ঢাকা ০৫:২৯ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১০ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম :
মির্জাগঞ্জে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ও  শহীদ  দিবসে বাংলাদেশ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির শ্রদ্ধা নিবেদন  ৫২’র ভাষা শহীদদের প্রতি মিরপুর রিপোর্টার্স ক্লাবের শ্রদ্ধা নিবেদন প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তরকে দুর্নীতির স্বর্গরাজ্যে পরিণত করেছেন ডিজি ডা: মো: এমদাদুল হক তালুকদার! বাসাবো এলাকায় রাজউকের উচ্ছেদ অভিযান; ৪ লক্ষ টাকা জরিমানা দুই সাব-রেজিস্ট্রারের বদলী উপলক্ষে বিদায় সংবর্ধনা দুর্নীতির বিরুদ্ধে শূন্য সহনশীল হবেন দুদক কর্মকর্তারা বলিষ্ঠ নেতৃত্বের মাধ্যমে ভূমি অফিস পরিচালনা করুন: ভূমিমন্ত্রী বাসাবো এলাকায় রাজউকের উচ্ছেদ অভিযান; ৪ লক্ষ টাকা জরিমানা মাগুরায় মাদরাসার সভাপতির ধমকে সুপার অজ্ঞান  মাগুরায় সাকিবের পৃষ্ঠপোষকতায় মহান একুশ উপলক্ষে শহরে আলপনার উদ্যোগ 

