ঢাকা ০৬:০১ অপরাহ্ন, সোমবার, ০৪ মার্চ ২০২৪, ২১ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম :
ফসলি জমির মাটি কেটে বিক্রির অভিযোগ স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতির বিরুদ্ধে বাড্ডা থানার অপরাধীদের আতঙ্কের নাম ওসি ইয়াসীন গাজী কুমিল্লা সাংবাদিক ফোরাম, ঢাকা’র নেতৃত্বে সাজ্জাদ-মোশাররফ স্বামীকে বটি দিয়ে কুপিয়ে খুন করে থানায় স্ত্রীর আত্মসমর্পণ কোটালীপাড়ায় তিন দিনব্যাপী কবি সুকান্ত মেলার উদ্বোধন বেইলি রোডে আগুনে নিহত ৪৬ জয়পুরহাটে ৭ মামলার কুখ্যাত সন্ত্রাসী অস্ত্র ও মাদকসহ র‍্যাবের জালে আটক উপজেলা নির্বাহী অফিসার আজিম উদ্দিনের কোলে শিশু মো. লাকিত হোসেন ধর্ষণ মামলার প্রধান একমাত্র পলাতক আসামি অবশেষে আটক মির্জাগঞ্জে দরিদ্র এক নিঃসন্তান বৃদ্ধের খড়ের গাদায় অগ্নিকাণ্ড

মহম্মদপুরে পরীক্ষার প্রক্সি দিতে এসে কলেজ ছাত্রের জেল

মাহামুদুন নবী (স্টাফ রিপোর্টার) :–
মাগুরার মহম্মদপুরে অন্যের হয়ে এসএসসি পরীক্ষা দিতে আসায় মো. পিকুল শেখ (১৮) নামের একজনকে আটক করে  একবছরের কারাদণ্ড দিয়েছে ভ্রাম্যমান আদালত।

আটক পিকুল  মহম্মদপুর উপজেলা সদরের বাঔজানি গ্রামের মৃত : লুৎফর শেখের ছেলে। সে প্রতিবেশি মো: আবু ওবাইদার হয়ে এসএসসি পরীক্ষা দিচ্ছিলেন।

শুক্রবার বেলা ১১ টার দিকে  মহম্মদপুর সদরের সরকারি আর.এস.কে.এইচ ইনস্টিটিউশন মডেল মাধ্যমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে এসএসসি পরীক্ষায় এ ঘটনা ঘটে। এদিন সকাল ১১ টা থেকে যশোর শিক্ষা বোর্ডের অধীনে স্থগিত হওয়া বাংলা দ্বিতীয় পত্রের বহুনির্বাচনি ( এমসিকিউ) অংশের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়।

পরীক্ষা কেন্দ্রে ওই যুবককে সন্দেহ হলে কক্ষ পরিদর্শক শামীম আহমেদ পিকুলকে কেন্দ্র  সচিবের কক্ষে আনেন। পরে তাঁর বিরুদ্ধে অভিযোগের প্রমাণ পাওয়ায় পুলিশে সোপর্দ করা হয়।

পরে মহম্মদপুর উপজেলার সহকারি কমিশনার (ভূমি) নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট বাসুদেব কুমার মালো ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে পাবলিক পরীক্ষা আইন ১৯৮০ সালের ৩ এর খ ধারায় পিকুলকে এক বছরের বিনাশ্রম কারাদন্ড দেন।

দন্ডিত  যুবক পিকুল মহম্মদপুর উপজেলা  সদরের বিজনেস ম্যানেজমেন্ট অ্যান্ড টেকনিক্যাল কলেজের উচ্চ মাধ্যমিক প্রথম বর্ষের ছাত্র। সে সদরের  বীরেন শিকদার স্কুল অ্যান্ড কলেজের ছাত্র মো: আবু ওবাইদার হয়ে এসএসসি পরীক্ষা দিচ্ছিলেন। আবু ওবাইদা  সদরের তেলিপুকুর গ্রামের মনিরুজ্জামানের ছেলে। ঘটনার পর থেকে সে পলাতক।

এসএসসি পরীক্ষার কেন্দ্র সচিব ও সরকারি আর.এস.কে.এইচ ইনস্টিটিউশন মডেল মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক এ.কে.এম নাসিরুল ইসলাম বলেন, পরীক্ষায় জালিয়াতির অভিযোগে আটক ব্যক্তির উত্তরপত্র বাতিল করা হয়েছে। ওই ব্যক্তিকে পুলিশ  আটক করে ভ্রাম্যমান আদালতের কাছে হস্তান্তর করেছে।

