ঢাকা ০৩:৫৪ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৯ মে ২০২৪, ১৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম :
দ্বাদশ জাতীয় সংসদের পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির তৃতীয় বৈঠক অনুষ্ঠিত ৫ বছরের অধিক প্রেষনে দায়িত্ব পালন করছেন চীফ ইঞ্জিনিয়ার মঞ্জুরুল কবীর! বিআইডব্লিউটিএর অতি: পরিচালক আরিফ উদ্দিনের সম্পদের পাহাড়! শাহআলীতে গৃহবধূকে গলা কেটে হত্যাকারি পলাতক স্বামী গ্রেফতার  অতি:পরিচালক আরিফ উদ্দিন এখন বিআইডব্লিউটিএ‘র অঘোষিত “রাজা”! সাভারে এক ইউপি চেয়ারম্যানের সম্পদের পাহাড়! সিরাজদিখানে মঈনুল হাসান নাহিদকে বিকল্প ধরার সমর্থন মির্জাগঞ্জের ইউ,পি সচিব পরকীয়া প্রেমিকার হত্যাকাণ্ডে পুলিশ হেফাজতে শেষ মুহূর্তের প্রচারণায় মানুষের ভালবাসায় আমি মুগ্ধ: চেয়ারম্যান প্রার্থী পলাশ মানবতার আড়ালে ভয়ংকর ফয়সাল বাহিনী, পিস্তল ঠেকিয়ে টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগ

কোরবানির পশুর হাট এবারও আওয়ামী লীগ নেতাদের

খবর বাংলাদেশ :

এবারও কোরবানির পশু বিক্রির জন্য রাজধানীর ১৫টি অস্থায়ী হাটের সবগুলোর ইজারা পেয়েছেন ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা। উন্মুক্ত দরপত্রের মাধ্যমে ইজারা দেওয়া হলেও বারবার নির্দিষ্ট কিছু আওয়ামী লীগ নেতাকর্মী এসব হাট ইজারা পান। তবে সিটি কর্মকর্তারা দাবি করেছেন, দলীয় পরিচয় দেখে কাউকে হাট ইজারা দেওয়া হয়নি। সর্বোচ্চ দরদাতাকে হাট দেওয়া হয়েছে বলে তাদের দাবি।

ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) ধোলাইখাল ট্রাক টার্মিনাল-সংলগ্ন পশুর হাটের ইজারা পেয়েছেন ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের ৪৬ নম্বর ওয়ার্ডের সাবেক সাধারণ সম্পাদক সিদ্দিকুর রহমান ইরান। তিনি ছাড়া এ হাটের জন্য আর কেউ দরপত্র জমা দেয়নি। কর্তৃপক্ষ হাটটির সর্বনিম্ন মূল্য ধরেছিল ২ কোটি ৪৮ লাখ ৫৯ হাজার টাকা। অর্থাৎ ইজারাদারকে এই দামে বা এর চেয়ে বেশি দামে ইজারা নিতে হবে। সবাই এর চেয়ে কম দাম দিতে চাইলে বিক্রি হবে না। হাটটি ইরান ২ কোটি ৬৪ লাখ ৮০ হাজার টাকায় ইজারা পেয়েছেন।

ছয় বছর ধরে পোস্তগোলা শ্মশানঘাটসহ আশপাশের খালি জায়গা পশুর হাটের ইজারা পাচ্ছেন মো. মঈন উদ্দিন চিশতী। এবার সপ্তম বারের মতো তিনিই ইজারা পেয়েছেন। মঈন উদ্দিন চিশতী ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের ৪৭ নম্বর ওয়ার্ড সভাপতি।

