ঢাকা ০৭:১৪ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১১ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম :
মির্জাগঞ্জে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ও  শহীদ  দিবসে বাংলাদেশ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির শ্রদ্ধা নিবেদন  ৫২’র ভাষা শহীদদের প্রতি মিরপুর রিপোর্টার্স ক্লাবের শ্রদ্ধা নিবেদন প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তরকে দুর্নীতির স্বর্গরাজ্যে পরিণত করেছেন ডিজি ডা: মো: এমদাদুল হক তালুকদার! বাসাবো এলাকায় রাজউকের উচ্ছেদ অভিযান; ৪ লক্ষ টাকা জরিমানা দুই সাব-রেজিস্ট্রারের বদলী উপলক্ষে বিদায় সংবর্ধনা দুর্নীতির বিরুদ্ধে শূন্য সহনশীল হবেন দুদক কর্মকর্তারা বলিষ্ঠ নেতৃত্বের মাধ্যমে ভূমি অফিস পরিচালনা করুন: ভূমিমন্ত্রী বাসাবো এলাকায় রাজউকের উচ্ছেদ অভিযান; ৪ লক্ষ টাকা জরিমানা মাগুরায় মাদরাসার সভাপতির ধমকে সুপার অজ্ঞান  মাগুরায় সাকিবের পৃষ্ঠপোষকতায় মহান একুশ উপলক্ষে শহরে আলপনার উদ্যোগ 

মাগুরা জেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন কাল

মাগুরা প্রতিনিধি

আগামীকাল শনিবার (১৪ মে) মাগুরা জেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে। এ সম্মেলনকে কেন্দ্র করে সংগঠনের নেতাকর্মীদের মধ্যে সাজ সাজ রব ও  ব্যাপক সৎসাহ উদ্দিপনা দেখা দিয়েছে। সম্মেলন সফল করতে জেলা আওয়ামী লীগসহ প্রতিটি অঙ্গ সংগঠন ইতিমধ্যে জেলা থেকে শুরু করে প্রত্যন্ত অঞ্চলে গণসংযোগ ও সভা সমাবেশসহ সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে। সম্মেলন ঘিরে দলীয় নেতাকর্মী ও সমর্থকদের মধ্যে চাঞ্চল্যে লক্ষ করা গেছে। এমনকি দীর্ঘদিন দলের কর্মকাণ্ড থেকে দূরে থাকা নেতাকর্মীরাও অনেকটা সরব হয়ে উঠেছে।

শনিবার সকাল ১০ টায় স্থানীয় নোমানী ময়দানে সম্মেলন উদ্বোধন করবেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ এর কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক, সড়ক-যোগাযোগ ও সেতু মন্ত্রণালয়েরমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের এমপি। সভাপতিত্ব করবেন মাগুরা জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আ ফ ম আব্দুল ফাত্তাহ্। প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রেমিডিয়াম সদস্য কাজী জাফরুল্লাহ। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন প্রেসিডয়াম সদস্য আব্দুর রহমান, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাসিম, মাগুরা-১ আসনের সংসদ সদস্য মো.সাইফ্জ্জুামান শিখর, মাগুরা-২ আসনের সংসদ সদস্য ড. বীরেন শিকদারসহ কেন্দ্রীয় ও স্থানীয় নেতৃবৃৃন্দ।

প্রধান বক্তা হিসেবে বক্তব্য রাখবেন দলের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক বি এম মোজ্জাম্মেল হোসেন। পরে দ্বিতীয় অধিবেশন অনুষ্ঠিত হবে শেখ কামাল ইনডোর স্টেডিয়ামে।

