্থাৎ হারন-অর-রশিদ মোল্লার বাবা হাজী কুজরত আলী মোল্লাহ ৪২ বছর ধরে মিরপুররের প্রেসিডেন্ট ছিলেন তখন মিরপুরের এরিয়া ছিলো কেরানীগঞ্জ থেকে শুরু করে টঙ্গি ব্রিজ পর্যন্ত। একমাত্র মিরপুরের মোল্লাহ্ পরিবারের হাতেই মিরপুরের লোকজন নিরাপদ মনে করেন। কারন মোল্লাহরা পূর্ব পুরুষ থেকে মিরপুরে নেতৃত্ব দিয়ে আসিতেছে। আর শেখ পরিবারের সাথে তাদের রয়েছে গভির গনিষ্ঠতার সম্পর্ক। এখলাস উদ্দিনের বড় ছেলে ইমরান উদ্দিন মোল্লাহ যখন জন্ম গ্রহণ করেন তখন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নিজে এসে ইমরান উদ্দিন মোল্লাহকে কোলে তুলে নেন আর একটি লকেট উপহার দেন।
জন্ম সুত্রেই মোল্লাহ্ পরিবার আওয়ামীলীগের কান্ডারী যার ফলে শুক্রবার ‘জনগণের ভালোবাসায় সিক্ত হলেন আলহাজ¦ মোঃ এখলাস উদ্দিন মোল্লাহ। জনগণের এই ভালোবাসা জাতির জনক বঙ্গবন্ধু কণ্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উদ্দেশ্যে উৎসর্গ করেন ঢাকা-১৪ আসনের উপ-নির্বাচনে মনোনয়ন প্রত্যাশী আলহাজ্ব মোঃ এখলাস উদ্দিন মোল্লাহ।
আলহাজ্ব মোঃ এখলাস উদ্দিন মোল্লাহ উপ-নির্বাচনে আসবেন বলে ঢাকা-১৪ আসনের জনগণের মনে আনন্দ উল্লাস দেখা দিচ্ছে বলে এলাকাবাসিরা জানান।

ট্যাগস
জনপ্রিয় সংবাদ

দ্বাদশ জাতীয় সংসদের পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির তৃতীয় বৈঠক অনুষ্ঠিত

ঢাকা-১৪ আসনে এখলাস উদ্দিন মোল্লাহকে আওয়ামীলীগের এমপি হিসেবে দেখতে চাই : জনগণ

আপডেট টাইম : ০৬:০১:২৬ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ৮ মে ২০২১

সোহেল রানা/শরিফুল ইসলাম রনি
মিরপুরের ঐতিহ্যেবাহী মোল্লাহ্ পরিবারের কৃতিসন্তান সাবেক এমপি মরহুম আলহাজ্ব মোঃ হারুন অর রশিদ মোল্লাহর সুযোগ্য বড় ছেলে বিশিষ্ট্য রাজনীতিবিদ ও সমাজ সেবক আলহাজ্ব মোঃ এখলাস উদ্দিন মোল্লাহকে ঢাকা ১৪ আসনের উপ-নির্বাচনে আওয়ামীলীগ থেকে এম.পি হিসেবে দেখতে চাই ওই আসনের দল মত নির্বিশেষে সকলে। এলাকাবাসিরা জানান এক মাত্র তিনিই হলেন মিরপুরের সব চেয়ে সিনিয়র নেতা, সাবেক এমপি আসলামুল হকের বিপরীতে তার কোন বিকল্প আর কাউকে দেখছেন না ঢাকা ১৪ আসনের জনগণ। এমনটাই দাবী করে শুক্রবার ঢাকা ১৪ আসন, গাবতলী এলাকায় রাস্তায় জনসমুদ্রে পরিনিত হয়। আলহাজ্ব মোঃ এখলাস উদ্দিন মোল্লাহ্ শুক্রবার গাবতলী এলাকার বাগবাড়ী বার আনী মসজিদে জুম্মার নামাজ আদায় করতে গেলে এলাকার লোকজন খবর পেয়ে মিরপুরের প্রিয় নেতা ও সকলের মধ্যেমনি আলহাজ্ব মোঃ এখলাস উদ্দিন মোল্লাকে একনজর দেখার জন্য রাস্তায় হাজার হাজার মানুষের ঢল নামে তখন তিনি সকলকে সামাজিক দূরুত্ব বজায় থাকার জন্য সকলকে আহবান জানান। তাদের একটায় দাবী ঢাকা-১৪ আসনের উপনির্বাচনে সাবেক এমপি আসলামুলের জায়গায় এমপি হিসেবে আমরা আলহাজ্ব মোঃ এখলাস উদ্দিন মোল্লাহকে চাই। জনগণকে সামাল দিতে আইনশৃংখলা বাহিনী হিমশিম খান।