ঢাকা-৭ আসনের আলোচিত সংসদ সদস্য হাজী সেলিমের ছেলে সোলাইমান সেলিম চার বছর ধরে লালবাগ রহমতগঞ্জ ক্লাব পশুর হাটের ইজারা পাচ্ছেন। এবারও ব্যতিক্রম হয়নি। নির্ধারিত দর ৩৯ লাখ ৩২ হাজার টাকার বিপরীতে সোলাইমান সেলিম ৫৬ লাখ ১৫ হাজার টাকায় হাটটির ইজারা পেয়েছেন। সোলাইমান সেলিম গত সংসদ নির্বাচনে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের মনোনয়নপ্রত্যাশী ছিলেন। এবারও মনোনয়ন পাওয়ার জন্য কাজ করে যাচ্ছেন।

হাজারীবাগের ইনস্টিটিউট অব লেদার টেকনোলজি কলেজ মাঠে কোরবানির পশুর হাটের ইজারা পেয়েছেন ওয়াহিদুর রহমান ওয়াকিব। তিনি ঢাকা-৭ আসনের সরকারদলীয় সাবেক সংসদ সদস্য মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিনের ব্যক্তিগত সহকারী ছিলেন। তাছাড়া হাজারীবাগ রোড ইউনিট আওয়ামী লীগের সভাপতি তিনি। গত বছরও এই হাটের ইজারা পেয়েছিলেন ওয়াকিব।

ডিএনসিসির তেজগাঁও পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট খেলার মাঠে কোরবানি পশুর হাটের ইজারা পেয়েছেন ২৪ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মো. হোসেন খান। তিনি গত বছরও এ হাটের ইজারা পেয়েছিলেন।

ডিএসসিসির মেরাদিয়া বাজারসংলগ্ন আশপাশের খালি জায়গার পশুর হাটের ইজারা পেয়েছেন খিলগাঁও থানা আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী সদস্য সাংস্কৃতিক সম্পাদক আওরঙ্গজেব টিটু। গতবারও তিনিই ইজারা নিয়েছিলেন। হাটটির নির্ধারিত মূল্য ছিল ১ কোটি ৭২ লাখ টাকা। ১ কোটি ৭৫ লাখ টাকায় ইজারা নিয়েছেন তিনি। টিটু ছাড়া এ হাটের জন্য মাত্র একটি দরপত্র জমা পড়েছিল।

আমুলিয়া মডেল টাউনের আশপাশের খালি জায়গার পশুর হাটের ইজারা পেয়েছেন জসিম উদ্দিন। তিনি ডেমরা ইউনিয়ন যুবলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও ডিএসসিসির ৬৯নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর সালাউদ্দিন আহমেদের বড় ভাই।

লিটল ফ্রেন্ডস ক্লাবসংলগ্ন খালি জায়গাসহ কমলাপুর স্টেডিয়াম এলাকার পশুর হাটের জন্যও মাত্র দুটি দরপত্র জমা পড়ে। ডিএসসিসির ৬নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর এবং আওয়ামী লীগ নেতা সিরাজুল ইসলাম ভাট্টির সহযোগী হিসেবে পরিচিত জাকির হোসেন হাটটির ইজারা পেয়েছেন। যাত্রাবাড়ীর দনিয়া কলেজসংলগ্ন আশপাশের এলাকার পশুর হাটের ইজারা পেয়েছেন স্থানীয় আওয়ামী লীগ কর্মী মো. কামরুজ্জামান।

ডিএনসিসির উত্তরা দিয়াবাড়ি ১৬ ও ১৮ নম্বর সেক্টরের পশুর হাট পেয়েছেন ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী সদস্য মহিবুল হাসান। ভাটারা সাঈদনগর পশুর হাটের ইজারা পেয়েছেন ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগের ৪০ নম্বর ওয়ার্ড সভাপতি সিদ্দিকুর রহমান।