মধুখালীতে অভিভাবক সদস্য অত্র বিদ্যালয়ের নিয়োগ বাণিজ্য নিয়ে সংবাদ সম্মেলন করেন

মানিক শিকদার
ফরিদপুরের মধুখালী উপজেলার বামুন্দি বালিয়াকান্দি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের অভিভাবক সদস্য অত্র বিদ্যালয়ের নিয়োগ বাণিজ্য নিয়ে সংবাদ সম্মেলন করেন। অভিভাবক সদস্যের নাম মোঃ তারিকুল ইসলাম, তিনি বুধবার মধুখালী রিপোর্টাস ইউনিটির সভাপতির কার্যালয়ে এই সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য দেন বিগত ২৮/০৭/২০২২ ইং০তারিখ গণতান্ত্রিক বাংলাদেশ সরকারের শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা সমন্বয় শাখা সূত্র মন্ত্রী পরিষদ বিভাগের পত্র নং ০৪.০০.০০০০.৫১৪.০৩.০০১.২২ .২২১ তারিখ ১৮ই মে ২০২২ ইং মোতাবেক জেলা প্রশাসক ও মহোদয় প্রতিষ্ঠান সমূহের তদারকি পরিদর্শক কার্যক্রম এর দায়িত্ব দেয়া হয়েছে সে মোতাবেক আমরা মধুখালী উপজেলার বামুন্দী বালিয়াকান্দি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ছাত্রছাত্রীদের অভিভাবক সাবেক কমিটি শিক্ষা অনুরাগী জমিদাতা গ্রুপের সদস্য ও এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ আপনারা সদই অবগতির জন্য জানাচ্ছি যে বর্তমান ম্যানেজিং কমিটির সম্মানিত ছাত্রছাত্রী অভিভাবক সদস্য জনাব তরিকুল ইসলাম এর মাধ্যমে জানতে পেরেছি বিগত ০৬০ ২০২২ ইংরেজি ও ১৪০৭ ২০২২ ইংরেজি তারিখে ম্যানেজিং কমিটি কোন মিটিং না করেই রেজুলেশন খাতায় স্বাক্ষর নেয় স্বাক্ষর নেয়ার সম্পর্কে অভিভাবক সদস্য নজরুল শরীফ ও তরিকুল ইসলাম সভাপতি মেহেদী হাসান প্রধান শিক্ষক ও কো অপারেটর সদস্য শাহিন মিয়ার নিকট জিজ্ঞাসা করলে তারা সঠিক উত্তর না দিয়ে আমাদের সাথে বাগ বিতোন্ডা করে এক পর্যায়ে আমাদেরকে বলে যে নিয়োগ রয়েছে বলে বিষয়টি সকলের জানার প্রয়োজন নেই আমি মোহাম্মদ তরিকুল ইসলাম নিয়োগ সম্পর্কে জানতে পারব না তাহলে আমি কিসের ম্যানেজিং কমিটি সদস্য হলাম সভাপতি প্রধান শিক্ষক কর্পোরেটর সদস্য শাহিন মিয়া আমাকে বলে যে ম্যানেজিং কমিটির নির্বাচন চলাকালীন অবস্থা আমাদের ভোট করে লক্ষ লক্ষ টাকা খরচ হয়েছে বিধায় টাকা ছাড়া চাকরি দিতে পারিব না এবং নির্বাচন চলাকালীন অবস্থা আমার একটি পদের বিনিময়ে ৮ লক্ষ্য করে টাকা নিয়েছি তোমরা যদি কোনো প্রার্থী থাকে তাহলে ৮ লক্ষ টাকা দিবা তোমার প্রার্থী চাকরি দিব এই ঘুষ বাণিজ্যের কথা এলাকায় জানাজানি হলে সকল মানুষের মধ্যে দারুন খোপের সৃষ্টি হচ্ছে। অত্র বিদ্যালয় সভাপতি প্রধান শিক্ষক ও শিক্ষক প্রতিনিধি মোঃ লোকমান শেখ এর আপন আত্মীয়দের কে চাকরি দেবেন মর্মে দরখাস্ত করানো হয়েছে সভাপতি প্রধান শিক্ষকের নিকট নিয়োগ সম্পর্কে প্রশ্ন করলে প্রধান শিক্ষক বলেন যে নিয়োগ কমিটি আমার হাতে আমার যাকে নিয়োগ দিবো তার প্রশ্ন তিন থেকে চার দিন আগে দিয়ে দিব ও এবং ভাইবা বোর্ডে আমাদের মননীয় প্রার্থীকে পুন্ন নাম্বার দিয়ে দিব আমি প্রধান শিক্ষককে প্রশ্ন করলাম নিয়োগ যদি জেলা প্রশাসক মহোদয় দেয় সে ক্ষেত্রে আপনারা কি ভূমিকা প্রধান শিক্ষক তিরস্কার করে এ কথা উত্তর দেন যে জেলা প্রশাসককে উনি কি নিয়োগ দেওয়ার মালিক নিয়োগ দেবে কমিটি এবং উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার উল্লেখ থাকে যে অত্র বিদ্যালয় কোন ইংরেজি শিক্ষক নেই কোনমতে দায়সারা ক্লাস নেয়া হয় একজন ইংরেজি শিক্ষক নিয়োগ দিলে আমাদের প্রতিষ্ঠানের শিক্ষা মান উন্নয়ন হবে আমরা এলাকার সর্ব শ্রেণীর মানুষ মিটিং করে সিদ্ধান্তে উপনীত হয়েছে যে এই কমিটির মাধ্যমে মধুখালী উপজেলায় কোন স্থানে নিয়োগ পরীক্ষা হাতে দিব দিবোনা। অতএব জনাবের নিকট প্রার্থনা যোগ্যতা নিরপেক্ষতা পক্ষপাতহীন এবং নিয়োগ বাণিজ্য এ রাতে আপনারা বিশেষ নিয়োগ কমিটি গঠনের মাধ্যমে জেলা কেন্দ্রে প্রশ্নপত্র তৈরি হচ্ছে পরীক্ষার মাধ্যমে খাতা মূল্যায়ন সহস্তে ভাইভা পরীক্ষার মূল্যায়ন করে সই সব্ যোগ্যতার ভিত্তিতে গরীব মেধাবী প্রার্থীরা যাহাতে বঞ্চিত না হয় সে দিক বিবেচনা করে উক্ত পথগুলির নিয়োগ দেওয়ার সুব্যবস্থা করতে জনাবের সদয় মূর্জি হয়। পরবর্তীতে স্কুলের সভাপতি মেহেদী হাসান, প্রধান শিক্ষক বিশ্বজিৎ বিশ্বাস ও কো-অফট সদস্য মোঃ শাহিন মিয়ার কাছে তাদের বিরুদ্ধে যে অভিযোগ সেই বিষয়ে জানতে চাইলে তারা বলেন যে তাদের বিরুদ্ধে যে অভিযোগ করেছেন তা ভিত্তিহীন, এ বিষয়ে কোনো সত্যতা নেই। অভিভাবক সদস্য মোঃ তারিকুল ইসলাম উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে এই অভিযোগটি করেছেন। এক প্রশ্নের জবাবে তারা বলেন যে যদি কোন নিয়মে থাকে জেলা প্রশাসকের আন্ডারে নিয়োগ হবে তাহলে তাদের কোন আপত্তি নেই। তারা চান স্বচ্ছ ভাবে নিয়োগ হক।

