ঢাকা ০৫:১৮ অপরাহ্ন, সোমবার, ০৪ মার্চ ২০২৪, ২১ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম :
ফসলি জমির মাটি কেটে বিক্রির অভিযোগ স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতির বিরুদ্ধে বাড্ডা থানার অপরাধীদের আতঙ্কের নাম ওসি ইয়াসীন গাজী কুমিল্লা সাংবাদিক ফোরাম, ঢাকা’র নেতৃত্বে সাজ্জাদ-মোশাররফ স্বামীকে বটি দিয়ে কুপিয়ে খুন করে থানায় স্ত্রীর আত্মসমর্পণ কোটালীপাড়ায় তিন দিনব্যাপী কবি সুকান্ত মেলার উদ্বোধন বেইলি রোডে আগুনে নিহত ৪৬ জয়পুরহাটে ৭ মামলার কুখ্যাত সন্ত্রাসী অস্ত্র ও মাদকসহ র‍্যাবের জালে আটক উপজেলা নির্বাহী অফিসার আজিম উদ্দিনের কোলে শিশু মো. লাকিত হোসেন ধর্ষণ মামলার প্রধান একমাত্র পলাতক আসামি অবশেষে আটক মির্জাগঞ্জে দরিদ্র এক নিঃসন্তান বৃদ্ধের খড়ের গাদায় অগ্নিকাণ্ড

বন্দরে শিক্ষার এতো উন্নয়ন অথচ ১২বছরে এই প্রতিষ্ঠানটি কারো নজরে এলোনা -পারভীন ওসমান

স্টাফ রিপোর্টার:
মুসাপুর ইউনিয়নের আল মানার ইসলামিক কিন্ডারগার্টেন এন্ড মাদ্রাসার ৫ম ও ৮ম শ্রেণীর শিক্ষার্থীদের বিদায় সংবর্ধনা ১২ নভেম্বর বিকেল ৪টায় মাদ্রাসা প্রাঙ্গনে অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান   অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য বেগম পারভীন ওসমান। দাসেরগাও পঞ্চায়েত কমিটির সভাপতি হাজী আব্দুল মোস্তফার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে ছিলেন জাতীয় যুব সংহতি নারায়ণগঞ্জ জেলা শাখার আহবায়ক রিপন ভাওয়াল ও যুগ্ম আহবায়ক মতিউর রহমান মুক্তি। সম্মানিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন
নারায়ণগঞ্জ জেলা জাতীয় ছাত্র সমাজের সভাপতি শাহাদাত হোসেন রূপু,মহানগর ছাত্র সমাজের সভাপতিশাহ আলম সবুজ,সাধারণ সম্পাদক রবিউল আলম,ফয়সাল উল্লাহ,সাবেক ইউপি সদস্য আব্দুল মান্নান,মাসুদ রানা,১ নং ওয়ার্ডের সদস্য আব্দুল মোতালেব,মহিলা সদস্য খোদেজা আক্তার,২৫ নং ওয়ার্ড জাতীয় পার্টির সভাপতি শরীফ শাহ,ম্যানেজিং কমিটির সদস্য ইভানা ইসলা ও বন্দর উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক পার্টির আহবায়ক বুলবুল আহমেদ। অনুষ্ঠানে সার্বিক
তত্তাবধানে ছিলেন বিশিষ্ট শিক্ষানুরাগী প্রতিষ্ঠানের প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক কাজী ইরন হোসেন। প্রধান অতিথির বক্তব্যে পারভীন ওসমান বলেন,বাবা-মা’কে বলবো আপনারা সন্তানদের প্রাইমারী থেকেই  লক্ষ্য রাখবেন।
তবেই বাকী ক্লাসগুলোতে ভাল রেজাল্ট করতে বেগ পেতে হবেনা। তিনি আরো বলেন,তোমাদেরকে মানুষের মতো মানুষ হতে দেশকে ভালবাসতে হবে। দেশপ্রেমে উদ্ধুদ্ধ হলে সত্যিকারের মানুষ হওয়া যাবে। আমি এই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে এসে একদিকে আনন্দ হচ্ছে আরেক দিকে দুঃখও হচ্ছে। আনন্দ হচ্ছে এ কারণে আজকে তোমাদের নতুন সিড়িতে ওঠার জন্য দোয়া করতে পারছি বলে। আর দুঃখ হচ্ছে এ
জন্য যে বন্দরে শিক্ষার এতো উন্নয়নের কথা শুনি অথচ ১২বছরে এই প্রতিষ্ঠানটি কারো নজরে এলোনা। আজকে উনি(নাসিম ওসমান)বেঁচে থাকলে হয়তো এমনটা হতোনা।