মহম্মদপৃর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) অসিত কুমার রায় বলেন, ভ্রাম্যমান আদালতে ১ বছরের জেল হওয়া যুবক পিকুলকে মাগুরার জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে।

মহম্মদপুর উপজেলার সহকারি কমিশনার (ভূমি) বাসুদেব কুমার মালো  বলেন,  এসএসসি পরীক্ষায় অন্যের হয়ে প্রক্সি দেওয়ার অপরাধ প্রমাণিত হওয়ায় আটক যুবকে ১ বছরের বিনাশ্রম কারাদন্ড দেওয়া হয়েছে।

ট্যাগস

ফসলি জমির মাটি কেটে বিক্রির অভিযোগ স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতির বিরুদ্ধে

মহম্মদপুরে পরীক্ষার প্রক্সি দিতে এসে কলেজ ছাত্রের জেল

আপডেট টাইম : ১১:৪০:৪০ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২

মাহামুদুন নবী (স্টাফ রিপোর্টার) :–
মাগুরার মহম্মদপুরে অন্যের হয়ে এসএসসি পরীক্ষা দিতে আসায় মো. পিকুল শেখ (১৮) নামের একজনকে আটক করে  একবছরের কারাদণ্ড দিয়েছে ভ্রাম্যমান আদালত।

আটক পিকুল  মহম্মদপুর উপজেলা সদরের বাঔজানি গ্রামের মৃত : লুৎফর শেখের ছেলে। সে প্রতিবেশি মো: আবু ওবাইদার হয়ে এসএসসি পরীক্ষা দিচ্ছিলেন।

শুক্রবার বেলা ১১ টার দিকে  মহম্মদপুর সদরের সরকারি আর.এস.কে.এইচ ইনস্টিটিউশন মডেল মাধ্যমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে এসএসসি পরীক্ষায় এ ঘটনা ঘটে। এদিন সকাল ১১ টা থেকে যশোর শিক্ষা বোর্ডের অধীনে স্থগিত হওয়া বাংলা দ্বিতীয় পত্রের বহুনির্বাচনি ( এমসিকিউ) অংশের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়।

পরীক্ষা কেন্দ্রে ওই যুবককে সন্দেহ হলে কক্ষ পরিদর্শক শামীম আহমেদ পিকুলকে কেন্দ্র  সচিবের কক্ষে আনেন। পরে তাঁর বিরুদ্ধে অভিযোগের প্রমাণ পাওয়ায় পুলিশে সোপর্দ করা হয়।

পরে মহম্মদপুর উপজেলার সহকারি কমিশনার (ভূমি) নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট বাসুদেব কুমার মালো ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে পাবলিক পরীক্ষা আইন ১৯৮০ সালের ৩ এর খ ধারায় পিকুলকে এক বছরের বিনাশ্রম কারাদন্ড দেন।

দন্ডিত  যুবক পিকুল মহম্মদপুর উপজেলা  সদরের বিজনেস ম্যানেজমেন্ট অ্যান্ড টেকনিক্যাল কলেজের উচ্চ মাধ্যমিক প্রথম বর্ষের ছাত্র। সে সদরের  বীরেন শিকদার স্কুল অ্যান্ড কলেজের ছাত্র মো: আবু ওবাইদার হয়ে এসএসসি পরীক্ষা দিচ্ছিলেন। আবু ওবাইদা  সদরের তেলিপুকুর গ্রামের মনিরুজ্জামানের ছেলে। ঘটনার পর থেকে সে পলাতক।

এসএসসি পরীক্ষার কেন্দ্র সচিব ও সরকারি আর.এস.কে.এইচ ইনস্টিটিউশন মডেল মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক এ.কে.এম নাসিরুল ইসলাম বলেন, পরীক্ষায় জালিয়াতির অভিযোগে আটক ব্যক্তির উত্তরপত্র বাতিল করা হয়েছে। ওই ব্যক্তিকে পুলিশ  আটক করে ভ্রাম্যমান আদালতের কাছে হস্তান্তর করেছে।

মহম্মদপৃর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) অসিত কুমার রায় বলেন, ভ্রাম্যমান আদালতে ১ বছরের জেল হওয়া যুবক পিকুলকে মাগুরার জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে।

মহম্মদপুর উপজেলার সহকারি কমিশনার (ভূমি) বাসুদেব কুমার মালো  বলেন,  এসএসসি পরীক্ষায় অন্যের হয়ে প্রক্সি দেওয়ার অপরাধ প্রমাণিত হওয়ায় আটক যুবকে ১ বছরের বিনাশ্রম কারাদন্ড দেওয়া হয়েছে।