ঢাকা ০৩:২৭ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১৫ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম :
ভূল অসত্য সংবাদ পরিবেশন করায় ব্যবসায়ীর  সংবাদ সম্মেলন কেটালী পাড়ায় দিনে দুপুরে সরকারী কোয়াটারে চুরি জনবান্ধব ভূমি সংস্কারে অগ্রাধিকার দিচ্ছে সরকার: ভূমিমন্ত্রী ভূমি অফিসে যেন কোনো দালাল না থাকে: মন্ত্রী ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন অফিসার শাহীন আলম বিলাশবহুল ৮তলা বাড়ীর মালিক! মুক্তিযুদ্ধের চলচ্চিত্র ‘অপারেশন জ্যাকপট’ নিয়ে এতো অনাসৃষ্টি কেন? চকরিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য ও প:প: কর্মকর্তা ডা: শোভন দত্তের বিরুদ্ধে সরকারী টাকা আত্মসাত,বিদেশে টাকা পাচার,অবৈধ সম্পদ অর্জন ও নারী কেলেংকারীর অভিযোগ! দদুকের তদন্ত থাকা কর্মকর্তাকে চুক্তিভিত্তিক ডিজি নিয়োগের তোড়জোড়! গাজীপুর সিটি করপোরেশনের গাড়িচাপায় শ্রমিক নিহত, মহাসড়ক অবরোধ মির্জাগঞ্জে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ও  শহীদ  দিবসে বাংলাদেশ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির শ্রদ্ধা নিবেদন 

রিমান্ডে থাকা আসামির মৃত্যু, পুলিশের দাবি আত্মহত্যা

নরসিংদী প্রতিনিধি

নরসিংদীর রায়পুরা থানা পুলিশের হেফাজতে সুজন মিয়া (৩৫) নামে রিমান্ডে থাকা এক আসামির মৃত্যু হয়েছে।

মঙ্গলবার (৮ নভেম্বর) দিবাগত রাত থেকে বুধবার সকাল ১০টার মধ্যে কোনো এক সময়ে তার মৃত্যু হয়।

নিহত সুজন মিয়া রায়পুরা উপজেলার মাহমুদপুর এলাকার মুজিবর রহমানের ছেলে। তিনি নিজ স্ত্রী হত্যা মামলার আসামি।

পুলিশ এবং স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, শনিবার (৫ নভেম্বর) মধ্যরাতে স্ত্রী লাভলী বেগমের সঙ্গে ঝগড়ার একপর্যায়ে সুজন মিয়া ধারালো ছুরি দিয়ে স্ত্রী লাভলীকে পেটে আঘাত করে হত্যা করে পালিয়ে যায়। এঘটনায় নিহতের মা মালেকা বেগম নিজে বাদী হয়ে রায়পুরা থানায় মামলা করলে সোমবার (৭ নভেম্বর) বিকেলে তথ্য প্রযুক্তির সাহায্যে ফরিদপুর জেলার সদরপুর থানার আটরশি দরবার শরীফের পাশ থেকে সুজন মিয়াকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। পরে তাকে জিজ্ঞাসাবাদে প্রাথমিকভাবে অপরাধের বিষয়ে স্বীকার করে পুলিশের কাছে।

মঙ্গলবার (৮ নভেম্বর) বিকেলে তাকে আদালতে তুলে রিমান্ডের আবেদন করলে আদালত দুই দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করে। রাতে রিমান্ডের উদ্দেশ্যে রায়পুরা থানা হাজতে ঢুকানো হয় এবং সকালে থানা থেকে তার মরদেহ রায়পুরা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায় পুলিশ।

বিষয়টি আত্মহত্যা বলে দাবি পুলিশের। এ বিষয়ে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. আল আমিন জানান, সকাল পৌনে ১০টার দিকে রায়পুরা থানা হাজতের ওয়াশরুমে পরনের শার্ট খুলে আত্মহত্যা করে সুজন মিয়া। বিস্তারিত অনুসন্ধানে ৩ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি করা হয়েছে বলে জানান তিনি।

হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক বলছে, কিভাবে ঘটনা ঘটছে তা ময়নাতদন্তের পর জানা যাবে।

ট্যাগস
জনপ্রিয় সংবাদ

ভূল অসত্য সংবাদ পরিবেশন করায় ব্যবসায়ীর  সংবাদ সম্মেলন

রিমান্ডে থাকা আসামির মৃত্যু, পুলিশের দাবি আত্মহত্যা

আপডেট টাইম : ০১:৪২:৩৯ অপরাহ্ন, বুধবার, ৯ নভেম্বর ২০২২

নরসিংদী প্রতিনিধি

নরসিংদীর রায়পুরা থানা পুলিশের হেফাজতে সুজন মিয়া (৩৫) নামে রিমান্ডে থাকা এক আসামির মৃত্যু হয়েছে।

মঙ্গলবার (৮ নভেম্বর) দিবাগত রাত থেকে বুধবার সকাল ১০টার মধ্যে কোনো এক সময়ে তার মৃত্যু হয়।

নিহত সুজন মিয়া রায়পুরা উপজেলার মাহমুদপুর এলাকার মুজিবর রহমানের ছেলে। তিনি নিজ স্ত্রী হত্যা মামলার আসামি।

পুলিশ এবং স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, শনিবার (৫ নভেম্বর) মধ্যরাতে স্ত্রী লাভলী বেগমের সঙ্গে ঝগড়ার একপর্যায়ে সুজন মিয়া ধারালো ছুরি দিয়ে স্ত্রী লাভলীকে পেটে আঘাত করে হত্যা করে পালিয়ে যায়। এঘটনায় নিহতের মা মালেকা বেগম নিজে বাদী হয়ে রায়পুরা থানায় মামলা করলে সোমবার (৭ নভেম্বর) বিকেলে তথ্য প্রযুক্তির সাহায্যে ফরিদপুর জেলার সদরপুর থানার আটরশি দরবার শরীফের পাশ থেকে সুজন মিয়াকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। পরে তাকে জিজ্ঞাসাবাদে প্রাথমিকভাবে অপরাধের বিষয়ে স্বীকার করে পুলিশের কাছে।

মঙ্গলবার (৮ নভেম্বর) বিকেলে তাকে আদালতে তুলে রিমান্ডের আবেদন করলে আদালত দুই দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করে। রাতে রিমান্ডের উদ্দেশ্যে রায়পুরা থানা হাজতে ঢুকানো হয় এবং সকালে থানা থেকে তার মরদেহ রায়পুরা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায় পুলিশ।

বিষয়টি আত্মহত্যা বলে দাবি পুলিশের। এ বিষয়ে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. আল আমিন জানান, সকাল পৌনে ১০টার দিকে রায়পুরা থানা হাজতের ওয়াশরুমে পরনের শার্ট খুলে আত্মহত্যা করে সুজন মিয়া। বিস্তারিত অনুসন্ধানে ৩ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি করা হয়েছে বলে জানান তিনি।

হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক বলছে, কিভাবে ঘটনা ঘটছে তা ময়নাতদন্তের পর জানা যাবে।