ঢাকা ০৩:৩১ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৪ জুন ২০২৪, ১০ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম :
আদমদীঘিতে শিশু ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগ: গ্রেফতার-১ মহম্মদপুরে হত্যার মামলার আসামি জামিনে এসে বাদিকে মামলা তুলে নেয়ার হুমকি, পরে মারধর আ.লীগ নেতার হুমকিতে নিরাপত্তাহীনতায় আইসক্রিম ফাক্টরি মালিক কালিহাতীতে লিঙ্গ কাটার অভিযোগ স্ত্রী’র বিরুদ্ধে ফিটনেস বিহীন নৌযানে সয়লাব সদরঘাট,নেই পর্যাপ্ত দক্ষ নাবিক! ৫০ কোটি টাকার মামলা থেকে বাঁচতে প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তার পাল্টা মামলা! ফরিদপুরে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের ঘটনায় তোলপাড় রশুনিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের পরিচালনা পর্ষদের নব সভাপতি হলেন আবু সাঈদ মির্জাগঞ্জে আমর্ড পুলিশ ব্যাটালিয়ন (এপিবিএন) উদ্যোগে ত্রাণসামগ্রী বিতরণ মাগুরার হৃদয়পুরে ফসলি জমির টপসয়েল মাটিকাটার অভিযোগ, ইউএনওর হস্তক্ষেপে কাজ বন্ধ

মহম্মদপুরে পূর্ব শত্রুতার জেরে বৃদ্ধ মহিলাকে কুপিয়ে জখম

মাহামুদুন নবী:
গ্রাম্য আধিপত্য বিস্তার নিয়ে মাগুরা মহম্মদপুর উপজেলার পলাশবাড়িয়া ইউনিয়নের বেথুড়ি গ্রামে প্রতিপক্ষের হামলা। পরি বেগম (৫৫) নামের এক মহিলাকে কুপিয়ে জখমের অভিযোগ পাওয়া গেছে । আহত পরি বেগম ওই এলাকার আহাদ মেম্বরের স্ত্রী। বুধবার বাদ মাগরিব এ ঘটনা ঘটে। জানা যায়, বেথুড়িয়া এলাকায় লিয়াকত মাস্টার ও হাসমত বিডিআর এর সাথে একই এলাকার আহাদ মেম্বরের গ্রাম্য আধিপত্য নিয়ে বিরোধ চলে আসছিল। তারই জের ধরে বুধবার বাদ মাগরিব লিয়াকত মাস্টার ও হাসমত বিডি আরের লোকজন সংঘবদ্ধ হয়ে আহাদ মেম্বরের বাড়িতে হামলা করে। বাড়িতে কোন পুরুষ লোকজন না থাকায় ঘরবাড়ি এলোপাথাড়ি কোপায় হামলার খবর পেয়ে মহিলার স্বামি আহাদ মেম্বর বাড়িতে আসলে আহাদকে কোপানোর চেষ্টা করে এসময় পরি বেগমের কোপ লাগে। স্বামী সামান্য আহত হলে ও স্ত্রী গুরুতর আহত হয়। বৃদ্ধ মহিলাকে উদ্ধার করে প্রথমে মহম্মদপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তী করা হয় পরে অবস্থা গুরুতর হওয়ায় তাকে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয় এবং আহাদকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়। আহত পরি বেগম বলেন, বুধবার বাদ মাগরিব লিয়াকত মাস্টার ও হাসমত তার লোকজন হঠাৎ দেশিয় অস্ত্র ঢাল সরকি নিয়ে বাড়ি আক্রমন করে ও বাড়িঘরে কোপাতে থাকে এসময় দরজা খুলে বাইরে এসে বাঁধা দেবার সময় তারা আমাকে মাথায় কুপিয়ে জখম ও আমার স্বামী- কে পিটিয়ে আহত করে। এছাড়া হাসমত বিডি আর ছুটিতে বাড়িতে আসলেই এলাকায় কোন না কোন ঝামেলা বা মারামারি করেন এটি এখন তার কাছে কমন ব্যাপার হয়ে গেছে। এ বিষয়ে আহাদ মেম্বর বলেন, আধিপত্য বিস্তার নিয়ে পূর্ব শত্রুতার জের ধরেই তার বাড়িতে তার প্রতিপক্ষ লিয়াকত- হাসমত মাস্টারের লোকজন হামলা করে বাড়িঘর কোপায় এবং তার স্ত্রীকে কুপিয়ে আহত করে। ঠেকাতে গেলে তাকে ও পিটিয়ে আহত করে। লিয়াকত মাস্টারের সাথে তার মুঠোফোনে একাধিকবার কল দিয়ে চেস্টা করেও ফোন না ধরায় কথা বলা সম্ভব হয়নি। মহম্মদপুর থানার ওসি বলেন, ঘটনাটি জেনেছি পুলিশ ঘটনাস্থল ও হাসপাতালে গিয়েছিল বর্তমান পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে। কোন লিখিত অভিযোগ পায়নি অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

