ঢাকা ০১:৩৮ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২৯ মে ২০২৪, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম :
দ্বাদশ জাতীয় সংসদের পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির তৃতীয় বৈঠক অনুষ্ঠিত ৫ বছরের অধিক প্রেষনে দায়িত্ব পালন করছেন চীফ ইঞ্জিনিয়ার মঞ্জুরুল কবীর! বিআইডব্লিউটিএর অতি: পরিচালক আরিফ উদ্দিনের সম্পদের পাহাড়! শাহআলীতে গৃহবধূকে গলা কেটে হত্যাকারি পলাতক স্বামী গ্রেফতার  অতি:পরিচালক আরিফ উদ্দিন এখন বিআইডব্লিউটিএ‘র অঘোষিত “রাজা”! সাভারে এক ইউপি চেয়ারম্যানের সম্পদের পাহাড়! সিরাজদিখানে মঈনুল হাসান নাহিদকে বিকল্প ধরার সমর্থন মির্জাগঞ্জের ইউ,পি সচিব পরকীয়া প্রেমিকার হত্যাকাণ্ডে পুলিশ হেফাজতে শেষ মুহূর্তের প্রচারণায় মানুষের ভালবাসায় আমি মুগ্ধ: চেয়ারম্যান প্রার্থী পলাশ মানবতার আড়ালে ভয়ংকর ফয়সাল বাহিনী, পিস্তল ঠেকিয়ে টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগ

পাকিস্তান ও আফগানিস্তান সীমান্তে দুই বাহিনীর সংঘর্ষ, প্রধান ট্রানজিট বন্ধ

অনলাইন ডেস্ক:

পাকিস্তান ও আফগানিস্তান সীমান্তে দুই পক্ষের নিরাপত্তা বাহিনীর মধ্যে সংঘর্ষের পর বাণিজ্য ও ট্রানজিট হিসাবে ব্যবহারের প্রধান একটি ক্রসিং বন্ধ রাখা হয়েছে।

আফগানিস্তানের স্পিন বোলদাক জেলাসংলগ্ন চাহমান শহরের উপ-কমিশনার আব্দুল হামিদ জেহরি বলেছেন, একদিন আগে আফগানিস্তান ও পাকিস্তান উভয় পক্ষের নিরাপত্তা বাহিনীর মধ্যে দীর্ঘক্ষণ ধরে তুমুল গোলাগুলির পর সীমান্ত ক্রসিং বন্ধ করা হয়েছে।

তিনি বলেন, উভয় পক্ষেই অনেক রাত পর্যন্ত গোলাগুলি চলছে। এরপরই চাহমান শহরে পাক-আফগান ক্রসিং এবং বাণিজ্য বন্ধ হয়েছে।

পাকিস্তানি সেনাবাহিনীর গণমাধ্যম শাখার এক মুখপাত্র বলেছেন, কী ঘটেছে তা নির্ধারণ করতে তারা পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করছেন।

সীমান্ত ক্রসিং বন্ধ থাকায় দুই পাশে পণ্য নিয়ে শতশত ট্রাক দাঁড়িয়ে আছে বলে জানিয়েছে স্থানীয়রাসহ কর্মকর্তারা।

তালেবান প্রশাসনের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ের এক মুখপাত্র বলেছেন, দুই পক্ষের সীমান্ত বাহিনীর মধ্যে সংঘর্ষ হয়েছে। তিনি বলেন, এটি ভুল বোঝাবুঝির কারণে হয়েছে এবং ঘটনাটি খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

 

জনপ্রিয় সংবাদ

দ্বাদশ জাতীয় সংসদের পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির তৃতীয় বৈঠক অনুষ্ঠিত

পাকিস্তান ও আফগানিস্তান সীমান্তে দুই বাহিনীর সংঘর্ষ, প্রধান ট্রানজিট বন্ধ

আপডেট টাইম : ১২:০৮:১৫ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৫ নভেম্বর ২০২২

অনলাইন ডেস্ক:

পাকিস্তান ও আফগানিস্তান সীমান্তে দুই পক্ষের নিরাপত্তা বাহিনীর মধ্যে সংঘর্ষের পর বাণিজ্য ও ট্রানজিট হিসাবে ব্যবহারের প্রধান একটি ক্রসিং বন্ধ রাখা হয়েছে।

আফগানিস্তানের স্পিন বোলদাক জেলাসংলগ্ন চাহমান শহরের উপ-কমিশনার আব্দুল হামিদ জেহরি বলেছেন, একদিন আগে আফগানিস্তান ও পাকিস্তান উভয় পক্ষের নিরাপত্তা বাহিনীর মধ্যে দীর্ঘক্ষণ ধরে তুমুল গোলাগুলির পর সীমান্ত ক্রসিং বন্ধ করা হয়েছে।

তিনি বলেন, উভয় পক্ষেই অনেক রাত পর্যন্ত গোলাগুলি চলছে। এরপরই চাহমান শহরে পাক-আফগান ক্রসিং এবং বাণিজ্য বন্ধ হয়েছে।

পাকিস্তানি সেনাবাহিনীর গণমাধ্যম শাখার এক মুখপাত্র বলেছেন, কী ঘটেছে তা নির্ধারণ করতে তারা পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করছেন।

সীমান্ত ক্রসিং বন্ধ থাকায় দুই পাশে পণ্য নিয়ে শতশত ট্রাক দাঁড়িয়ে আছে বলে জানিয়েছে স্থানীয়রাসহ কর্মকর্তারা।

তালেবান প্রশাসনের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ের এক মুখপাত্র বলেছেন, দুই পক্ষের সীমান্ত বাহিনীর মধ্যে সংঘর্ষ হয়েছে। তিনি বলেন, এটি ভুল বোঝাবুঝির কারণে হয়েছে এবং ঘটনাটি খতিয়ে দেখা হচ্ছে।