ঢাকা ০৩:৩৬ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৪ জুন ২০২৪, ১০ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম :
আদমদীঘিতে শিশু ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগ: গ্রেফতার-১ মহম্মদপুরে হত্যার মামলার আসামি জামিনে এসে বাদিকে মামলা তুলে নেয়ার হুমকি, পরে মারধর আ.লীগ নেতার হুমকিতে নিরাপত্তাহীনতায় আইসক্রিম ফাক্টরি মালিক কালিহাতীতে লিঙ্গ কাটার অভিযোগ স্ত্রী’র বিরুদ্ধে ফিটনেস বিহীন নৌযানে সয়লাব সদরঘাট,নেই পর্যাপ্ত দক্ষ নাবিক! ৫০ কোটি টাকার মামলা থেকে বাঁচতে প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তার পাল্টা মামলা! ফরিদপুরে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের ঘটনায় তোলপাড় রশুনিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের পরিচালনা পর্ষদের নব সভাপতি হলেন আবু সাঈদ মির্জাগঞ্জে আমর্ড পুলিশ ব্যাটালিয়ন (এপিবিএন) উদ্যোগে ত্রাণসামগ্রী বিতরণ মাগুরার হৃদয়পুরে ফসলি জমির টপসয়েল মাটিকাটার অভিযোগ, ইউএনওর হস্তক্ষেপে কাজ বন্ধ

কুষ্টিয়ার স্কুল শিক্ষকের বিরুদ্ধে ছাত্রী যৌন হয়রানি থানায় অভিযোগ!

এস কে সুমন
কুষ্টিয়া জেলার অন্তর্গত খোকসা জানিপুর সরকারী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষকের বিরুদ্ধে ১০ম শ্রেণীর ছাত্রীর যৌন হয়রানির অভিযোগ পাওয়া গেছে। গত ১৭ ই সেপ্টেম্বর সকালে প্রাইভেট পড়ানোর সময় অভিযুক্ত শিক্ষক রেজাউল করিম তাকে যৌন হয়রানি করেন বলে অভিযোগ সূত্রে জানা যায়। যৌন হয়রানির শিকার ছাত্রীর লিখিত অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, খোকসা জানিপুর সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক রেজাউল করিমের কাছে বিকেল এর ব্যাচে সে প্রাইভেট পড়ত। এসএসসি পরীক্ষার কারনে ছাত্রীকে সকালের ব্যাচে আসতে বলেন শিক্ষক রেজাউল করিম। গত ১৭ সেপ্টেম্বর ঐ ছাত্রী সকালে পড়তে আসে, এবং তার প্রাইভেট পড়তে আসতে দেরি হওয়ার পরেও দ্রুত ছুটি না দিয়ে অতিরিক্ত পড়া দিয়ে ছাত্রীটিকে দেরি করান রেজাউল। এক পর্যায়ের সব শিক্ষার্থীরা চলে গেলে শিক্ষক ঐ ছাত্রীর শরীরে হাত দেওয়া সহ নানা ভাবে যৌন হয়রানি করেন। বাড়ি ফিরে ছাত্রী তার পরিবারকে বিষয়টি জানায়। এবং পরে তারা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সহ বিভিন্ন দপ্তরে লিখিত অভিযোগ করেন। এদিকে উপজেলা ও পুলিশ প্রশাসনের কাছে লিখিত অভিযোগ দেওয়ার পর থেকে ওই ছাত্রীর বাবা মা আত্নগোপন করে আছেন। একাধিক বার মোবাইলে কল দিলেও তারা ফোন রিসিভ করছে না। বাড়ি গিয়ে ডাকাডাকি করেও সারা মেলেনি। ছাত্রীর বাবা ও মা’র মুঠোফোন সব সময় চালু আছে। ছাত্রীর পরিবারের সাথে সম্পৃক্ত একটি সূত্র বলছে, যেকোন অদৃশ্য কারণে তারা আত্মগোপনে রয়েছেন। এটি সামাজিক ভীতিও হতে পারে। বিষয়টি জানতে অভিযুক্ত শিক্ষক রেজাউল করিমের মোবাইলে একাধিক বার কল করলেও তিনি রিসিভ করেননি। এ বিষয়ে খোকসা থানার ওসি সৈয়দ আশিকুর রহমান জানান, তিনি মৌখিক অভিযোগ পেয়েছেন। তদন্ত করে ব্যবস্থা নেবেন। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও বিদ্যালয়ের পরিচালনা পরিষদের সভাপতি রিপন বিশ্বাস জানান, দশম শ্রেণীর ছাত্রীর যৌন হয়রানির অভিযোগ পেয়েছি। অভিযুক্ত শিক্ষক রেজাউল করিমকে সোমবার সশরীরে হাজির হয়ে জবাব দিতে বলা হয়েছে। দোষী সাবস্ত হলে তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

