ঢাকা ০৫:২৬ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১০ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম :
মির্জাগঞ্জে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ও  শহীদ  দিবসে বাংলাদেশ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির শ্রদ্ধা নিবেদন  ৫২’র ভাষা শহীদদের প্রতি মিরপুর রিপোর্টার্স ক্লাবের শ্রদ্ধা নিবেদন প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তরকে দুর্নীতির স্বর্গরাজ্যে পরিণত করেছেন ডিজি ডা: মো: এমদাদুল হক তালুকদার! বাসাবো এলাকায় রাজউকের উচ্ছেদ অভিযান; ৪ লক্ষ টাকা জরিমানা দুই সাব-রেজিস্ট্রারের বদলী উপলক্ষে বিদায় সংবর্ধনা দুর্নীতির বিরুদ্ধে শূন্য সহনশীল হবেন দুদক কর্মকর্তারা বলিষ্ঠ নেতৃত্বের মাধ্যমে ভূমি অফিস পরিচালনা করুন: ভূমিমন্ত্রী বাসাবো এলাকায় রাজউকের উচ্ছেদ অভিযান; ৪ লক্ষ টাকা জরিমানা মাগুরায় মাদরাসার সভাপতির ধমকে সুপার অজ্ঞান  মাগুরায় সাকিবের পৃষ্ঠপোষকতায় মহান একুশ উপলক্ষে শহরে আলপনার উদ্যোগ 

মহম্মদপুরে ধনী বক্কাররে  মৃত্যুর ৩৯ দিন পর কবর থেকে লাশ উত্তোলন

মাহামুদুন নবী
মাগুরা মহম্মাদপুরে মৃত্যুর ৩৯ দিন পরে  ধনী বক্কার (৫৬)  নামের এক ব্যক্তির লাশ ময়নাতদন্তের জন্য আদালতের নির্দেশে কবর থেকে উত্তোলন করেছে পুলিশ। বুধবার সকালে এ লাশ উত্তোলন করে মর্গে পাঠানো হয়।
স্থানীয় সুত্রে জানায়.বড়রিয়া গ্রামের সৌদি প্রবাসী ধনী বক্কার ওরফে আবু বক্কার শেখ (৫৬) গত ইং ২রা অক্টোবর ভোর ৫টার দিকে স্ট্রোক জনিত কারনে মৃত্যুবরণ করেন। দীর্ঘ ৩০ বছর দেশের বাইরে  থাকার সুবাদে স্ত্রী পরকিয়া ও সন্তানরা নানা ধরনের অনৈতিক কাজে জড়িয়ে পড়েছে এমন ঘটনার কথা জানতে পেরে গত ৬মাস পূর্বে দেশে আসেন আবু বক্কার শেখ।
হঠাৎ করে ২ রা অক্টোবর ভোরে স্ট্রোকজনিত কারনে তার মৃত্যু হয়েছে বলে বড় ছেলে সাগরকে জানান তার মা সীমা পারভীন। মৃত্যুর ১০ দিন পরে  ১১ ই অক্টোবর পিতাকে হত্যা করা হয়েছে মর্মে ছেলে সিজান মাহমুদ সাগর বাদী হয়ে তার মা সীমা পারভীন সহ ৫ জনকে আসামী করে বিজ্ঞ আদালতে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। মামলায় উল্লেখ করে বলা হয় ধনী বক্কারকে চেতনানাশক খাইয়ে ও শ্বাসরোধ করে সু-পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে। মামলার বাদী সিজান মাহমুদ সাগর আদালতের নিকট  তার পিতার লাশ উত্তোলন করে ময়না তদন্তের জন্য আবেদন জানান। পরে আদালত লাশ উত্তোলন করে ময়না তদন্তের নির্দেশ দেন পুলিশ ও ম্যাজিস্ট্রেট কে।
হত্যা মামলার বাদী ধনী বক্কারের ছেলে সিজান মাহমুদ সাগর বলেন, আমার বাবার মৃত্যুর সময় আমি একই বাড়িতে ছিলাম অন্য রুমে কিন্তু মা আমাকে ভোরের আজানের কিছুক্ষন আগে মৃত্যুর সংবাদ জানিয়েছেন। আমার মা কয়েকজনকে সাথে নিয়ে চেতনানাশক খাইয়ে ও শ্বাসরোধ করে  আমার পিতাকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করেছে । আমি লাশ ময়নাতদন্তের মাধ্যমে প্রকৃত ঘটনার রহস্য উন্মোচনপূর্বক হত্যাকারীদের দৃষ্টান্তমুলক শাস্তি দাবী করছি।
মহম্মদপুর থানার ওসি  অসিত কুমার রায়  বলেন, আদালতে মামলা হওয়ায় আদালতের নির্দেশেই ময়নাতদন্তের জন্য লাশ উত্তোলন করে মর্গে পাঠানো হয়েছে।

