ঢাকা ১১:২৪ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ১ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ভাষানটেকের ঠিকাদার হোসেন আলী সন্ত্রাসীদের ভয়ে নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে

সোহেল রানা
রাজধানী উত্তর ভাষানটেকের ঠিকাদার ও ভাষানটেক বাড়ী ও ফ্ল্যাট মালিক কল্যান সংগঠনের সভাপতি, হোসেন আলীকে গত ১ জানুয়ারী ২০২৩ ইং তারিখে অনুমানিক সন্ধ্যা ৭.০০ ঘটিকায় ৩০ থেকে ৩৫ জন মুখোশধারী সন্ত্রাসীরা উত্তর ভাষানটেক বাড়ী ও ফ্ল্যাট মালিক কল্যান সংগঠনের অফিসে এসে অতর্কিত হামলা করে। ওই হামলায় সন্ত্রাসীদে গুলিতে গুরুতর আহত হন। তার মৃত্যু নিশ্চিত করতে গুলির পর ধারালো অস্ত্রদিয়ে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে ফেলে রেখে যায় এরপর এলাকাবাসি তাকে নিয়ে ঢাকা মেডিক্যাল হাসপাতালে যান। এব্যাপারে ভাষানটেক থানায় মামলা হলে মামলাটি ডিবি পুলিশের কাছে হস্তান্তর করেন। এরপর থানা পুলিশের অভিযানে জাহিন ও ডিবি পুলিশের হাতে আরেক সন্ত্রাসী গ্রেফতার হয়। ঘটনার পর থেকে ঠিকাদার হোসেন আলী নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে। হোসেন আলী অভিযোগ করেন তিনি প্রশাসনের কোন সহযোগীতা পাচ্ছেন। হোসেন আলী ভাষানটেক বাড়ী ও ফ্ল্যাট মালিক কল্যান সংগঠনেরও সভাপতি হওয়ার পর থেকে এলাকার রাস্তাঘাটসহ বিভিন্ন উন্নয়নে ভুমিকা পালন করে আসছিলেন। সেক্ষেত্রে এলাকার কিছু সন্ত্রাসীরা তার বাধার মাথায় কিছু করতে পারেনি যার জন্য ওই সন্ত্রাসীরা ক্ষিপ্ত হয়ে হামলা করে। সুত্রে জানা যায়, গত ৭ ডিসেম্বর ২০২২ ইং তারিখে এলাকার চিহ্নিত সন্ত্রাসী ও ডাকাত শাহিনকে বাড়ীর রড চুরির অপরাধে ভাষানটেক থানার এসআই মাহাবুবের হাতে সপর্দ করেন। পরবর্তিতে এসআই মাহাবুব ভাষানটেক বাড়ী ও ফ্ল্যাট মালিক কল্যান সংগঠনের অফিস থেকে সন্ত্রাসী শাহিনকে থানায় নিয়ে যায়। এরপর এসআই মাহাবুব ভাষানটেক বাড়ী ও ফ্ল্যাট মালিক কল্যান সংগঠনের সভাপতি হোসেন আলীকে থানায় ডেকে নিয়ে বলেন শাহিন যদি আর কখনো কোন অপরাধ করে তার দায়িত্ব আমি নেবো এই বলে সন্ত্রাসী শাহিনকে থানা থেকে ছেড়ে দেয়। এব্যপারে এসআই মাহাবুবের সাথে কথা বললে তিনি জানান তাহার মামলা না দেয়ার কারনে ছেড়ে দিয়েছি। এরপর সন্ত্রাসী শাহিন ওই ঘটনার জের ধরে তার দলবল নিয়ে ঠিকাদার ও ভাষানটেক বাড়ী ও ফ্ল্যাট মালিক কল্যান সংগঠনের সভাপতি হোসেন আলীর উপর হামলা চালায়। ভাষানটেক বাড়ী ও ফ্ল্যাট মালিক কল্যান সংগঠনের সদস্য ও এলাকবাসিরা জানান ভাষানটেক থানা এলাকার উত্তর ভাষানটেকে চুরি, ছিনতায় ও ডাকাতি অহরোহ ঘটছে। এব্যাপারে প্রশাসনের কোন হস্তক্ষেপ দেখছিনা। আরো বিস্তারিত আসিতেছে………।

