রবিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৫:৫২ অপরাহ্ন

শিরোনাম :
সু চিকে আমৃত্যু কারাগারে রাখার ব্যবস্থা করছে সামরিক জান্তা : আইনজীবী ১৬১ ইউনিয়নে নির্বাচন সোমবার, প্রচারণা শেষ আজ ২৪ ঘণ্টা নজরদারিতে থাকবে সামাজিক মাধ্যম বাংলাদেশে কোনো তত্ত্বাবধায়ক সরকার হবে না : কৃষিমন্ত্রী ‘মুক্তিযোদ্ধা প্রজন্ম লীগের’ অনুষ্ঠান বন্ধ করলেন ওবায়দুল কাদের ইরাকের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সাথে বাংলাদেশি রাষ্ট্রদূতের বৈঠাক, জনশক্তি রপ্তানির আশ্বাস দেশের উন্নয়নে যুবলীগকে বিশেষ ভূমিকা রাখতে হবে- মাগুরায় যুবলীগের বর্ধীত সভায় সুব্রত পাল বরগুনায় ১১ মামলার আসামী রিয়াজ১০০ পিচ ইয়াবা সহ গ্রেফতার গাইবান্ধায় কোটি টাকা মূল্যের ৬টি তক্ষক উদ্ধার নওগাঁয় পৌর মেয়রসহ ২ বিএনপি নেতা গ্রেফতার
তল্লাশি করছে তালেবান

তল্লাশি করছে তালেবান

অনলাইন ডেস্ক

আফগানিস্তানের যেসব নাগরিক বিদেশিদের নানাভাবে সহায়তা করছে ও তাদের সঙ্গে কাজ করেছেন তালিকা ধরে সেসব আফগানদের খুঁজছে তালেবান যোদ্ধারা। এ জন্য বাড়ি বাড়ি গিয়ে তল্লাশি চালাচ্ছে তারা। এমনকি দেশ ছাড়ার উদ্দেশে রাজধানী কাবুলের হামিদ কারজাই আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের জড়ো হওয়া মানুষের মধ্যেও বিদেশি সহায়তাকারীদের খোঁজা হচ্ছে।

জাতিসংঘের একটি গোপন নথিতে এমন তথ্য উল্লেখ করা হয়েছে। ওই নথির বরাত দিয়ে মার্কিন সংবাদমাধ্যম নিউইয়র্ক টাইমস এসব তথ্য জানিয়েছে। জাতিসংঘের ওই নথিতে বলা হয়েছে, নানা মাধ্যমে জানা গেছে তালেবান একটি তালিকা তৈরি করেছে। মার্কিন ও ন্যাটো বাহিনীর হয়ে কাজ করেছেন, এমন আফগানদের নাম রয়েছে ওই তালিকায়। তালিকায় নাম থাকা ব্যক্তিদের জিজ্ঞাসাবাদ ও প্রয়োজনে শাস্তি দিতে চায় তালেবান।

নথিতে আরও বলা হয়, যারা ইতিমধ্যে পালিয়ে গেছেন, তাদের পরিবারের সদস্যদের হুমকি দেওয়া হচ্ছে। বলা হচ্ছে, নিজে থেকে ধরা না দিলে পরিবারের সদস্যদের গ্রেপ্তার করা হবে। এমনকি তালেবানের পক্ষ থেকে অনেকে হত্যার হুমকিও পেয়েছেন। যদিও কাবুল দখলের পর বিদেশি বাহিনীদের সহায়তাকারী আফগানদের ক্ষমা করে দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছিল তালেবান।

এর আগে গত মঙ্গলবার প্রথম আনুষ্ঠানিক সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাব দেন তালেবানের মুখপাত্র জাবিউল্লাহ মুজাহিদ। এ সময় তার কাছে বিদেশি বাহিনীগুলোর জন্য এত দিন যারা দোভাষী হিসেবে কাজ করেছেন, তাদের বিষয়ে জানতে চাওয়া হয়।

জবাবে জাবিউল্লাহ মুজাহিদ বলেন, ‘কাউকেই শত্রু হিসেবে গণ্য করা হবে না। যেসব তরুণ এখানে বড় হয়েছে, আমরা তাদের ছাড়তে চাই না। তারা আমাদের সম্পদ। কেউ তাদের দরজায় টোকা দিয়ে জানতে চাইবে না তারা কার জন্য কাজ করেছে। তারা নিরাপদে থাকবে। কেউ তাদের জেরা বা তাড়া করবে না।’

খবরটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved 2018 khoborbangladesh.com
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com