ঢাকা ০১:০৩ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২৯ মে ২০২৪, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম :
দ্বাদশ জাতীয় সংসদের পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির তৃতীয় বৈঠক অনুষ্ঠিত ৫ বছরের অধিক প্রেষনে দায়িত্ব পালন করছেন চীফ ইঞ্জিনিয়ার মঞ্জুরুল কবীর! বিআইডব্লিউটিএর অতি: পরিচালক আরিফ উদ্দিনের সম্পদের পাহাড়! শাহআলীতে গৃহবধূকে গলা কেটে হত্যাকারি পলাতক স্বামী গ্রেফতার  অতি:পরিচালক আরিফ উদ্দিন এখন বিআইডব্লিউটিএ‘র অঘোষিত “রাজা”! সাভারে এক ইউপি চেয়ারম্যানের সম্পদের পাহাড়! সিরাজদিখানে মঈনুল হাসান নাহিদকে বিকল্প ধরার সমর্থন মির্জাগঞ্জের ইউ,পি সচিব পরকীয়া প্রেমিকার হত্যাকাণ্ডে পুলিশ হেফাজতে শেষ মুহূর্তের প্রচারণায় মানুষের ভালবাসায় আমি মুগ্ধ: চেয়ারম্যান প্রার্থী পলাশ মানবতার আড়ালে ভয়ংকর ফয়সাল বাহিনী, পিস্তল ঠেকিয়ে টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগ

