ঢাকা ০৪:৪৩ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১৫ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম :
ভূল অসত্য সংবাদ পরিবেশন করায় ব্যবসায়ীর  সংবাদ সম্মেলন কেটালী পাড়ায় দিনে দুপুরে সরকারী কোয়াটারে চুরি জনবান্ধব ভূমি সংস্কারে অগ্রাধিকার দিচ্ছে সরকার: ভূমিমন্ত্রী ভূমি অফিসে যেন কোনো দালাল না থাকে: মন্ত্রী ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন অফিসার শাহীন আলম বিলাশবহুল ৮তলা বাড়ীর মালিক! মুক্তিযুদ্ধের চলচ্চিত্র ‘অপারেশন জ্যাকপট’ নিয়ে এতো অনাসৃষ্টি কেন? চকরিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য ও প:প: কর্মকর্তা ডা: শোভন দত্তের বিরুদ্ধে সরকারী টাকা আত্মসাত,বিদেশে টাকা পাচার,অবৈধ সম্পদ অর্জন ও নারী কেলেংকারীর অভিযোগ! দদুকের তদন্ত থাকা কর্মকর্তাকে চুক্তিভিত্তিক ডিজি নিয়োগের তোড়জোড়! গাজীপুর সিটি করপোরেশনের গাড়িচাপায় শ্রমিক নিহত, মহাসড়ক অবরোধ মির্জাগঞ্জে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ও  শহীদ  দিবসে বাংলাদেশ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির শ্রদ্ধা নিবেদন 

বিরাট অঙ্কের জরিমানার মুখে এয়ার ইন্ডিয়া

অনলাইন ডেস্ক:

বড়সড় অস্বস্তিতে এয়ার ইন্ডিয়া। বিমান বাতিল হওয়ার পরে যাত্রীদের টাকা ফেরত না দেওয়ার অভিযোগে টাটার সংস্থাটিকে বিরাট অঙ্কের জরিমানা করল মার্কিন পরিবহণ দপ্তর। টিকিটের রিফান্ড হিসেবে ১২১.৫ মিলিয়ন মার্কিন ডলার এবং জরিমানা হিসেবে ১.৪ মিলিয়ন মার্কিন ডলার দিতে হবে এয়ার ইন্ডিয়াকে। সংস্থার তরফে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে, অতিমারীর সময় উড়ান বাতিলের কারণেই এই জরিমানা।

তবে কেবল এয়ার ইন্ডিয়াই নয়। সব মিলিয়ে জরিমানার মুখে পড়েছে ৬টি বিমান সংস্থা। এক বিবৃতিতে তেমনই জানিয়েছে মার্কিন দপ্তর। মোট ৬০০ মিলিয়ন ডলার রিফান্ড হিসেবে দাবি করা হয়েছে। সেই সঙ্গে জানানো হয়েছে, উড়ান বাতিল হলে টিকিটের টাকা ফেরত দেওয়ার ক্ষেত্রে এয়ার ইন্ডিয়া যে ‘রিফান্ড অন রিকোয়েস্ট’ নীতি মেনে চলে তা মার্কিন দপ্তরের একেবারে বিপরীত। আমেরিকার নিয়ম অনুসারে, সমস্ত বিমান সংস্থা উড়ান বাতিলের ক্ষেত্রে টিকিটের মূল্য ফেরত দিতে আইনত বাধ্য। এবং এতে বিলম্ব করাও চলবে না। কেননা উড়ান বাতিল হলে যাত্রীদের বিরাট সমস্যার সামনে পড়তে হয়।

উল্লেখ্য, গত বছরের অক্টোবরে ১৮ হাজার কোটি টাকায় এয়ার ইন্ডিয়া কিনে নেয় টাটা গোষ্ঠী। দেনার দায়ে ধুঁকছিল এই জাতীয় উড়ান সংস্থা। ঋণের পরিমাণ দাঁড়িয়েছিল ৪৩ হাজার কোটি টাকায়। সংস্থাটি কিনে টাটা গোষ্ঠী যে বড় চ্যালেঞ্জ গ্রহণ করেছে তা নিশ্চিত। এই পরিস্থিতিতে মোটা অঙ্কের জরিমানার অঙ্ক যে টাটাদের অস্বস্তিতে ফেলবে তা বলাই বাহুল্য।