ট্যাগস

ভাষানটেকের ঠিকাদার হোসেন আলী সন্ত্রাসীদের ভয়ে নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে

আপডেট টাইম : ০৫:৫৪:৪৪ অপরাহ্ন, বুধবার, ৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৩

সোহেল রানা
রাজধানী উত্তর ভাষানটেকের ঠিকাদার ও ভাষানটেক বাড়ী ও ফ্ল্যাট মালিক কল্যান সংগঠনের সভাপতি, হোসেন আলীকে গত ১ জানুয়ারী ২০২৩ ইং তারিখে অনুমানিক সন্ধ্যা ৭.০০ ঘটিকায় ৩০ থেকে ৩৫ জন মুখোশধারী সন্ত্রাসীরা উত্তর ভাষানটেক বাড়ী ও ফ্ল্যাট মালিক কল্যান সংগঠনের অফিসে এসে অতর্কিত হামলা করে। ওই হামলায় সন্ত্রাসীদে গুলিতে গুরুতর আহত হন। তার মৃত্যু নিশ্চিত করতে গুলির পর ধারালো অস্ত্রদিয়ে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে ফেলে রেখে যায় এরপর এলাকাবাসি তাকে নিয়ে ঢাকা মেডিক্যাল হাসপাতালে যান। এব্যাপারে ভাষানটেক থানায় মামলা হলে মামলাটি ডিবি পুলিশের কাছে হস্তান্তর করেন। এরপর থানা পুলিশের অভিযানে জাহিন ও ডিবি পুলিশের হাতে আরেক সন্ত্রাসী গ্রেফতার হয়। ঘটনার পর থেকে ঠিকাদার হোসেন আলী নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে। হোসেন আলী অভিযোগ করেন তিনি প্রশাসনের কোন সহযোগীতা পাচ্ছেন। হোসেন আলী ভাষানটেক বাড়ী ও ফ্ল্যাট মালিক কল্যান সংগঠনেরও সভাপতি হওয়ার পর থেকে এলাকার রাস্তাঘাটসহ বিভিন্ন উন্নয়নে ভুমিকা পালন করে আসছিলেন। সেক্ষেত্রে এলাকার কিছু সন্ত্রাসীরা তার বাধার মাথায় কিছু করতে পারেনি যার জন্য ওই সন্ত্রাসীরা ক্ষিপ্ত হয়ে হামলা করে। সুত্রে জানা যায়, গত ৭ ডিসেম্বর ২০২২ ইং তারিখে এলাকার চিহ্নিত সন্ত্রাসী ও ডাকাত শাহিনকে বাড়ীর রড চুরির অপরাধে ভাষানটেক থানার এসআই মাহাবুবের হাতে সপর্দ করেন। পরবর্তিতে এসআই মাহাবুব ভাষানটেক বাড়ী ও ফ্ল্যাট মালিক কল্যান সংগঠনের অফিস থেকে সন্ত্রাসী শাহিনকে থানায় নিয়ে যায়। এরপর এসআই মাহাবুব ভাষানটেক বাড়ী ও ফ্ল্যাট মালিক কল্যান সংগঠনের সভাপতি হোসেন আলীকে থানায় ডেকে নিয়ে বলেন শাহিন যদি আর কখনো কোন অপরাধ করে তার দায়িত্ব আমি নেবো এই বলে সন্ত্রাসী শাহিনকে থানা থেকে ছেড়ে দেয়। এব্যপারে এসআই মাহাবুবের সাথে কথা বললে তিনি জানান তাহার মামলা না দেয়ার কারনে ছেড়ে দিয়েছি। এরপর সন্ত্রাসী শাহিন ওই ঘটনার জের ধরে তার দলবল নিয়ে ঠিকাদার ও ভাষানটেক বাড়ী ও ফ্ল্যাট মালিক কল্যান সংগঠনের সভাপতি হোসেন আলীর উপর হামলা চালায়। ভাষানটেক বাড়ী ও ফ্ল্যাট মালিক কল্যান সংগঠনের সদস্য ও এলাকবাসিরা জানান ভাষানটেক থানা এলাকার উত্তর ভাষানটেকে চুরি, ছিনতায় ও ডাকাতি অহরোহ ঘটছে। এব্যাপারে প্রশাসনের কোন হস্তক্ষেপ দেখছিনা। আরো বিস্তারিত আসিতেছে………।