কাউলা শিয়ালডাঙ্গা পশুর হাট পেয়েছেন ভাষানটেক থানা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি শফিকুল ইসলাম। ৪৪ নম্বর ওয়ার্ডের রহমান নগর আবাসিক প্রকল্পের খালি জায়গা পশুর হাটের ইজারা পেয়েছেন স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা জেহাদ-আল ইসলাম। মিরপুর ইস্টার্ন হাউজিংয়ের খালি জায়গা পশুর হাটের ইজারা পেয়েছেন মো. কামাল হোসেন। তিনি সরকারদলীয় সংসদ সদস্য ইলিয়াস উদ্দিন মোল্লার ঘনিষ্ঠ হিসেবে পরিচিত।

ডিএসসিসির প্রধান সম্পত্তি কর্মকর্তা রাসেল সাবরিন বলেন, সর্বোচ্চ দরদাতাকেই হাটের ইজারা দেওয়া হয়। এখানে কার কী রাজনৈতিক পদবি তা দেখা হয় না। এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, প্রতিবছর হাটের ইজারামূল্য বাড়ছে। গত কয়েক বছরের ব্যবধানে কিছু হাটের ইজারামূল্য দ্বিগুণও হয়েছে।

ডিএনসিসির প্রধান সম্পত্তি কর্মকর্তা মাহে আলম বর্জ্য থেকে বিদ্যুৎ উৎপাদন প্রকল্পের সফরে চীনে রয়েছেন। এ পদে ভারপ্রাপ্ত হিসেবে দায়িত্বে আছেন সংস্থাটির আইন কর্মকর্তা তাসনুভা নাশতারান। এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে তিনি প্রতিদিনের বাংলাদেশকে বলেন, ‘আমি এ প্রক্রিয়ার সঙ্গে ছিলাম না। এ-সংক্রান্ত কোনো ফাইলও আমার কাছে নেই। তাই এ নিয়ে কিছু বলতে পারছি না।’

এবার বসছে না আফতাবনগর হাট

ঢাকার দুই সিটি করপোরেশন অস্থায়ী ১৬টি কোরবানির পশুর হাট ইজারা দিলেও উচ্চ আদালতের স্থগিতাদেশের কারণে আফতাবনগর পশুর হাট এবার বসছে না। ফলে অস্থায়ী হাট ১৫টি। গত ১৬ মে ডিএনসিসি এবং ২৩ মে ডিএসসিসি ৮টি করে ১৬টি অস্থায়ী পশুর হাটের ইজারা সম্পন্ন করে। কিন্তু আফতাবনগর হাটের কার্যক্রম দুই মাসের জন্য স্থগিত করেন উচ্চ আদালত। এই স্থগিতাদেশ বহাল থাকলে এবার আফতাবনগরে আর কোরবানির পশুর হাট বসতে পারবে না।

স্থানীয় এক বাসিন্দার রিটের পরিপ্রেক্ষিতে গত ১৫ মে এ হাটের ইজারা কার্যক্রমের ওপর প্রথমে এক সপ্তাহের স্থগিতাদেশ দেন উচ্চ আদালত। এরপর গত ২৮ মে এক সপ্তাহের মেয়াদ শেষ হলে স্থগিতাদেশ দুই মাস বাড়ান একই আদালত। এ হাটটিরও ইজারা পেয়েছিলেন আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা। আফতাবনগরের হাটের জন্য সর্বনিম্ন মূল্য ১ কোটি ৫১ লাখ ৬০ হাজার টাকা নির্ধারণ করেছিল ডিএনসিসি। ১ কোটি ৬১ লাখ টাকায় ইজারা নিয়েছিলেন স্থানীয় ক্ষমতাসীন দলের নেতাকর্মীরা। ইজারাদার আব্দুল মান্নান ঢাকা মহানগর উত্তর যুবলীগের ২১ নম্বর ওয়ার্ডের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক। অস্থায়ী হাটের পাশাপাশি গাবতলী ও সারুলিয়ায় দুটি স্থায়ী হাটে কোরবানির পশু বেচাকেনা চলবে।

ট্যাগস
জনপ্রিয় সংবাদ

দ্বাদশ জাতীয় সংসদের পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির তৃতীয় বৈঠক অনুষ্ঠিত

