ঢাকা ০৬:২৪ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১১ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম :
মির্জাগঞ্জে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ও  শহীদ  দিবসে বাংলাদেশ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির শ্রদ্ধা নিবেদন  ৫২’র ভাষা শহীদদের প্রতি মিরপুর রিপোর্টার্স ক্লাবের শ্রদ্ধা নিবেদন প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তরকে দুর্নীতির স্বর্গরাজ্যে পরিণত করেছেন ডিজি ডা: মো: এমদাদুল হক তালুকদার! বাসাবো এলাকায় রাজউকের উচ্ছেদ অভিযান; ৪ লক্ষ টাকা জরিমানা দুই সাব-রেজিস্ট্রারের বদলী উপলক্ষে বিদায় সংবর্ধনা দুর্নীতির বিরুদ্ধে শূন্য সহনশীল হবেন দুদক কর্মকর্তারা বলিষ্ঠ নেতৃত্বের মাধ্যমে ভূমি অফিস পরিচালনা করুন: ভূমিমন্ত্রী বাসাবো এলাকায় রাজউকের উচ্ছেদ অভিযান; ৪ লক্ষ টাকা জরিমানা মাগুরায় মাদরাসার সভাপতির ধমকে সুপার অজ্ঞান  মাগুরায় সাকিবের পৃষ্ঠপোষকতায় মহান একুশ উপলক্ষে শহরে আলপনার উদ্যোগ 

কাশিমপুর কারাগারে জঙ্গিদের অনশন

গাজীপুর প্রতিনিধি :

গাজীপুরের কাশিমপুর হাই সিকিউরিটি কেন্দ্রীয় কারাগারে সুবিধা বৃদ্ধির দাবিতে বন্দি জঙ্গি সদস্যরা বিক্ষোভ ও অনশন করেছে। আজ শনিবার সকালে তারা কারাগারের ভেতরে বিভিন্ন দাবিতে এ কর্মসূচি পালন করে।

কারাগার সূত্রে জানা গেছে, কাশিমপুর হাই সিকিউরিটি কেন্দ্রীয় কারাগারে বন্দি কয়েকজন জঙ্গি সদস্য নিজেদের চাহিদা মতো কম্বল, স্বজনদের সঙ্গে প্রতি সপ্তাহে একদিন সাক্ষাৎ, ফোনে কথা বলা ও বাইরে ঘোরাফেরা দাবি করে। কিন্তু কারা কর্তৃপক্ষ এতে রাজি হয়নি। তাই জঙ্গিরা আজ সকালে অনশন শুরু করে। তবে সাধারণ কোনো বন্দি এতে অংশ নেয়নি।

কাশিমপুর হাই সিকিউরিটি কেন্দ্রীয় কারাগারের জেল সুপার সুব্রত কুমার বালা বলেন, জঙ্গি, জেএমবি ও সন্ত্রাসীরা এ কারাগারের একটি ভবনে রয়েছে। ২৪ ঘণ্টায় তাদের লক-আপে থাকার কথা। তারপরও তারা ভবনের বারান্দা পর্যন্ত চলাচল করতে পারে। কিন্তু তারা কারাচত্বরের ভেতরে সাধারণ বন্দিদের মতো ঘুরাঘুরি করতে চায় ও এক সঙ্গে মিশতে চায়। এ ছাড়া বাইরে থেকে স্বজনদের সরবরাহ করা বিদেশি কম্বল, প্রতি সপ্তাহে স্বজনদের সঙ্গে সাক্ষাৎ ও ফোনে কথা বলাসহ নানা দাবি তোলে।

সুপার সুব্রত কুমার বালা আরও বলেন, শীত বেশি হওয়ায় কম্বলের সংখ্যা বাড়ানো হয়েছে। কিন্তু তাদের দাবি, সরকারি কম্বলে নাকি তাদের গাঁ চুলকায়। এসব নানা দাবি তুলে আজ ১০টার দিকে কয়েকজন জঙ্গি, জেএমবি ও সন্ত্রাসী অনশন শুরু করে।