ট্যাগস
জনপ্রিয় সংবাদ

আদমদীঘিতে শিশু ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগ: গ্রেফতার-১

কুষ্টিয়ার স্কুল শিক্ষকের বিরুদ্ধে ছাত্রী যৌন হয়রানি থানায় অভিযোগ!

আপডেট টাইম : ০৫:০৯:৫৪ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২

এস কে সুমন
কুষ্টিয়া জেলার অন্তর্গত খোকসা জানিপুর সরকারী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষকের বিরুদ্ধে ১০ম শ্রেণীর ছাত্রীর যৌন হয়রানির অভিযোগ পাওয়া গেছে। গত ১৭ ই সেপ্টেম্বর সকালে প্রাইভেট পড়ানোর সময় অভিযুক্ত শিক্ষক রেজাউল করিম তাকে যৌন হয়রানি করেন বলে অভিযোগ সূত্রে জানা যায়। যৌন হয়রানির শিকার ছাত্রীর লিখিত অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, খোকসা জানিপুর সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক রেজাউল করিমের কাছে বিকেল এর ব্যাচে সে প্রাইভেট পড়ত। এসএসসি পরীক্ষার কারনে ছাত্রীকে সকালের ব্যাচে আসতে বলেন শিক্ষক রেজাউল করিম। গত ১৭ সেপ্টেম্বর ঐ ছাত্রী সকালে পড়তে আসে, এবং তার প্রাইভেট পড়তে আসতে দেরি হওয়ার পরেও দ্রুত ছুটি না দিয়ে অতিরিক্ত পড়া দিয়ে ছাত্রীটিকে দেরি করান রেজাউল। এক পর্যায়ের সব শিক্ষার্থীরা চলে গেলে শিক্ষক ঐ ছাত্রীর শরীরে হাত দেওয়া সহ নানা ভাবে যৌন হয়রানি করেন। বাড়ি ফিরে ছাত্রী তার পরিবারকে বিষয়টি জানায়। এবং পরে তারা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সহ বিভিন্ন দপ্তরে লিখিত অভিযোগ করেন। এদিকে উপজেলা ও পুলিশ প্রশাসনের কাছে লিখিত অভিযোগ দেওয়ার পর থেকে ওই ছাত্রীর বাবা মা আত্নগোপন করে আছেন। একাধিক বার মোবাইলে কল দিলেও তারা ফোন রিসিভ করছে না। বাড়ি গিয়ে ডাকাডাকি করেও সারা মেলেনি। ছাত্রীর বাবা ও মা’র মুঠোফোন সব সময় চালু আছে। ছাত্রীর পরিবারের সাথে সম্পৃক্ত একটি সূত্র বলছে, যেকোন অদৃশ্য কারণে তারা আত্মগোপনে রয়েছেন। এটি সামাজিক ভীতিও হতে পারে। বিষয়টি জানতে অভিযুক্ত শিক্ষক রেজাউল করিমের মোবাইলে একাধিক বার কল করলেও তিনি রিসিভ করেননি। এ বিষয়ে খোকসা থানার ওসি সৈয়দ আশিকুর রহমান জানান, তিনি মৌখিক অভিযোগ পেয়েছেন। তদন্ত করে ব্যবস্থা নেবেন। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও বিদ্যালয়ের পরিচালনা পরিষদের সভাপতি রিপন বিশ্বাস জানান, দশম শ্রেণীর ছাত্রীর যৌন হয়রানির অভিযোগ পেয়েছি। অভিযুক্ত শিক্ষক রেজাউল করিমকে সোমবার সশরীরে হাজির হয়ে জবাব দিতে বলা হয়েছে। দোষী সাবস্ত হলে তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।