যদিও বিমান বাতিলের সময় এয়ার ইন্ডিয়া টাটাদের অধীনে ছিল না, কিন্তু এখন জরিমানার অর্থ তাদেরই দিতে হবে। এর আগে গত জুনে বৈধ টিকিট থাকা সত্ত্বেও বিমানে না উঠতে দেওয়ার অভিযোগ জানাতে গিয়েছিল বহু যাত্রীকে। যার জেরে কঠোর শাস্তির মুখে পড়তে হয় এয়ার ইন্ডিয়াকে।

জনপ্রিয় সংবাদ

ভূল অসত্য সংবাদ পরিবেশন করায় ব্যবসায়ীর  সংবাদ সম্মেলন

বিরাট অঙ্কের জরিমানার মুখে এয়ার ইন্ডিয়া

আপডেট টাইম : ১১:১২:০২ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৫ নভেম্বর ২০২২

অনলাইন ডেস্ক:

বড়সড় অস্বস্তিতে এয়ার ইন্ডিয়া। বিমান বাতিল হওয়ার পরে যাত্রীদের টাকা ফেরত না দেওয়ার অভিযোগে টাটার সংস্থাটিকে বিরাট অঙ্কের জরিমানা করল মার্কিন পরিবহণ দপ্তর। টিকিটের রিফান্ড হিসেবে ১২১.৫ মিলিয়ন মার্কিন ডলার এবং জরিমানা হিসেবে ১.৪ মিলিয়ন মার্কিন ডলার দিতে হবে এয়ার ইন্ডিয়াকে। সংস্থার তরফে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে, অতিমারীর সময় উড়ান বাতিলের কারণেই এই জরিমানা।

তবে কেবল এয়ার ইন্ডিয়াই নয়। সব মিলিয়ে জরিমানার মুখে পড়েছে ৬টি বিমান সংস্থা। এক বিবৃতিতে তেমনই জানিয়েছে মার্কিন দপ্তর। মোট ৬০০ মিলিয়ন ডলার রিফান্ড হিসেবে দাবি করা হয়েছে। সেই সঙ্গে জানানো হয়েছে, উড়ান বাতিল হলে টিকিটের টাকা ফেরত দেওয়ার ক্ষেত্রে এয়ার ইন্ডিয়া যে ‘রিফান্ড অন রিকোয়েস্ট’ নীতি মেনে চলে তা মার্কিন দপ্তরের একেবারে বিপরীত। আমেরিকার নিয়ম অনুসারে, সমস্ত বিমান সংস্থা উড়ান বাতিলের ক্ষেত্রে টিকিটের মূল্য ফেরত দিতে আইনত বাধ্য। এবং এতে বিলম্ব করাও চলবে না। কেননা উড়ান বাতিল হলে যাত্রীদের বিরাট সমস্যার সামনে পড়তে হয়।

উল্লেখ্য, গত বছরের অক্টোবরে ১৮ হাজার কোটি টাকায় এয়ার ইন্ডিয়া কিনে নেয় টাটা গোষ্ঠী। দেনার দায়ে ধুঁকছিল এই জাতীয় উড়ান সংস্থা। ঋণের পরিমাণ দাঁড়িয়েছিল ৪৩ হাজার কোটি টাকায়। সংস্থাটি কিনে টাটা গোষ্ঠী যে বড় চ্যালেঞ্জ গ্রহণ করেছে তা নিশ্চিত। এই পরিস্থিতিতে মোটা অঙ্কের জরিমানার অঙ্ক যে টাটাদের অস্বস্তিতে ফেলবে তা বলাই বাহুল্য।

যদিও বিমান বাতিলের সময় এয়ার ইন্ডিয়া টাটাদের অধীনে ছিল না, কিন্তু এখন জরিমানার অর্থ তাদেরই দিতে হবে। এর আগে গত জুনে বৈধ টিকিট থাকা সত্ত্বেও বিমানে না উঠতে দেওয়ার অভিযোগ জানাতে গিয়েছিল বহু যাত্রীকে। যার জেরে কঠোর শাস্তির মুখে পড়তে হয় এয়ার ইন্ডিয়াকে।