ঢাকা ০৩:১০ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২৯ মে ২০২৪, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম :
দ্বাদশ জাতীয় সংসদের পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির তৃতীয় বৈঠক অনুষ্ঠিত ৫ বছরের অধিক প্রেষনে দায়িত্ব পালন করছেন চীফ ইঞ্জিনিয়ার মঞ্জুরুল কবীর! বিআইডব্লিউটিএর অতি: পরিচালক আরিফ উদ্দিনের সম্পদের পাহাড়! শাহআলীতে গৃহবধূকে গলা কেটে হত্যাকারি পলাতক স্বামী গ্রেফতার  অতি:পরিচালক আরিফ উদ্দিন এখন বিআইডব্লিউটিএ‘র অঘোষিত “রাজা”! সাভারে এক ইউপি চেয়ারম্যানের সম্পদের পাহাড়! সিরাজদিখানে মঈনুল হাসান নাহিদকে বিকল্প ধরার সমর্থন মির্জাগঞ্জের ইউ,পি সচিব পরকীয়া প্রেমিকার হত্যাকাণ্ডে পুলিশ হেফাজতে শেষ মুহূর্তের প্রচারণায় মানুষের ভালবাসায় আমি মুগ্ধ: চেয়ারম্যান প্রার্থী পলাশ মানবতার আড়ালে ভয়ংকর ফয়সাল বাহিনী, পিস্তল ঠেকিয়ে টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগ

মহম্মদপুর মধুমতি নদীতে ঐতিহ্য বাহী  নৌকাবাইচ

মাহামুদুন নবী
লাখো দর্শকের আনন্দ উল্লাাসের মধ্যদিয়ে মাগুরার মহম্মদপুরের মধুমতি নদীতে অনুষ্টিত হয়েছে গ্রামবাংলার ঐতিহ্য বাহী নৌকাবাইচ প্রতিযোগিতা। নৌকাবাইচ উপলক্ষে নদীর দুইপাড়ে নিত্যপন্যসহ নানা পসরা নিয়ে বসেছে গ্রামীন মেলা। মাগুরা, ফরিদপুর, নড়াইল, খুলনাসহ বিভিন্ন জেলার ২৫টি বাাইচের নৌকা  অংশ নেয় এ প্রতিযোগীতায় । মাগুরার মহম্মদপুর ও ফরিদপুরের বোয়ালমারী উপজেলার মাঝে মধুমতি নদীর উপর শেখ হাসিনা সেতুকে কেন্দ্র করে শুক্রবার বিকেলে মহম্মদপুর উপজেলা ক্রীড়া সংস্থার আয়োজনে ৯ম  এ বার্ষিক বিহারী লাল নৌকাবাইচ প্রতিযোগিতা অনুষ্টিত হয়েছে।
গ্রামবাংলার ঐতিহ্য বাৎসরিক এ নৌকা বাইচ উপভোগ করতে সকাল থেকেই শেখ হাসিনা সেতু সংলগ্ন মধুমতি নদীর দুই পাড়ে পার্শবর্তী যশোর, ঝিনাইদাহ, নড়াইল, ফরিদপুরসহ কয়েকটি জেলার বিভিন্ন শ্রেণীর মানুষ ও এলাকার শিশু, কিশোর-কিশোরীসহ সকল বয়সী নারী-পুরুষ উৎসবে মেতে ওঠেন। তাদের উপস্থিতিতে এলাকায় সৃষ্টি হয় এক আনন্দঘন ও উৎসবমূখর পরিবেশ।
বিকেলে নৌকা বাইচ শুরু হলে মধুমতি নদীর দুই পাড়ে নামে লাখো মানুষের ঢল। সংগীতের তাল-লয়ে দাঁড়িয়াদের ছন্দময় দাঁড় নিক্ষেপে নদীর জল ময়ূরপঙ্খির মতোই ঝিলমিল করছিলো তখন। উল্লাসে মেতে ওঠেন নদীর দু’পাড়ের মানুষ। মধুমতি নদীর দুই পাড়ে চলছে গ্রামীন মেলা, যা চলবে আরো তিনদিন।
এ প্রতিযোগীতায় ২৫ টি নৌকা অংশ গ্রহন করে এবং টালাই ও কালাই নামে দুটি গ্রæপে বিভক্ত হয়ে প্রতিযোগীতা অনুষ্ঠিত হয়।
কালাই গ্রæপে প্রথম স্থান অধিকার ফরিদপুরের কালু ফকিরের নৌকা , ২য় স্থান অধিকার করে মহম্মদপুরের আতর আলীর নৌকা ও ৩য় স্থান অধিকার করেন ফরিদপুরের আমজাদ মোল্যার নৌকা । এছাড়া টালাই গ্রæপে প্রথম স্থান অধিকার করে মাদারিপুরের বাসুদেব বৈরাগীর নৌকা, ২য় স্থান অধিকার করে মাদারিপুরের সুখেন ব্যাপারীর নৌকা এবং ৩য় স্থান অধিকার করেন কুষ্টিয়ার আছাদ ব্যাপারীর নৌকা।
নৌকা বাইচ প্রতিযোগীতায় বিজয়ীদের মধ্যে প্রধান অতিথি হিসাবে পুরস্কার তুলেদেন স্থানীয় সংসদ সদস্য ড. শ্রী বীরেন শিকদার-এমপি।
শুক্রবার দুপুরে  মধুমতি নদীতে শান্তির  প্রতীক  কবুতর ও বেলুন উড়িয়ে বিহারী লাল শিকদার  নৌকা বাইচ  প্রতিযোগীতা শুভ উদ্বোধন করেন মাগুরার জেলা প্রশাসক ড, আশরাফুল আলম।  অনুষ্ঠানে  সভাপতিত্ব, করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার রামানন্দ পাল।  বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন  মাগুরা জেলার  অতিরিক্ত  পুলিশ সুপার  ক্রাইম এন্ড অপস  মোঃ  কলিমউল্লাহ,  সৈয়দ শরিফুল ইসলাম  জেলা আঃলীগের  সহ সভাপতি, বাসুদেব কুমার কুন্ডু, প্রেসক্লাব মহম্মদপুরের সভাপতি অধ্যক্ষ জি এম শওকত বিপ্লব রেজা বিকো, জেলা পরিষদের সদস্য শেখ আব্দুল মান্নান,  উপজেলা  আওয়ামীলীগের  সভাপতি এ্যাডঃ আব্দুল মন্নান, সাধারণ সম্পাদক  মোস্তফা কামাল সিদ্দিকী লিটন, মহম্মদপুর থানার অফিসার ইনচার্জ ( ওসি)  অসিত কুমার রায়, মেলা কমিটির সদস্য সচিব  অধ্যক্ষ মিজানুর রহমান মিলন,  উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান  মোছাঃ বেবী নাজনীন, সহ বিভিন্ন  শ্রেণী পেশার গন্যমান্য ব্যক্তি বর্গ প্রমুখ।
ট্যাগস
জনপ্রিয় সংবাদ

দ্বাদশ জাতীয় সংসদের পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির তৃতীয় বৈঠক অনুষ্ঠিত