বোদা পৌরসভা নির্বাচনে নৌকা বিজয়ী

মোঃ বাবুল হোসেন :
পঞ্চগড়ের বোদা পৌরসভা নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত মেয়র প্রার্থী আলহাজ্ব মো: আজাহার আলী ৬ হাজার ৭৪০ ভোট পেয়ে বেসরকারীভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। বৃহস্পতিবার ( ২৯ ডিসেম্বর) এই প্রথম (ইভিএম)’র মাধ্যমে ভোট গ্রহন অনুষ্ঠিত হয়। নির্বাচনে ৯টি ওয়ার্ডে ৪ জন মেয়র প্রার্থী, ১০ জন সংরক্ষিত নারী কাউন্সিল ও ৩১ জন সাধারণ কাউন্সিলর প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। রিটার্নিং অফিসার  মো: আলমগীর হোসেন জানান, নির্বাচনে মোট ভোটার ১৪ হাজার ৫১২ জন এর মধ্যে নারী ভোটার ৭ হাজার ৪৬১  জন এবং পুরুষ ভোটার ৭ হাজার ৫১ জন। সকাল ৮টা থেকে কিছু কেন্দ্র ৬ টা পর্যন্ত ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। নির্বাচনে ১৪  হাজার ৫ শত ১২ জন ভোটারের মধ্যে ১১ হাজার ৮ শত ১২ জন তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করেন। এ পৌরসভা নির্বাচনে ৮০ শতাংশ ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করেছেন। নির্বাচনে আওয়ামীলীগ মনোনীত মেয়র প্রার্থী আলহাজ্ব মো: আজাহার আলী, নৌকা প্রতীক নিয়ে পেয়েছেন ৬ হাজার ৭৪০ ভোট , তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী স্বতন্ত্র মনোনীত মেয়র প্রার্থী,  এ কে এম আখতাৱ হোসেন ( হাসান ) নারিকেল গাছ প্রতীকে পেয়েছেন ৩ হাজার ৫ শত ৯৭ ভোট , স্বতন্ত্র মেয়র প্রার্থী মোঃ দিলরেজা ফেরদৌস জগ প্রতীকে পেয়েছেন ৭ শত ৮৩ ভোট, মোঃ মদুদ খান ,  বাংলাদেশ ইসলামী আন্দোলনের , হাতপাখা প্রতীকে পেয়েছেন ৭ শত ৩২ ভোট । দ্বিতীয় বারের মত পঞ্চগড়ের বোদা পৌরসভার সকাল থেকে সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ ভাবে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে । কনকনে শীত ও সর্বনিম্ন তাপমাত্রাকে অপেক্ষা করে ভোট দিতে এসেছে ভোটাররা । তবে পুরুষ ভোটারের চেয়ে  মহিলা ভোটারের দীর্ঘ লাইন ছিলো চোখে পড়ার মতো।  পঞ্চগড়ের বোদা পৌরসভা নির্বাচনে  এবারে প্রথমবারের মতো ব্যবহার হয়েছে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন (ইভিএম)। কিন্তু ইভিএম নিয়ে অনেক ভোটার অভিযোগ জানিয়েছেন। ভোটাররা বলছেন, ইভিএমে সময় বেশি লাগছে। ফলে অনেকেই ভোট না দিতে পেরে ফিরে যাচ্ছেন,  বলছেন ভিড় কমলে পরে এসে দিব। তাই আগের ভোট পদ্ধতিই সঠিক ছিল বলে ভোটাররা দাবি করেন। ভাসাই নগর সরকারি প্রাথমিক বিদ‍্যালয়ে এটি ভোটকেন্দ্র নাম্বার এক, সেখানে দেখা গেছে সকাল ৮টা থেকে ভোটগ্রহণ শুরু  হয়েছে এবং ৬ টা বেজে গেলও ভোটারদের দীর্ঘ লাইন  দেখা গেছে  । নির্বাচন অফিস বলছে, তথ্যপ্রযুক্তির যুগে এটি নতুন যন্ত্র। তাই ভোটারদের কাছে হয়তো এটা ভালো লাগেনি। ভোটার ও ভোটগ্রহণকারী সবার জন্য ইভিএম নতুন। ফলে প্রতিটি ভোটগ্রহণে  ৮ থেকে ১০ মিনিট সময় লাগছে। অনেকের আঙুলের ছাপ মিলছে না। এ কারণে ভোটারদের দীর্ঘ লাইন তৈরি হয়েছে। সময়ও বেশি লেগেছে। সন্ধ্যা সাড়ে ৫  টায়  ভাসাই নগর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শত শত নারীদের দীর্ঘ লাইন দেখা গেছে। এ সময় ভোটাররা বলেন, ব্যালট পেপারে ভোট প্রক্রিয়াই অনেক ভালো ছিল। যন্ত্র এসে আমাদের সময় নষ্ট করেছে। পৌরসভায় ৯টি ভোট কেন্দ্রে ৪৮টি বুথে ইভিএমের মাধ্যমে ভোট গ্রহণ করা হবে।  রিটার্নিং কর্মকর্তা ও জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মো. আলমগীর জানান,নির্বাচনে ৯টি কেন্দ্রে ৯ জন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও একজন বিচারক ম্যাজিস্ট্রেট ছিলেন , এক প্লাটুন বিজিবি সদস্যসহ র‌্যাব, পুলিশ ও আনসার সদস্যরা দায়িত্ব পালন করবেন।
ট্যাগস
জনপ্রিয় সংবাদ

দ্বাদশ জাতীয় সংসদের পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির তৃতীয় বৈঠক অনুষ্ঠিত