আলহাজ্ব মোঃ এখলাস উদ্দিন মোল্লাহ বলেন আমি আওয়ামীলীগ পরিবারের সন্তান, জনগণের সমর্থনে আজ আমার এই ভালোবাসা, আমি জনগণকে ভালোবাসি বলে তারা আমাকেও মনে প্রাণে ভালোবাসে তাই তাদের ভালোবাসার কারণে আমি আওয়ামীলীগের মনোনয়ন নিয়ে এমপি হয়ে বাকীটা জীবন তাদের খেদমত করতে চাই আর এই সুযোগ জাতির জনক বঙ্গবন্ধু কণ্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আমাকে দিবেন বলে আশাবাদী। জনতার ঢলের মাঝে উপস্থিতি ছিলেন ঢাকা মহানগর উত্তরের ৯নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর মুজিব সরোয়ার মাসুম, কাউন্দিয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান শান্ত খান, ৯নং ওয়ার্ডের আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মোহাম্মদ আলীসহ প্রমুখ রাজনৈতিক ব্যক্তিরা। চলচ্চিত্র অঙ্গনের খলনায়ক মনোয়ার হোসেন ডিপজলের উপস্থিতি থাকার কথা থাকলেও তিনি অসুস্থতার কারণে আসতে পারেননি। ডিপজল তার এক প্রতিনিধিকে ফুলের নৌকা প্রতিক দিয়ে পাঠিয়েদেন।
আলহাজ্ব মোঃ এখলাস উদ্দিন মোল্লাহর বাবা মরহুম আলহাজ্ব হারুন-অর-রশিদ মোল্লাহ ২৭ বছর ধরে মিরপুরের প্রেসিডেন্ট ছিলেন, এর পর ড. কামালের সাথে সংসদ নির্বাচনে লড়াই করে সংসদ সদস্য হয়েছেন এর আগে এখলাস উদ্দিন মোল্লাহর দাদা অর্থাৎ হারন-অর-রশিদ মোল্লার বাবা হাজী কুজরত আলী মোল্লাহ ৪২ বছর ধরে মিরপুররের প্রেসিডেন্ট ছিলেন তখন মিরপুরের এরিয়া ছিলো কেরানীগঞ্জ থেকে শুরু করে টঙ্গি ব্রিজ পর্যন্ত। একমাত্র মিরপুরের মোল্লাহ্ পরিবারের হাতেই মিরপুরের লোকজন নিরাপদ মনে করেন। কারন মোল্লাহরা পূর্ব পুরুষ থেকে মিরপুরে নেতৃত্ব দিয়ে আসিতেছে। আর শেখ পরিবারের সাথে তাদের রয়েছে গভির গনিষ্ঠতার সম্পর্ক। এখলাস উদ্দিনের বড় ছেলে ইমরান উদ্দিন মোল্লাহ যখন জন্ম গ্রহণ করেন তখন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নিজে এসে ইমরান উদ্দিন মোল্লাহকে কোলে তুলে নেন আর একটি লকেট উপহার দেন।
জন্ম সুত্রেই মোল্লাহ্ পরিবার আওয়ামীলীগের কান্ডারী যার ফলে শুক্রবার ‘জনগণের ভালোবাসায় সিক্ত হলেন আলহাজ¦ মোঃ এখলাস উদ্দিন মোল্লাহ। জনগণের এই ভালোবাসা জাতির জনক বঙ্গবন্ধু কণ্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উদ্দেশ্যে উৎসর্গ করেন ঢাকা-১৪ আসনের উপ-নির্বাচনে মনোনয়ন প্রত্যাশী আলহাজ্ব মোঃ এখলাস উদ্দিন মোল্লাহ।
আলহাজ্ব মোঃ এখলাস উদ্দিন মোল্লাহ উপ-নির্বাচনে আসবেন বলে ঢাকা-১৪ আসনের জনগণের মনে আনন্দ উল্লাস দেখা দিচ্ছে বলে এলাকাবাসিরা জানান।