ঢাকা ০২:১৭ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৯ মে ২০২৪, ১৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম :
দ্বাদশ জাতীয় সংসদের পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির তৃতীয় বৈঠক অনুষ্ঠিত ৫ বছরের অধিক প্রেষনে দায়িত্ব পালন করছেন চীফ ইঞ্জিনিয়ার মঞ্জুরুল কবীর! বিআইডব্লিউটিএর অতি: পরিচালক আরিফ উদ্দিনের সম্পদের পাহাড়! শাহআলীতে গৃহবধূকে গলা কেটে হত্যাকারি পলাতক স্বামী গ্রেফতার  অতি:পরিচালক আরিফ উদ্দিন এখন বিআইডব্লিউটিএ‘র অঘোষিত “রাজা”! সাভারে এক ইউপি চেয়ারম্যানের সম্পদের পাহাড়! সিরাজদিখানে মঈনুল হাসান নাহিদকে বিকল্প ধরার সমর্থন মির্জাগঞ্জের ইউ,পি সচিব পরকীয়া প্রেমিকার হত্যাকাণ্ডে পুলিশ হেফাজতে শেষ মুহূর্তের প্রচারণায় মানুষের ভালবাসায় আমি মুগ্ধ: চেয়ারম্যান প্রার্থী পলাশ মানবতার আড়ালে ভয়ংকর ফয়সাল বাহিনী, পিস্তল ঠেকিয়ে টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগ

মাধবদীতে বিদেশ ফেরত যুবকের গলাকাটা মরদেহ উদ্ধার

নরসিংদী প্রতিনিধি
নরসিংদীর মাধবদীতে মো. কাইয়ুম মিয়া (৩৫) নামে প্রবাস ফেরত এক যুবকের গলাকাটা মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। সোমবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে মাধবদী থানাধীন আমদিয়া ইউনিয়নের ভূঁইয়ম গ্রাম থেকে তাঁর লাশ উদ্ধার করা হয়।
নিহত মো. কাইয়ুম মিয়া (৩৫) সদর উপজেলার মাধবদী থানার আমদিয়ার ভূঁইয়ম গ্রামের বীর মুক্তিযোদ্ধা রশিদ মিয়ার ছেলে। দীর্ঘদিন প্রবাসে থাকার পর সম্প্রতি দেশে ফেরেন তিনি।
নিহতের পরিবারের সদস্যরা জানান, গত রবিবার সকালে কাইয়ুম মিয়া ব্যক্তিগত একটি কাজে বাড়ি থেকে বের হয়। রাত সাড়ে ৮টার দিকে তাঁর সঙ্গে সর্বশেষ কথা হয় পরিবারের। রাত ৯টার পর থেকে কাইয়ুমের সঙ্গে আর যোগাযোগ করতে পারছিলেন না পরিবারের সদস্যরা। রাতে বাড়ি না ফেরায় বিভিন্ন স্থানে খোঁজাখুঁজি করেও তাঁর কোন খোঁজ পাওয়া যাচ্ছিল না। পরদিন সোমবার সকাল সাড়ে ৮টার দিকে বাড়ির পার্শ্ববর্তী একটি মাঠে তাঁর লাশ পড়ে থাকার খবর পান তারা।
পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, সোমবার সকাল সাড়ে ৮টার দিকে বাড়ির অদূরে একটি খোলা মাঠের কোনায় কাইয়ুম মিয়ার গলাকাটা লাশ পড়ে থাকতে দেখেন স্থানীয় কয়েকজন ব্যক্তি। পরে তারা কাইয়ুমের পরিবারের সদস্যদের খবর জানান। সকাল সাড়ে ১০টার দিকে মাধবদী থানা-পুলিশকে খবর জানালে উপপরিদর্শক মো. ফরহাদ হোসেন বেলা সাড়ে ১১টার দিকে লাশ উদ্ধার করেন। পরে সুরতহাল শেষে ময়নাতদন্তের জন্য তাঁর লাশ নরসিংদী সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়।
নিহতের বাবা বীর মুক্তিযোদ্ধা রশিদ মিয়া জানান, আমার ছেলেকে কারা এভাবে হত্যা করলো এখনও বুঝতে পারছি না। তাঁর সঙ্গে কারো কোন শত্রুতা থাকার কথাও শুনিনি। আমি আমার ছেলে হত্যার বিচার চাই।
মাধবদী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. সৈয়দুজ্জামান জানান, গলাকাটা লাশ পড়ে থাকার খবর পেয়ে আমরা ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশ উদ্ধার করেছি। ঠিক কি কারণে তাকে এমনভাবে হত্যা করা হল তা জানতে পুলিশি তদন্ত শুরু হয়েছে। এইএই ঘটনায় পরবর্তী আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।
ট্যাগস
জনপ্রিয় সংবাদ