দলীয় সূত্রে জানা গেছে, জেলা আওয়ামী লীগের সর্বশেষ সম্মেলন হয়েছে ২০১৫ সালের ৮ মার্চ। এ সম্মেলনে জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক প্রফেসর ডাক্তার সিরাজুল আকবরকে সভাপতি ও পঙ্কজ কুমার কুন্ডুকে সাধারণ সম্পাদক মনোনিত হন। ওই বছরের ৯ মার্চ নব-নির্বাচিত সভাপতি প্রফেসর ডাক্তার সিরাজুল আকবর মৃত্যুবরণ করেন। পরবর্তীতে জেলা আওয়ামী লীগের জ্যেষ্ঠ নেতা বীর মুক্তিযোদ্ধা তানজেল হোসেন খানকে কেন্দ্র থেকে সভাপতি নির্বাচিত করা হয়। ২০২০ সালের ২০ জানুয়ারি তানজেল হোসেন খানের মৃত্যু হলে সভাপতি পদটি আবারও শূন্য হয়। পরবর্তীতে জ্যেষ্ঠ সহ-সভাপতি আ ফ ম আব্দুল ফাত্তাহ্ কে ভারপ্রাপ্ত সভাপতির দায়িত্ব দেয়া হয়। সেই থেকে জেলা আওয়ামী লীগের নেতৃত্ব দিয়ে আসছেন আব্দুল ফাত্তাহ্ ও পঙ্কজ কুন্ডু। এ বারের সম্মেলনে বর্তমান কমিটির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের পাশাপাশি অনেক নতুন মুখ কমিটিতে আসতে পারে বলে দলীয় নেতাকর্মীরা ধারণা করছেন।

নেতৃত্ব নির্বাচনের বিষয় নিয়ে নানামুখি আলোচনা চলছে নেতাকর্মীদের মাঝে। সভাপতি পদের মধ্যে উল্লেখযোগ্য হচ্ছেন প্রবীণ নেতা জেলা আওয়ামী লীগের বর্তমান সহ-সভাপতি মুন্সী রেজাউল হক, সহ-সভাপতি সদর উপজেলা চেয়ারম্যান আবু নাসির বাবলু ও সহসভাপতি জেলা পরিষদের সাবেক প্রশাসক অ্যাডভোকেট সৈয়দ শরিফুল ইসলাম, জ্যেষ্ঠ যুগ্ম সম্পাদক অ্যাডভোকেট শফিক্জ্জুামান বাচ্চু। পাশপাশি সাধারণ সম্পাদক পদে একাধিক নতুন প্রার্থীর প্রতিদ্বন্দ্বিতার সম্ভাবনা রয়েছে। সম্পাদক পদে যাদের নাম শোনা যাচ্ছে তারা হচ্ছেন সাংগঠনিক সম্পাদক পৌর মেয়র খুরশীদ হায়দার টুটুল, প্রচার সম্পাদক অ্যাডভোকেট শাখারুল ইসলাম শাকিল, সাবেক ছাত্রনেতা ওহিদুর রহমান টিপু। সাধারণ সম্পাদকের পাশাপাশি সভাপতি পদে বেশ ক’জন জ্যেষ্ঠ নেতা তাদের আগ্রহের কথা জানিয়েছেন।
জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও জেলা পরিষদ প্রশাসক পংকজ কুণ্ডু বলেন, সুষ্ঠ ও সুন্দরভাবে সম্মেলন সম্পন্ন করার জন্য দলের পক্ষ থেকে সকল প্রকার প্রস্তুতি সম্পন্ন করা হয়েছে। সম্মেলনকে কেন্দ্রর করে দলের নেতা কর্মীদের মাঝে ব্যাপক প্রাণচাঞ্চল্য সৃষ্ঠি হয়েছে। তিনি বলেন, নেতৃত্বের প্রতিযোগিতা থাকলেও মাগুরা জেলা আওয়ামী লীগের তৃণমূল থেকে জেলা পর্যায় পর্যন্ত দলের মধ্যে কোন বিভেদ নেই। বিশেষ করে জেলা সম্মেলনকে কেন্দ্র করে মাগুরা জেলা আওয়ামী লীগ একটি ঐক্যবন্ধ সংগঠনে পরিণত হয়েছে।