ট্যাগস
জনপ্রিয় সংবাদ

আদমদীঘিতে শিশু ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগ: গ্রেফতার-১

মহম্মদপুরে পূর্ব শত্রুতার জেরে বৃদ্ধ মহিলাকে কুপিয়ে জখম

আপডেট টাইম : ০৬:৪৭:১৩ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৩ এপ্রিল ২০২২

মাহামুদুন নবী:
গ্রাম্য আধিপত্য বিস্তার নিয়ে মাগুরা মহম্মদপুর উপজেলার পলাশবাড়িয়া ইউনিয়নের বেথুড়ি গ্রামে প্রতিপক্ষের হামলা। পরি বেগম (৫৫) নামের এক মহিলাকে কুপিয়ে জখমের অভিযোগ পাওয়া গেছে । আহত পরি বেগম ওই এলাকার আহাদ মেম্বরের স্ত্রী। বুধবার বাদ মাগরিব এ ঘটনা ঘটে। জানা যায়, বেথুড়িয়া এলাকায় লিয়াকত মাস্টার ও হাসমত বিডিআর এর সাথে একই এলাকার আহাদ মেম্বরের গ্রাম্য আধিপত্য নিয়ে বিরোধ চলে আসছিল। তারই জের ধরে বুধবার বাদ মাগরিব লিয়াকত মাস্টার ও হাসমত বিডি আরের লোকজন সংঘবদ্ধ হয়ে আহাদ মেম্বরের বাড়িতে হামলা করে। বাড়িতে কোন পুরুষ লোকজন না থাকায় ঘরবাড়ি এলোপাথাড়ি কোপায় হামলার খবর পেয়ে মহিলার স্বামি আহাদ মেম্বর বাড়িতে আসলে আহাদকে কোপানোর চেষ্টা করে এসময় পরি বেগমের কোপ লাগে। স্বামী সামান্য আহত হলে ও স্ত্রী গুরুতর আহত হয়। বৃদ্ধ মহিলাকে উদ্ধার করে প্রথমে মহম্মদপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তী করা হয় পরে অবস্থা গুরুতর হওয়ায় তাকে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয় এবং আহাদকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়। আহত পরি বেগম বলেন, বুধবার বাদ মাগরিব লিয়াকত মাস্টার ও হাসমত তার লোকজন হঠাৎ দেশিয় অস্ত্র ঢাল সরকি নিয়ে বাড়ি আক্রমন করে ও বাড়িঘরে কোপাতে থাকে এসময় দরজা খুলে বাইরে এসে বাঁধা দেবার সময় তারা আমাকে মাথায় কুপিয়ে জখম ও আমার স্বামী- কে পিটিয়ে আহত করে। এছাড়া হাসমত বিডি আর ছুটিতে বাড়িতে আসলেই এলাকায় কোন না কোন ঝামেলা বা মারামারি করেন এটি এখন তার কাছে কমন ব্যাপার হয়ে গেছে। এ বিষয়ে আহাদ মেম্বর বলেন, আধিপত্য বিস্তার নিয়ে পূর্ব শত্রুতার জের ধরেই তার বাড়িতে তার প্রতিপক্ষ লিয়াকত- হাসমত মাস্টারের লোকজন হামলা করে বাড়িঘর কোপায় এবং তার স্ত্রীকে কুপিয়ে আহত করে। ঠেকাতে গেলে তাকে ও পিটিয়ে আহত করে। লিয়াকত মাস্টারের সাথে তার মুঠোফোনে একাধিকবার কল দিয়ে চেস্টা করেও ফোন না ধরায় কথা বলা সম্ভব হয়নি। মহম্মদপুর থানার ওসি বলেন, ঘটনাটি জেনেছি পুলিশ ঘটনাস্থল ও হাসপাতালে গিয়েছিল বর্তমান পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে। কোন লিখিত অভিযোগ পায়নি অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।