বোদা পৌরসভা নির্বাচনে নৌকা বিজয়ী

আপডেট টাইম : ০৮:৫৩:২৮ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ৩০ ডিসেম্বর ২০২২
মোঃ বাবুল হোসেন :
পঞ্চগড়ের বোদা পৌরসভা নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত মেয়র প্রার্থী আলহাজ্ব মো: আজাহার আলী ৬ হাজার ৭৪০ ভোট পেয়ে বেসরকারীভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। বৃহস্পতিবার ( ২৯ ডিসেম্বর) এই প্রথম (ইভিএম)’র মাধ্যমে ভোট গ্রহন অনুষ্ঠিত হয়। নির্বাচনে ৯টি ওয়ার্ডে ৪ জন মেয়র প্রার্থী, ১০ জন সংরক্ষিত নারী কাউন্সিল ও ৩১ জন সাধারণ কাউন্সিলর প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। রিটার্নিং অফিসার  মো: আলমগীর হোসেন জানান, নির্বাচনে মোট ভোটার ১৪ হাজার ৫১২ জন এর মধ্যে নারী ভোটার ৭ হাজার ৪৬১  জন এবং পুরুষ ভোটার ৭ হাজার ৫১ জন। সকাল ৮টা থেকে কিছু কেন্দ্র ৬ টা পর্যন্ত ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। নির্বাচনে ১৪  হাজার ৫ শত ১২ জন ভোটারের মধ্যে ১১ হাজার ৮ শত ১২ জন তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করেন। এ পৌরসভা নির্বাচনে ৮০ শতাংশ ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করেছেন। নির্বাচনে আওয়ামীলীগ মনোনীত মেয়র প্রার্থী আলহাজ্ব মো: আজাহার আলী, নৌকা প্রতীক নিয়ে পেয়েছেন ৬ হাজার ৭৪০ ভোট , তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী স্বতন্ত্র মনোনীত মেয়র প্রার্থী,  এ কে এম আখতাৱ হোসেন ( হাসান ) নারিকেল গাছ প্রতীকে পেয়েছেন ৩ হাজার ৫ শত ৯৭ ভোট , স্বতন্ত্র মেয়র প্রার্থী মোঃ দিলরেজা ফেরদৌস জগ প্রতীকে পেয়েছেন ৭ শত ৮৩ ভোট, মোঃ মদুদ খান ,  বাংলাদেশ ইসলামী আন্দোলনের , হাতপাখা প্রতীকে পেয়েছেন ৭ শত ৩২ ভোট । দ্বিতীয় বারের মত পঞ্চগড়ের বোদা পৌরসভার সকাল থেকে সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ ভাবে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে । কনকনে শীত ও সর্বনিম্ন তাপমাত্রাকে অপেক্ষা করে ভোট দিতে এসেছে ভোটাররা । তবে পুরুষ ভোটারের চেয়ে  মহিলা ভোটারের দীর্ঘ লাইন ছিলো চোখে পড়ার মতো।  পঞ্চগড়ের বোদা পৌরসভা নির্বাচনে  এবারে প্রথমবারের মতো ব্যবহার হয়েছে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন (ইভিএম)। কিন্তু ইভিএম নিয়ে অনেক ভোটার অভিযোগ জানিয়েছেন। ভোটাররা বলছেন, ইভিএমে সময় বেশি লাগছে। ফলে অনেকেই ভোট না দিতে পেরে ফিরে যাচ্ছেন,  বলছেন ভিড় কমলে পরে এসে দিব। তাই আগের ভোট পদ্ধতিই সঠিক ছিল বলে ভোটাররা দাবি করেন। ভাসাই নগর সরকারি প্রাথমিক বিদ‍্যালয়ে এটি ভোটকেন্দ্র নাম্বার এক, সেখানে দেখা গেছে সকাল ৮টা থেকে ভোটগ্রহণ শুরু  হয়েছে এবং ৬ টা বেজে গেলও ভোটারদের দীর্ঘ লাইন  দেখা গেছে  । নির্বাচন অফিস বলছে, তথ্যপ্রযুক্তির যুগে এটি নতুন যন্ত্র। তাই ভোটারদের কাছে হয়তো এটা ভালো লাগেনি। ভোটার ও ভোটগ্রহণকারী সবার জন্য ইভিএম নতুন। ফলে প্রতিটি ভোটগ্রহণে  ৮ থেকে ১০ মিনিট সময় লাগছে। অনেকের আঙুলের ছাপ মিলছে না। এ কারণে ভোটারদের দীর্ঘ লাইন তৈরি হয়েছে। সময়ও বেশি লেগেছে। সন্ধ্যা সাড়ে ৫  টায়  ভাসাই নগর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শত শত নারীদের দীর্ঘ লাইন দেখা গেছে। এ সময় ভোটাররা বলেন, ব্যালট পেপারে ভোট প্রক্রিয়াই অনেক ভালো ছিল। যন্ত্র এসে আমাদের সময় নষ্ট করেছে। পৌরসভায় ৯টি ভোট কেন্দ্রে ৪৮টি বুথে ইভিএমের মাধ্যমে ভোট গ্রহণ করা হবে।  রিটার্নিং কর্মকর্তা ও জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মো. আলমগীর জানান,নির্বাচনে ৯টি কেন্দ্রে ৯ জন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও একজন বিচারক ম্যাজিস্ট্রেট ছিলেন , এক প্লাটুন বিজিবি সদস্যসহ র‌্যাব, পুলিশ ও আনসার সদস্যরা দায়িত্ব পালন করবেন।