মাগুরা-১ আসনের সংসদ সদস্য সাইফুজ্জামান শিখর বলেন, ‘আমি মনে করি আগামী ১৪ তারিখের সম্মেলন দৃষ্টান্তমূলক সম্মেলন হিসেবে অনুষ্ঠিত হবে। একটি সফল সম্মেলনের মধ্যদিয়ে জননেত্রী শেখ হাসিনার সোনার বাংলা গড়ার কারিগর বের হয়ে আসবে। আগামী সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে বিরোধী দলের আন্দোলন সংগ্রামকে মোকাবেলা করে অতীতের নেতৃত্বের ন্যায় সমগ্র জেলার নেতাকর্মীদের সাথে নিয়ে দুটি নির্বাচনী আসন ধরে রাখতে পারবে। এছাড়া দলকে আরো গতিশীল করে তুলবে, এমন নেতৃত্ব আসবে বলে আমি মনে করি’।

ট্যাগস

মির্জাগঞ্জে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ও  শহীদ  দিবসে বাংলাদেশ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির শ্রদ্ধা নিবেদন 

মাগুরা জেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন কাল

আপডেট টাইম : ০১:০৫:৩৭ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৩ মে ২০২২

মাগুরা প্রতিনিধি

আগামীকাল শনিবার (১৪ মে) মাগুরা জেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে। এ সম্মেলনকে কেন্দ্র করে সংগঠনের নেতাকর্মীদের মধ্যে সাজ সাজ রব ও  ব্যাপক সৎসাহ উদ্দিপনা দেখা দিয়েছে। সম্মেলন সফল করতে জেলা আওয়ামী লীগসহ প্রতিটি অঙ্গ সংগঠন ইতিমধ্যে জেলা থেকে শুরু করে প্রত্যন্ত অঞ্চলে গণসংযোগ ও সভা সমাবেশসহ সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে। সম্মেলন ঘিরে দলীয় নেতাকর্মী ও সমর্থকদের মধ্যে চাঞ্চল্যে লক্ষ করা গেছে। এমনকি দীর্ঘদিন দলের কর্মকাণ্ড থেকে দূরে থাকা নেতাকর্মীরাও অনেকটা সরব হয়ে উঠেছে।

শনিবার সকাল ১০ টায় স্থানীয় নোমানী ময়দানে সম্মেলন উদ্বোধন করবেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ এর কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক, সড়ক-যোগাযোগ ও সেতু মন্ত্রণালয়েরমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের এমপি। সভাপতিত্ব করবেন মাগুরা জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আ ফ ম আব্দুল ফাত্তাহ্। প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রেমিডিয়াম সদস্য কাজী জাফরুল্লাহ। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন প্রেসিডয়াম সদস্য আব্দুর রহমান, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাসিম, মাগুরা-১ আসনের সংসদ সদস্য মো.সাইফ্জ্জুামান শিখর, মাগুরা-২ আসনের সংসদ সদস্য ড. বীরেন শিকদারসহ কেন্দ্রীয় ও স্থানীয় নেতৃবৃৃন্দ।

প্রধান বক্তা হিসেবে বক্তব্য রাখবেন দলের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক বি এম মোজ্জাম্মেল হোসেন। পরে দ্বিতীয় অধিবেশন অনুষ্ঠিত হবে শেখ কামাল ইনডোর স্টেডিয়ামে।

দলীয় সূত্রে জানা গেছে, জেলা আওয়ামী লীগের সর্বশেষ সম্মেলন হয়েছে ২০১৫ সালের ৮ মার্চ। এ সম্মেলনে জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক প্রফেসর ডাক্তার সিরাজুল আকবরকে সভাপতি ও পঙ্কজ কুমার কুন্ডুকে সাধারণ সম্পাদক মনোনিত হন। ওই বছরের ৯ মার্চ নব-নির্বাচিত সভাপতি প্রফেসর ডাক্তার সিরাজুল আকবর মৃত্যুবরণ করেন। পরবর্তীতে জেলা আওয়ামী লীগের জ্যেষ্ঠ নেতা বীর মুক্তিযোদ্ধা তানজেল হোসেন খানকে কেন্দ্র থেকে সভাপতি নির্বাচিত করা হয়। ২০২০ সালের ২০ জানুয়ারি তানজেল হোসেন খানের মৃত্যু হলে সভাপতি পদটি আবারও শূন্য হয়। পরবর্তীতে জ্যেষ্ঠ সহ-সভাপতি আ ফ ম আব্দুল ফাত্তাহ্ কে ভারপ্রাপ্ত সভাপতির দায়িত্ব দেয়া হয়। সেই থেকে জেলা আওয়ামী লীগের নেতৃত্ব দিয়ে আসছেন আব্দুল ফাত্তাহ্ ও পঙ্কজ কুন্ডু। এ বারের সম্মেলনে বর্তমান কমিটির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের পাশাপাশি অনেক নতুন মুখ কমিটিতে আসতে পারে বলে দলীয় নেতাকর্মীরা ধারণা করছেন।