মহম্মদপুর মধুমতি নদীতে ঐতিহ্য বাহী  নৌকাবাইচ

আপডেট টাইম : ০৫:১১:০৮ অপরাহ্ন, শনিবার, ৫ নভেম্বর ২০২২
মাহামুদুন নবী
লাখো দর্শকের আনন্দ উল্লাাসের মধ্যদিয়ে মাগুরার মহম্মদপুরের মধুমতি নদীতে অনুষ্টিত হয়েছে গ্রামবাংলার ঐতিহ্য বাহী নৌকাবাইচ প্রতিযোগিতা। নৌকাবাইচ উপলক্ষে নদীর দুইপাড়ে নিত্যপন্যসহ নানা পসরা নিয়ে বসেছে গ্রামীন মেলা। মাগুরা, ফরিদপুর, নড়াইল, খুলনাসহ বিভিন্ন জেলার ২৫টি বাাইচের নৌকা  অংশ নেয় এ প্রতিযোগীতায় । মাগুরার মহম্মদপুর ও ফরিদপুরের বোয়ালমারী উপজেলার মাঝে মধুমতি নদীর উপর শেখ হাসিনা সেতুকে কেন্দ্র করে শুক্রবার বিকেলে মহম্মদপুর উপজেলা ক্রীড়া সংস্থার আয়োজনে ৯ম  এ বার্ষিক বিহারী লাল নৌকাবাইচ প্রতিযোগিতা অনুষ্টিত হয়েছে।
গ্রামবাংলার ঐতিহ্য বাৎসরিক এ নৌকা বাইচ উপভোগ করতে সকাল থেকেই শেখ হাসিনা সেতু সংলগ্ন মধুমতি নদীর দুই পাড়ে পার্শবর্তী যশোর, ঝিনাইদাহ, নড়াইল, ফরিদপুরসহ কয়েকটি জেলার বিভিন্ন শ্রেণীর মানুষ ও এলাকার শিশু, কিশোর-কিশোরীসহ সকল বয়সী নারী-পুরুষ উৎসবে মেতে ওঠেন। তাদের উপস্থিতিতে এলাকায় সৃষ্টি হয় এক আনন্দঘন ও উৎসবমূখর পরিবেশ।
বিকেলে নৌকা বাইচ শুরু হলে মধুমতি নদীর দুই পাড়ে নামে লাখো মানুষের ঢল। সংগীতের তাল-লয়ে দাঁড়িয়াদের ছন্দময় দাঁড় নিক্ষেপে নদীর জল ময়ূরপঙ্খির মতোই ঝিলমিল করছিলো তখন। উল্লাসে মেতে ওঠেন নদীর দু’পাড়ের মানুষ। মধুমতি নদীর দুই পাড়ে চলছে গ্রামীন মেলা, যা চলবে আরো তিনদিন।
এ প্রতিযোগীতায় ২৫ টি নৌকা অংশ গ্রহন করে এবং টালাই ও কালাই নামে দুটি গ্রæপে বিভক্ত হয়ে প্রতিযোগীতা অনুষ্ঠিত হয়।
কালাই গ্রæপে প্রথম স্থান অধিকার ফরিদপুরের কালু ফকিরের নৌকা , ২য় স্থান অধিকার করে মহম্মদপুরের আতর আলীর নৌকা ও ৩য় স্থান অধিকার করেন ফরিদপুরের আমজাদ মোল্যার নৌকা । এছাড়া টালাই গ্রæপে প্রথম স্থান অধিকার করে মাদারিপুরের বাসুদেব বৈরাগীর নৌকা, ২য় স্থান অধিকার করে মাদারিপুরের সুখেন ব্যাপারীর নৌকা এবং ৩য় স্থান অধিকার করেন কুষ্টিয়ার আছাদ ব্যাপারীর নৌকা।
নৌকা বাইচ প্রতিযোগীতায় বিজয়ীদের মধ্যে প্রধান অতিথি হিসাবে পুরস্কার তুলেদেন স্থানীয় সংসদ সদস্য ড. শ্রী বীরেন শিকদার-এমপি।
শুক্রবার দুপুরে  মধুমতি নদীতে শান্তির  প্রতীক  কবুতর ও বেলুন উড়িয়ে বিহারী লাল শিকদার  নৌকা বাইচ  প্রতিযোগীতা শুভ উদ্বোধন করেন মাগুরার জেলা প্রশাসক ড, আশরাফুল আলম।  অনুষ্ঠানে  সভাপতিত্ব, করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার রামানন্দ পাল।  বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন  মাগুরা জেলার  অতিরিক্ত  পুলিশ সুপার  ক্রাইম এন্ড অপস  মোঃ  কলিমউল্লাহ,  সৈয়দ শরিফুল ইসলাম  জেলা আঃলীগের  সহ সভাপতি, বাসুদেব কুমার কুন্ডু, প্রেসক্লাব মহম্মদপুরের সভাপতি অধ্যক্ষ জি এম শওকত বিপ্লব রেজা বিকো, জেলা পরিষদের সদস্য শেখ আব্দুল মান্নান,  উপজেলা  আওয়ামীলীগের  সভাপতি এ্যাডঃ আব্দুল মন্নান, সাধারণ সম্পাদক  মোস্তফা কামাল সিদ্দিকী লিটন, মহম্মদপুর থানার অফিসার ইনচার্জ ( ওসি)  অসিত কুমার রায়, মেলা কমিটির সদস্য সচিব  অধ্যক্ষ মিজানুর রহমান মিলন,  উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান  মোছাঃ বেবী নাজনীন, সহ বিভিন্ন  শ্রেণী পেশার গন্যমান্য ব্যক্তি বর্গ প্রমুখ।