কেন্দ্রীয় কারাগারের জেল সুপার বলেন, কারা নিয়ম অনুযায়ী বন্দিদের সব সুবিধা দেওয়া হয়। কিন্তু কারা বিধি-আইনের বাইরে বন্দিদের জন্য কোনো কিছু করার নিয়ম বা সুযোগ নেই। জঙ্গি সদস্যদের ইচ্ছামতো চলতে দিলে যেকোনো সময় অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটতে পারে। পরে বিষয়টি তাদের বুঝিয়ে শান্ত করা হয় এবং তারা সবাই নাস্তা গ্রহণ করে। তবে সাধারণ কোনো বন্দি এতে অংশ নেয়নি।

 

ট্যাগস

মির্জাগঞ্জে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ও  শহীদ  দিবসে বাংলাদেশ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির শ্রদ্ধা নিবেদন 

কাশিমপুর কারাগারে জঙ্গিদের অনশন

আপডেট টাইম : ০৪:৪২:২৬ অপরাহ্ন, শনিবার, ৭ জানুয়ারী ২০২৩

গাজীপুর প্রতিনিধি :

গাজীপুরের কাশিমপুর হাই সিকিউরিটি কেন্দ্রীয় কারাগারে সুবিধা বৃদ্ধির দাবিতে বন্দি জঙ্গি সদস্যরা বিক্ষোভ ও অনশন করেছে। আজ শনিবার সকালে তারা কারাগারের ভেতরে বিভিন্ন দাবিতে এ কর্মসূচি পালন করে।

কারাগার সূত্রে জানা গেছে, কাশিমপুর হাই সিকিউরিটি কেন্দ্রীয় কারাগারে বন্দি কয়েকজন জঙ্গি সদস্য নিজেদের চাহিদা মতো কম্বল, স্বজনদের সঙ্গে প্রতি সপ্তাহে একদিন সাক্ষাৎ, ফোনে কথা বলা ও বাইরে ঘোরাফেরা দাবি করে। কিন্তু কারা কর্তৃপক্ষ এতে রাজি হয়নি। তাই জঙ্গিরা আজ সকালে অনশন শুরু করে। তবে সাধারণ কোনো বন্দি এতে অংশ নেয়নি।

কাশিমপুর হাই সিকিউরিটি কেন্দ্রীয় কারাগারের জেল সুপার সুব্রত কুমার বালা বলেন, জঙ্গি, জেএমবি ও সন্ত্রাসীরা এ কারাগারের একটি ভবনে রয়েছে। ২৪ ঘণ্টায় তাদের লক-আপে থাকার কথা। তারপরও তারা ভবনের বারান্দা পর্যন্ত চলাচল করতে পারে। কিন্তু তারা কারাচত্বরের ভেতরে সাধারণ বন্দিদের মতো ঘুরাঘুরি করতে চায় ও এক সঙ্গে মিশতে চায়। এ ছাড়া বাইরে থেকে স্বজনদের সরবরাহ করা বিদেশি কম্বল, প্রতি সপ্তাহে স্বজনদের সঙ্গে সাক্ষাৎ ও ফোনে কথা বলাসহ নানা দাবি তোলে।

সুপার সুব্রত কুমার বালা আরও বলেন, শীত বেশি হওয়ায় কম্বলের সংখ্যা বাড়ানো হয়েছে। কিন্তু তাদের দাবি, সরকারি কম্বলে নাকি তাদের গাঁ চুলকায়। এসব নানা দাবি তুলে আজ ১০টার দিকে কয়েকজন জঙ্গি, জেএমবি ও সন্ত্রাসী অনশন শুরু করে।

কেন্দ্রীয় কারাগারের জেল সুপার বলেন, কারা নিয়ম অনুযায়ী বন্দিদের সব সুবিধা দেওয়া হয়। কিন্তু কারা বিধি-আইনের বাইরে বন্দিদের জন্য কোনো কিছু করার নিয়ম বা সুযোগ নেই। জঙ্গি সদস্যদের ইচ্ছামতো চলতে দিলে যেকোনো সময় অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটতে পারে। পরে বিষয়টি তাদের বুঝিয়ে শান্ত করা হয় এবং তারা সবাই নাস্তা গ্রহণ করে। তবে সাধারণ কোনো বন্দি এতে অংশ নেয়নি।