নেতৃত্ব নির্বাচনের বিষয় নিয়ে নানামুখি আলোচনা চলছে নেতাকর্মীদের মাঝে। সভাপতি পদের মধ্যে উল্লেখযোগ্য হচ্ছেন প্রবীণ নেতা জেলা আওয়ামী লীগের বর্তমান সহ-সভাপতি মুন্সী রেজাউল হক, সহ-সভাপতি সদর উপজেলা চেয়ারম্যান আবু নাসির বাবলু ও সহসভাপতি জেলা পরিষদের সাবেক প্রশাসক অ্যাডভোকেট সৈয়দ শরিফুল ইসলাম, জ্যেষ্ঠ যুগ্ম সম্পাদক অ্যাডভোকেট শফিক্জ্জুামান বাচ্চু। পাশপাশি সাধারণ সম্পাদক পদে একাধিক নতুন প্রার্থীর প্রতিদ্বন্দ্বিতার সম্ভাবনা রয়েছে। সম্পাদক পদে যাদের নাম শোনা যাচ্ছে তারা হচ্ছেন সাংগঠনিক সম্পাদক পৌর মেয়র খুরশীদ হায়দার টুটুল, প্রচার সম্পাদক অ্যাডভোকেট শাখারুল ইসলাম শাকিল, সাবেক ছাত্রনেতা ওহিদুর রহমান টিপু। সাধারণ সম্পাদকের পাশাপাশি সভাপতি পদে বেশ ক’জন জ্যেষ্ঠ নেতা তাদের আগ্রহের কথা জানিয়েছেন।
জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও জেলা পরিষদ প্রশাসক পংকজ কুণ্ডু বলেন, সুষ্ঠ ও সুন্দরভাবে সম্মেলন সম্পন্ন করার জন্য দলের পক্ষ থেকে সকল প্রকার প্রস্তুতি সম্পন্ন করা হয়েছে। সম্মেলনকে কেন্দ্রর করে দলের নেতা কর্মীদের মাঝে ব্যাপক প্রাণচাঞ্চল্য সৃষ্ঠি হয়েছে। তিনি বলেন, নেতৃত্বের প্রতিযোগিতা থাকলেও মাগুরা জেলা আওয়ামী লীগের তৃণমূল থেকে জেলা পর্যায় পর্যন্ত দলের মধ্যে কোন বিভেদ নেই। বিশেষ করে জেলা সম্মেলনকে কেন্দ্র করে মাগুরা জেলা আওয়ামী লীগ একটি ঐক্যবন্ধ সংগঠনে পরিণত হয়েছে।

মাগুরা-১ আসনের সংসদ সদস্য সাইফুজ্জামান শিখর বলেন, ‘আমি মনে করি আগামী ১৪ তারিখের সম্মেলন দৃষ্টান্তমূলক সম্মেলন হিসেবে অনুষ্ঠিত হবে। একটি সফল সম্মেলনের মধ্যদিয়ে জননেত্রী শেখ হাসিনার সোনার বাংলা গড়ার কারিগর বের হয়ে আসবে। আগামী সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে বিরোধী দলের আন্দোলন সংগ্রামকে মোকাবেলা করে অতীতের নেতৃত্বের ন্যায় সমগ্র জেলার নেতাকর্মীদের সাথে নিয়ে দুটি নির্বাচনী আসন ধরে রাখতে পারবে। এছাড়া দলকে আরো গতিশীল করে তুলবে, এমন নেতৃত্ব আসবে বলে আমি মনে করি’।