ঢাকা ০৬:০২ অপরাহ্ন, সোমবার, ০৪ মার্চ ২০২৪, ২১ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম :
ফসলি জমির মাটি কেটে বিক্রির অভিযোগ স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতির বিরুদ্ধে বাড্ডা থানার অপরাধীদের আতঙ্কের নাম ওসি ইয়াসীন গাজী কুমিল্লা সাংবাদিক ফোরাম, ঢাকা’র নেতৃত্বে সাজ্জাদ-মোশাররফ স্বামীকে বটি দিয়ে কুপিয়ে খুন করে থানায় স্ত্রীর আত্মসমর্পণ কোটালীপাড়ায় তিন দিনব্যাপী কবি সুকান্ত মেলার উদ্বোধন বেইলি রোডে আগুনে নিহত ৪৬ জয়পুরহাটে ৭ মামলার কুখ্যাত সন্ত্রাসী অস্ত্র ও মাদকসহ র‍্যাবের জালে আটক উপজেলা নির্বাহী অফিসার আজিম উদ্দিনের কোলে শিশু মো. লাকিত হোসেন ধর্ষণ মামলার প্রধান একমাত্র পলাতক আসামি অবশেষে আটক মির্জাগঞ্জে দরিদ্র এক নিঃসন্তান বৃদ্ধের খড়ের গাদায় অগ্নিকাণ্ড

মহম্মদপুরে কম্বাইন হারভেস্টার দিয়ে ধান কাটলেন ডিসি

মাসুদ রানা, মাগুরা
মাগুরার মহম্মদপুরে কৃষকের পাকা ধান কাটলেন মাগুরা জেলা প্রশাসক (ডিসি) মো: আবু নাসের বেগ। তিনি আধুনিক প্রযুক্তি কম্বাইন হারভেস্টার দিয়ে পাকা ধান কাটার উদ্বোধন করেন। সোমবার দুপুরে উপজেলার বিনোদনপুর ইউনিয়নের হরিনধরা পেয়াদাপাড়া মাঠে এ ধান কাটার উদ্বোধন করেন।

অফিস সূত্রে জানা যায় , মহম্মদপুর উপজেলায় ২০২২-২৩ অর্থবছরে রবি মৌসুমে কৃষি প্রোনাদনা কর্মসূচির আওতায় এবং সাধরন কৃষকরা ৬ হাজার ৮ শত হেক্টর জমিতে বোরো হাইব্রিড ধানের সমলয় চাষাবাদ করা হয়েছে। রাইস ট্রান্সপ্লান্টার ও কম্বাইন্ড আধুনিক প্রযুক্তি মাধ্যম এখন রবি মৌসুমে ধান রোপণ ও কর্তন করতে ব্যবহার করা হচ্ছে। কৃষকদের মাঝে স্মার্ট কৃষি বাংলাদেশ পৌঁছে দেয়ার কাজ করে যাচ্ছেন জেলা ও উপজেলা কৃষি অফিস বলে জানান।

স্থানীয় কয়েকজন কৃষক বলেন, আমাদেরকে কৃষি অফিস থেকে বীজ ও সার দিয়েছে এবং কৃষি অফিস থেকে মেশিনের মাধ্যমে ধানের চারা রোপণ করা হয়েছে এবং এখন আবার কম্বাইন হারভেস্টার মেশিন দিয়ে কম খরচে কাটা হচ্ছে। এ বছর গত বছরের চেয়ে ধানের ফলনও ভালো হয়েছে।

মাগুরা জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরে উপপরিচালক সুফি মো: রফিকুজ্জামানের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মহম্মদপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার রামানন্দ পাল, সহকারী কমিশনার (ভ’মি) বাসুদেব কুমার মালো, কৃষি কর্মকর্তা আব্দুস সোবান, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান বেবি নাজনীন, ভাইস চেয়ারম্যান বরকত আলী, ইউপি চেয়ারম্যান শিকদার মিজানুর চেয়ারম্যান প্রমূখ।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে মাগুরা জেলা প্রশাসক মো: আবু নাসের বেগ বলেন, কৃষি বাংলাদেশ বির্নিমানে আধুনিক যন্ত্রপাতির মাধ্যমে কৃষি বিপ্লব ঘটাতে হবে। সমলয় চাষাবাদের মাধ্যমে শ্রম ও কম খরচে উৎপাদন বৃদ্ধি করতে হবে। কৃষি বিভাগের মাধ্যমে আধুনিক কম্বাইন হারভেস্টার যন্ত্র দিয়ে পাকা ধান কাটলে কৃষকের অনেক শ্রম ও খরচ কম লাগবে এতে কৃষিতে বিপ্লব ঘটবে বলে আশা করি। কৃষকের খরচ কমানের জন্য সরকার সকল আধুনিক যন্ত্র কিনতে ৫০% ভর্তুকি দিচ্ছে। এ জন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে তিনি ধন্যবাদ জানান।

