ঢাকা ০৪:৩৭ অপরাহ্ন, সোমবার, ০৪ মার্চ ২০২৪, ২১ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম :
ফসলি জমির মাটি কেটে বিক্রির অভিযোগ স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতির বিরুদ্ধে বাড্ডা থানার অপরাধীদের আতঙ্কের নাম ওসি ইয়াসীন গাজী কুমিল্লা সাংবাদিক ফোরাম, ঢাকা’র নেতৃত্বে সাজ্জাদ-মোশাররফ স্বামীকে বটি দিয়ে কুপিয়ে খুন করে থানায় স্ত্রীর আত্মসমর্পণ কোটালীপাড়ায় তিন দিনব্যাপী কবি সুকান্ত মেলার উদ্বোধন বেইলি রোডে আগুনে নিহত ৪৬ জয়পুরহাটে ৭ মামলার কুখ্যাত সন্ত্রাসী অস্ত্র ও মাদকসহ র‍্যাবের জালে আটক উপজেলা নির্বাহী অফিসার আজিম উদ্দিনের কোলে শিশু মো. লাকিত হোসেন ধর্ষণ মামলার প্রধান একমাত্র পলাতক আসামি অবশেষে আটক মির্জাগঞ্জে দরিদ্র এক নিঃসন্তান বৃদ্ধের খড়ের গাদায় অগ্নিকাণ্ড

প্রবাসীর স্ত্রীর ঘরে গভীর রাতে যুবক, শিকলবন্দী করে নির্যাতন!

শরীয়তপুর প্রতিনিধি :

শরীয়তপুরের নড়িয়া উপজেলায় পরকীয়ার অভিযোগে প্রবাসীর স্ত্রী ও এক যুবককে আটক করে শিকলে বেঁধে নির্যাতন করা হয়েছে। তবে নারীর দাবি, আটক যুবক তার খালাতো ভাই। তাকে টাকা দিতে বাড়িতে এসেছিলেন।

গতকাল মঙ্গলবার দিবাগত রাত দেড়টার দিকে অভিযুক্ত নারী ও যুবককে আটক করে স্থানীয়রা। স্থানীয়রা জানায়, গতকাল দিবাগত রাতে ওই নারীর বাড়িতে পাশের ইউনিয়নের এক যুবককে আটক করা হয়। নারীর স্বামী মালেয়েশিয়া প্রবাসী। তাদের সংসারে সন্তান রয়েছে। স্থানীয় রবিন, নাজমুল, মফিজ শিকদারসহ কয়েকজন ওই নারীর ঘরে ঢুকে ভাঙচুর করে এবং তাদের আটক করে শিকলবন্দী করেন।

আটক নারীর দেবর বলেন, ‘ভাবির কাছে একটা ছেলে এসেছেন। লোকজন তাদের আটক করে রেখেছে। আমি থানায় এসেছি পুলিশকে জানাতে।’

শিকলবন্দী নারী বলেন, ‘উনি (যুবক) আমার খালাতো ভাই। আমাকে পাওনা টাকা দিতে এসেছিলেন। এ সময় স্থানীয় রবিন, নাজমুল, মফিজ শিকদারসহ কয়েকজন আমার ঘরে ঢুকে ভাঙচুর করে। এরপর আমাকে আটক করে শিকলবন্দী করেছে। আমাদের বিরুদ্ধে পরকীয়ার মিথ্যা অভিযোগ করছে তারা। তারা আমাদের মারধরও করেছে।’

এ বিষয়ে স্থানীয় যুবকদের বক্তব্য জানতে যোগাযোগের চেষ্টা করেও তাদের পাওয়া যায়নি।

নড়িয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হাফিজুর রহমান বলেন, ‘এ বিষয়ে খোঁজ নিচ্ছি। অভিযোগ পেলে তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।’

ফসলি জমির মাটি কেটে বিক্রির অভিযোগ স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতির বিরুদ্ধে

প্রবাসীর স্ত্রীর ঘরে গভীর রাতে যুবক, শিকলবন্দী করে নির্যাতন!

আপডেট টাইম : ০৭:৩৩:৪৪ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৯ এপ্রিল ২০২৩

শরীয়তপুর প্রতিনিধি :

শরীয়তপুরের নড়িয়া উপজেলায় পরকীয়ার অভিযোগে প্রবাসীর স্ত্রী ও এক যুবককে আটক করে শিকলে বেঁধে নির্যাতন করা হয়েছে। তবে নারীর দাবি, আটক যুবক তার খালাতো ভাই। তাকে টাকা দিতে বাড়িতে এসেছিলেন।

গতকাল মঙ্গলবার দিবাগত রাত দেড়টার দিকে অভিযুক্ত নারী ও যুবককে আটক করে স্থানীয়রা। স্থানীয়রা জানায়, গতকাল দিবাগত রাতে ওই নারীর বাড়িতে পাশের ইউনিয়নের এক যুবককে আটক করা হয়। নারীর স্বামী মালেয়েশিয়া প্রবাসী। তাদের সংসারে সন্তান রয়েছে। স্থানীয় রবিন, নাজমুল, মফিজ শিকদারসহ কয়েকজন ওই নারীর ঘরে ঢুকে ভাঙচুর করে এবং তাদের আটক করে শিকলবন্দী করেন।

আটক নারীর দেবর বলেন, ‘ভাবির কাছে একটা ছেলে এসেছেন। লোকজন তাদের আটক করে রেখেছে। আমি থানায় এসেছি পুলিশকে জানাতে।’

শিকলবন্দী নারী বলেন, ‘উনি (যুবক) আমার খালাতো ভাই। আমাকে পাওনা টাকা দিতে এসেছিলেন। এ সময় স্থানীয় রবিন, নাজমুল, মফিজ শিকদারসহ কয়েকজন আমার ঘরে ঢুকে ভাঙচুর করে। এরপর আমাকে আটক করে শিকলবন্দী করেছে। আমাদের বিরুদ্ধে পরকীয়ার মিথ্যা অভিযোগ করছে তারা। তারা আমাদের মারধরও করেছে।’

এ বিষয়ে স্থানীয় যুবকদের বক্তব্য জানতে যোগাযোগের চেষ্টা করেও তাদের পাওয়া যায়নি।

নড়িয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হাফিজুর রহমান বলেন, ‘এ বিষয়ে খোঁজ নিচ্ছি। অভিযোগ পেলে তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।’