ট্যাগস

ফসলি জমির মাটি কেটে বিক্রির অভিযোগ স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতির বিরুদ্ধে

বন্দরে শিক্ষার এতো উন্নয়ন অথচ ১২বছরে এই প্রতিষ্ঠানটি কারো নজরে এলোনা -পারভীন ওসমান

আপডেট টাইম : ০৮:০৫:০৪ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ১৩ নভেম্বর ২০২২

স্টাফ রিপোর্টার:
মুসাপুর ইউনিয়নের আল মানার ইসলামিক কিন্ডারগার্টেন এন্ড মাদ্রাসার ৫ম ও ৮ম শ্রেণীর শিক্ষার্থীদের বিদায় সংবর্ধনা ১২ নভেম্বর বিকেল ৪টায় মাদ্রাসা প্রাঙ্গনে অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান   অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য বেগম পারভীন ওসমান। দাসেরগাও পঞ্চায়েত কমিটির সভাপতি হাজী আব্দুল মোস্তফার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে ছিলেন জাতীয় যুব সংহতি নারায়ণগঞ্জ জেলা শাখার আহবায়ক রিপন ভাওয়াল ও যুগ্ম আহবায়ক মতিউর রহমান মুক্তি। সম্মানিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন
নারায়ণগঞ্জ জেলা জাতীয় ছাত্র সমাজের সভাপতি শাহাদাত হোসেন রূপু,মহানগর ছাত্র সমাজের সভাপতিশাহ আলম সবুজ,সাধারণ সম্পাদক রবিউল আলম,ফয়সাল উল্লাহ,সাবেক ইউপি সদস্য আব্দুল মান্নান,মাসুদ রানা,১ নং ওয়ার্ডের সদস্য আব্দুল মোতালেব,মহিলা সদস্য খোদেজা আক্তার,২৫ নং ওয়ার্ড জাতীয় পার্টির সভাপতি শরীফ শাহ,ম্যানেজিং কমিটির সদস্য ইভানা ইসলা ও বন্দর উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক পার্টির আহবায়ক বুলবুল আহমেদ। অনুষ্ঠানে সার্বিক
তত্তাবধানে ছিলেন বিশিষ্ট শিক্ষানুরাগী প্রতিষ্ঠানের প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক কাজী ইরন হোসেন। প্রধান অতিথির বক্তব্যে পারভীন ওসমান বলেন,বাবা-মা’কে বলবো আপনারা সন্তানদের প্রাইমারী থেকেই  লক্ষ্য রাখবেন।
তবেই বাকী ক্লাসগুলোতে ভাল রেজাল্ট করতে বেগ পেতে হবেনা। তিনি আরো বলেন,তোমাদেরকে মানুষের মতো মানুষ হতে দেশকে ভালবাসতে হবে। দেশপ্রেমে উদ্ধুদ্ধ হলে সত্যিকারের মানুষ হওয়া যাবে। আমি এই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে এসে একদিকে আনন্দ হচ্ছে আরেক দিকে দুঃখও হচ্ছে। আনন্দ হচ্ছে এ কারণে আজকে তোমাদের নতুন সিড়িতে ওঠার জন্য দোয়া করতে পারছি বলে। আর দুঃখ হচ্ছে এ
জন্য যে বন্দরে শিক্ষার এতো উন্নয়নের কথা শুনি অথচ ১২বছরে এই প্রতিষ্ঠানটি কারো নজরে এলোনা। আজকে উনি(নাসিম ওসমান)বেঁচে থাকলে হয়তো এমনটা হতোনা।