ট্যাগস

মির্জাগঞ্জে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ও  শহীদ  দিবসে বাংলাদেশ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির শ্রদ্ধা নিবেদন 

মধুখালীতে অভিভাবক সদস্য অত্র বিদ্যালয়ের নিয়োগ বাণিজ্য নিয়ে সংবাদ সম্মেলন করেন

আপডেট টাইম : ০৯:৫১:৩৯ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২০ অগাস্ট ২০২২

মানিক শিকদার
ফরিদপুরের মধুখালী উপজেলার বামুন্দি বালিয়াকান্দি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের অভিভাবক সদস্য অত্র বিদ্যালয়ের নিয়োগ বাণিজ্য নিয়ে সংবাদ সম্মেলন করেন। অভিভাবক সদস্যের নাম মোঃ তারিকুল ইসলাম, তিনি বুধবার মধুখালী রিপোর্টাস ইউনিটির সভাপতির কার্যালয়ে এই সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য দেন বিগত ২৮/০৭/২০২২ ইং০তারিখ গণতান্ত্রিক বাংলাদেশ সরকারের শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা সমন্বয় শাখা সূত্র মন্ত্রী পরিষদ বিভাগের পত্র নং ০৪.০০.০০০০.৫১৪.০৩.০০১.২২ .২২১ তারিখ ১৮ই মে ২০২২ ইং মোতাবেক জেলা প্রশাসক ও মহোদয় প্রতিষ্ঠান সমূহের তদারকি পরিদর্শক কার্যক্রম এর দায়িত্ব দেয়া হয়েছে সে মোতাবেক আমরা মধুখালী উপজেলার বামুন্দী বালিয়াকান্দি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ছাত্রছাত্রীদের অভিভাবক সাবেক কমিটি শিক্ষা অনুরাগী জমিদাতা গ্রুপের সদস্য ও এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ আপনারা সদই অবগতির জন্য জানাচ্ছি যে বর্তমান ম্যানেজিং কমিটির সম্মানিত ছাত্রছাত্রী অভিভাবক সদস্য জনাব তরিকুল ইসলাম এর মাধ্যমে জানতে পেরেছি বিগত ০৬০ ২০২২ ইংরেজি ও ১৪০৭ ২০২২ ইংরেজি তারিখে ম্যানেজিং কমিটি কোন মিটিং না করেই রেজুলেশন খাতায় স্বাক্ষর নেয় স্বাক্ষর নেয়ার সম্পর্কে অভিভাবক সদস্য নজরুল শরীফ ও তরিকুল ইসলাম সভাপতি মেহেদী হাসান প্রধান শিক্ষক ও কো অপারেটর সদস্য শাহিন মিয়ার নিকট জিজ্ঞাসা করলে তারা সঠিক উত্তর না দিয়ে আমাদের সাথে বাগ বিতোন্ডা করে এক পর্যায়ে আমাদেরকে বলে যে নিয়োগ রয়েছে বলে বিষয়টি সকলের জানার প্রয়োজন নেই আমি মোহাম্মদ তরিকুল ইসলাম নিয়োগ সম্পর্কে জানতে পারব না তাহলে আমি কিসের ম্যানেজিং কমিটি সদস্য হলাম সভাপতি প্রধান শিক্ষক কর্পোরেটর সদস্য শাহিন মিয়া আমাকে বলে যে ম্যানেজিং কমিটির নির্বাচন চলাকালীন অবস্থা আমাদের ভোট করে লক্ষ লক্ষ টাকা খরচ হয়েছে বিধায় টাকা ছাড়া চাকরি দিতে পারিব না