ট্যাগস

মির্জাগঞ্জে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ও  শহীদ  দিবসে বাংলাদেশ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির শ্রদ্ধা নিবেদন 

মহম্মদপুরে ধনী বক্কাররে  মৃত্যুর ৩৯ দিন পর কবর থেকে লাশ উত্তোলন

আপডেট টাইম : ০১:০৫:২০ অপরাহ্ন, বুধবার, ৯ নভেম্বর ২০২২

মাহামুদুন নবী
মাগুরা মহম্মাদপুরে মৃত্যুর ৩৯ দিন পরে  ধনী বক্কার (৫৬)  নামের এক ব্যক্তির লাশ ময়নাতদন্তের জন্য আদালতের নির্দেশে কবর থেকে উত্তোলন করেছে পুলিশ। বুধবার সকালে এ লাশ উত্তোলন করে মর্গে পাঠানো হয়।
স্থানীয় সুত্রে জানায়.বড়রিয়া গ্রামের সৌদি প্রবাসী ধনী বক্কার ওরফে আবু বক্কার শেখ (৫৬) গত ইং ২রা অক্টোবর ভোর ৫টার দিকে স্ট্রোক জনিত কারনে মৃত্যুবরণ করেন। দীর্ঘ ৩০ বছর দেশের বাইরে  থাকার সুবাদে স্ত্রী পরকিয়া ও সন্তানরা নানা ধরনের অনৈতিক কাজে জড়িয়ে পড়েছে এমন ঘটনার কথা জানতে পেরে গত ৬মাস পূর্বে দেশে আসেন আবু বক্কার শেখ।
হঠাৎ করে ২ রা অক্টোবর ভোরে স্ট্রোকজনিত কারনে তার মৃত্যু হয়েছে বলে বড় ছেলে সাগরকে জানান তার মা সীমা পারভীন। মৃত্যুর ১০ দিন পরে  ১১ ই অক্টোবর পিতাকে হত্যা করা হয়েছে মর্মে ছেলে সিজান মাহমুদ সাগর বাদী হয়ে তার মা সীমা পারভীন সহ ৫ জনকে আসামী করে বিজ্ঞ আদালতে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। মামলায় উল্লেখ করে বলা হয় ধনী বক্কারকে চেতনানাশক খাইয়ে ও শ্বাসরোধ করে সু-পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে। মামলার বাদী সিজান মাহমুদ সাগর আদালতের নিকট  তার পিতার লাশ উত্তোলন করে ময়না তদন্তের জন্য আবেদন জানান। পরে আদালত লাশ উত্তোলন করে ময়না তদন্তের নির্দেশ দেন পুলিশ ও ম্যাজিস্ট্রেট কে।
হত্যা মামলার বাদী ধনী বক্কারের ছেলে সিজান মাহমুদ সাগর বলেন, আমার বাবার মৃত্যুর সময় আমি একই বাড়িতে ছিলাম অন্য রুমে কিন্তু মা আমাকে ভোরের আজানের কিছুক্ষন আগে মৃত্যুর সংবাদ জানিয়েছেন। আমার মা কয়েকজনকে সাথে নিয়ে চেতনানাশক খাইয়ে ও শ্বাসরোধ করে  আমার পিতাকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করেছে । আমি লাশ ময়নাতদন্তের মাধ্যমে প্রকৃত ঘটনার রহস্য উন্মোচনপূর্বক হত্যাকারীদের দৃষ্টান্তমুলক শাস্তি দাবী করছি।
মহম্মদপুর থানার ওসি  অসিত কুমার রায়  বলেন, আদালতে মামলা হওয়ায় আদালতের নির্দেশেই ময়নাতদন্তের জন্য লাশ উত্তোলন করে মর্গে পাঠানো হয়েছে।