ট্যাগস

ফসলি জমির মাটি কেটে বিক্রির অভিযোগ স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতির বিরুদ্ধে

মহম্মদপুরে কম্বাইন হারভেস্টার দিয়ে ধান কাটলেন ডিসি

আপডেট টাইম : ০৬:৫৫:৪৬ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১০ মে ২০২৩

মাসুদ রানা, মাগুরা
মাগুরার মহম্মদপুরে কৃষকের পাকা ধান কাটলেন মাগুরা জেলা প্রশাসক (ডিসি) মো: আবু নাসের বেগ। তিনি আধুনিক প্রযুক্তি কম্বাইন হারভেস্টার দিয়ে পাকা ধান কাটার উদ্বোধন করেন। সোমবার দুপুরে উপজেলার বিনোদনপুর ইউনিয়নের হরিনধরা পেয়াদাপাড়া মাঠে এ ধান কাটার উদ্বোধন করেন।

অফিস সূত্রে জানা যায় , মহম্মদপুর উপজেলায় ২০২২-২৩ অর্থবছরে রবি মৌসুমে কৃষি প্রোনাদনা কর্মসূচির আওতায় এবং সাধরন কৃষকরা ৬ হাজার ৮ শত হেক্টর জমিতে বোরো হাইব্রিড ধানের সমলয় চাষাবাদ করা হয়েছে। রাইস ট্রান্সপ্লান্টার ও কম্বাইন্ড আধুনিক প্রযুক্তি মাধ্যম এখন রবি মৌসুমে ধান রোপণ ও কর্তন করতে ব্যবহার করা হচ্ছে। কৃষকদের মাঝে স্মার্ট কৃষি বাংলাদেশ পৌঁছে দেয়ার কাজ করে যাচ্ছেন জেলা ও উপজেলা কৃষি অফিস বলে জানান।

স্থানীয় কয়েকজন কৃষক বলেন, আমাদেরকে কৃষি অফিস থেকে বীজ ও সার দিয়েছে এবং কৃষি অফিস থেকে মেশিনের মাধ্যমে ধানের চারা রোপণ করা হয়েছে এবং এখন আবার কম্বাইন হারভেস্টার মেশিন দিয়ে কম খরচে কাটা হচ্ছে। এ বছর গত বছরের চেয়ে ধানের ফলনও ভালো হয়েছে।

মাগুরা জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরে উপপরিচালক সুফি মো: রফিকুজ্জামানের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মহম্মদপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার রামানন্দ পাল, সহকারী কমিশনার (ভ’মি) বাসুদেব কুমার মালো, কৃষি কর্মকর্তা আব্দুস সোবান, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান বেবি নাজনীন, ভাইস চেয়ারম্যান বরকত আলী, ইউপি চেয়ারম্যান শিকদার মিজানুর চেয়ারম্যান প্রমূখ।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে মাগুরা জেলা প্রশাসক মো: আবু নাসের বেগ বলেন, কৃষি বাংলাদেশ বির্নিমানে আধুনিক যন্ত্রপাতির মাধ্যমে কৃষি বিপ্লব ঘটাতে হবে। সমলয় চাষাবাদের মাধ্যমে শ্রম ও কম খরচে উৎপাদন বৃদ্ধি করতে হবে। কৃষি বিভাগের মাধ্যমে আধুনিক কম্বাইন হারভেস্টার যন্ত্র দিয়ে পাকা ধান কাটলে কৃষকের অনেক শ্রম ও খরচ কম লাগবে এতে কৃষিতে বিপ্লব ঘটবে বলে আশা করি। কৃষকের খরচ কমানের জন্য সরকার সকল আধুনিক যন্ত্র কিনতে ৫০% ভর্তুকি দিচ্ছে। এ জন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে তিনি ধন্যবাদ জানান।