এবং নির্বাচন চলাকালীন অবস্থা আমার একটি পদের বিনিময়ে ৮ লক্ষ্য করে টাকা নিয়েছি তোমরা যদি কোনো প্রার্থী থাকে তাহলে ৮ লক্ষ টাকা দিবা তোমার প্রার্থী চাকরি দিব এই ঘুষ বাণিজ্যের কথা এলাকায় জানাজানি হলে সকল মানুষের মধ্যে দারুন খোপের সৃষ্টি হচ্ছে। অত্র বিদ্যালয় সভাপতি প্রধান শিক্ষক ও শিক্ষক প্রতিনিধি মোঃ লোকমান শেখ এর আপন আত্মীয়দের কে চাকরি দেবেন মর্মে দরখাস্ত করানো হয়েছে সভাপতি প্রধান শিক্ষকের নিকট নিয়োগ সম্পর্কে প্রশ্ন করলে প্রধান শিক্ষক বলেন যে নিয়োগ কমিটি আমার হাতে আমার যাকে নিয়োগ দিবো তার প্রশ্ন তিন থেকে চার দিন আগে দিয়ে দিব ও এবং ভাইবা বোর্ডে আমাদের মননীয় প্রার্থীকে পুন্ন নাম্বার দিয়ে দিব আমি প্রধান শিক্ষককে প্রশ্ন করলাম নিয়োগ যদি জেলা প্রশাসক মহোদয় দেয় সে ক্ষেত্রে আপনারা কি ভূমিকা প্রধান শিক্ষক তিরস্কার করে এ কথা উত্তর দেন যে জেলা প্রশাসককে উনি কি নিয়োগ দেওয়ার মালিক নিয়োগ দেবে কমিটি এবং উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার উল্লেখ থাকে যে অত্র বিদ্যালয় কোন ইংরেজি শিক্ষক নেই কোনমতে দায়সারা ক্লাস নেয়া হয় একজন ইংরেজি শিক্ষক নিয়োগ দিলে আমাদের প্রতিষ্ঠানের শিক্ষা মান উন্নয়ন হবে আমরা এলাকার সর্ব শ্রেণীর মানুষ মিটিং করে সিদ্ধান্তে উপনীত হয়েছে যে এই কমিটির মাধ্যমে মধুখালী উপজেলায় কোন স্থানে নিয়োগ পরীক্ষা হাতে দিব দিবোনা। অতএব জনাবের নিকট প্রার্থনা যোগ্যতা নিরপেক্ষতা পক্ষপাতহীন এবং নিয়োগ বাণিজ্য এ রাতে আপনারা বিশেষ নিয়োগ কমিটি গঠনের মাধ্যমে জেলা কেন্দ্রে প্রশ্নপত্র তৈরি হচ্ছে পরীক্ষার মাধ্যমে খাতা মূল্যায়ন সহস্তে ভাইভা পরীক্ষার মূল্যায়ন করে সই সব্ যোগ্যতার ভিত্তিতে গরীব মেধাবী প্রার্থীরা যাহাতে বঞ্চিত না হয় সে দিক বিবেচনা করে উক্ত পথগুলির নিয়োগ দেওয়ার সুব্যবস্থা করতে জনাবের সদয় মূর্জি হয়। পরবর্তীতে স্কুলের সভাপতি মেহেদী হাসান, প্রধান শিক্ষক বিশ্বজিৎ বিশ্বাস ও কো-অফট সদস্য মোঃ শাহিন মিয়ার কাছে তাদের বিরুদ্ধে যে অভিযোগ সেই বিষয়ে জানতে চাইলে তারা বলেন যে তাদের বিরুদ্ধে যে অভিযোগ করেছেন তা ভিত্তিহীন, এ বিষয়ে কোনো সত্যতা নেই। অভিভাবক সদস্য মোঃ তারিকুল ইসলাম উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে এই অভিযোগটি করেছেন। এক প্রশ্নের জবাবে তারা বলেন যে যদি কোন নিয়মে থাকে জেলা প্রশাসকের আন্ডারে নিয়োগ হবে তাহলে তাদের কোন আপত্তি নেই। তারা চান স্বচ্ছ ভাবে নিয়োগ হক।