দ্বাদশ জাতীয় সংসদের পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির তৃতীয় বৈঠক অনুষ্ঠিত

মাধবদীতে বিদেশ ফেরত যুবকের গলাকাটা মরদেহ উদ্ধার

আপডেট টাইম : ০৪:৩২:৪১ অপরাহ্ন, সোমবার, ৩১ জানুয়ারী ২০২২
নরসিংদী প্রতিনিধি
নরসিংদীর মাধবদীতে মো. কাইয়ুম মিয়া (৩৫) নামে প্রবাস ফেরত এক যুবকের গলাকাটা মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। সোমবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে মাধবদী থানাধীন আমদিয়া ইউনিয়নের ভূঁইয়ম গ্রাম থেকে তাঁর লাশ উদ্ধার করা হয়।
নিহত মো. কাইয়ুম মিয়া (৩৫) সদর উপজেলার মাধবদী থানার আমদিয়ার ভূঁইয়ম গ্রামের বীর মুক্তিযোদ্ধা রশিদ মিয়ার ছেলে। দীর্ঘদিন প্রবাসে থাকার পর সম্প্রতি দেশে ফেরেন তিনি।
নিহতের পরিবারের সদস্যরা জানান, গত রবিবার সকালে কাইয়ুম মিয়া ব্যক্তিগত একটি কাজে বাড়ি থেকে বের হয়। রাত সাড়ে ৮টার দিকে তাঁর সঙ্গে সর্বশেষ কথা হয় পরিবারের। রাত ৯টার পর থেকে কাইয়ুমের সঙ্গে আর যোগাযোগ করতে পারছিলেন না পরিবারের সদস্যরা। রাতে বাড়ি না ফেরায় বিভিন্ন স্থানে খোঁজাখুঁজি করেও তাঁর কোন খোঁজ পাওয়া যাচ্ছিল না। পরদিন সোমবার সকাল সাড়ে ৮টার দিকে বাড়ির পার্শ্ববর্তী একটি মাঠে তাঁর লাশ পড়ে থাকার খবর পান তারা।
পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, সোমবার সকাল সাড়ে ৮টার দিকে বাড়ির অদূরে একটি খোলা মাঠের কোনায় কাইয়ুম মিয়ার গলাকাটা লাশ পড়ে থাকতে দেখেন স্থানীয় কয়েকজন ব্যক্তি। পরে তারা কাইয়ুমের পরিবারের সদস্যদের খবর জানান। সকাল সাড়ে ১০টার দিকে মাধবদী থানা-পুলিশকে খবর জানালে উপপরিদর্শক মো. ফরহাদ হোসেন বেলা সাড়ে ১১টার দিকে লাশ উদ্ধার করেন। পরে সুরতহাল শেষে ময়নাতদন্তের জন্য তাঁর লাশ নরসিংদী সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়।
নিহতের বাবা বীর মুক্তিযোদ্ধা রশিদ মিয়া জানান, আমার ছেলেকে কারা এভাবে হত্যা করলো এখনও বুঝতে পারছি না। তাঁর সঙ্গে কারো কোন শত্রুতা থাকার কথাও শুনিনি। আমি আমার ছেলে হত্যার বিচার চাই।
মাধবদী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. সৈয়দুজ্জামান জানান, গলাকাটা লাশ পড়ে থাকার খবর পেয়ে আমরা ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশ উদ্ধার করেছি। ঠিক কি কারণে তাকে এমনভাবে হত্যা করা হল তা জানতে পুলিশি তদন্ত শুরু হয়েছে। এইএই ঘটনায় পরবর্তী আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।