কোরবানির পশুর হাট এবারও আওয়ামী লীগ নেতাদের

আপডেট টাইম : ০৯:৩২:২৮ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ৩০ মে ২০২৩

খবর বাংলাদেশ :

এবারও কোরবানির পশু বিক্রির জন্য রাজধানীর ১৫টি অস্থায়ী হাটের সবগুলোর ইজারা পেয়েছেন ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা। উন্মুক্ত দরপত্রের মাধ্যমে ইজারা দেওয়া হলেও বারবার নির্দিষ্ট কিছু আওয়ামী লীগ নেতাকর্মী এসব হাট ইজারা পান। তবে সিটি কর্মকর্তারা দাবি করেছেন, দলীয় পরিচয় দেখে কাউকে হাট ইজারা দেওয়া হয়নি। সর্বোচ্চ দরদাতাকে হাট দেওয়া হয়েছে বলে তাদের দাবি।

ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) ধোলাইখাল ট্রাক টার্মিনাল-সংলগ্ন পশুর হাটের ইজারা পেয়েছেন ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের ৪৬ নম্বর ওয়ার্ডের সাবেক সাধারণ সম্পাদক সিদ্দিকুর রহমান ইরান। তিনি ছাড়া এ হাটের জন্য আর কেউ দরপত্র জমা দেয়নি। কর্তৃপক্ষ হাটটির সর্বনিম্ন মূল্য ধরেছিল ২ কোটি ৪৮ লাখ ৫৯ হাজার টাকা। অর্থাৎ ইজারাদারকে এই দামে বা এর চেয়ে বেশি দামে ইজারা নিতে হবে। সবাই এর চেয়ে কম দাম দিতে চাইলে বিক্রি হবে না। হাটটি ইরান ২ কোটি ৬৪ লাখ ৮০ হাজার টাকায় ইজারা পেয়েছেন।

ছয় বছর ধরে পোস্তগোলা শ্মশানঘাটসহ আশপাশের খালি জায়গা পশুর হাটের ইজারা পাচ্ছেন মো. মঈন উদ্দিন চিশতী। এবার সপ্তম বারের মতো তিনিই ইজারা পেয়েছেন। মঈন উদ্দিন চিশতী ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের ৪৭ নম্বর ওয়ার্ড সভাপতি।

ঢাকা-৭ আসনের আলোচিত সংসদ সদস্য হাজী সেলিমের ছেলে সোলাইমান সেলিম চার বছর ধরে লালবাগ রহমতগঞ্জ ক্লাব পশুর হাটের ইজারা পাচ্ছেন। এবারও ব্যতিক্রম হয়নি। নির্ধারিত দর ৩৯ লাখ ৩২ হাজার টাকার বিপরীতে সোলাইমান সেলিম ৫৬ লাখ ১৫ হাজার টাকায় হাটটির ইজারা পেয়েছেন। সোলাইমান সেলিম গত সংসদ নির্বাচনে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের মনোনয়নপ্রত্যাশী ছিলেন। এবারও মনোনয়ন পাওয়ার জন্য কাজ করে যাচ্ছেন।

হাজারীবাগের ইনস্টিটিউট অব লেদার টেকনোলজি কলেজ মাঠে কোরবানির পশুর হাটের ইজারা পেয়েছেন ওয়াহিদুর রহমান ওয়াকিব। তিনি ঢাকা-৭ আসনের সরকারদলীয় সাবেক সংসদ সদস্য মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিনের ব্যক্তিগত সহকারী ছিলেন। তাছাড়া হাজারীবাগ রোড ইউনিট আওয়ামী লীগের সভাপতি তিনি। গত বছরও এই হাটের ইজারা পেয়েছিলেন ওয়াকিব।

ডিএনসিসির তেজগাঁও পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট খেলার মাঠে কোরবানি পশুর হাটের ইজারা পেয়েছেন ২৪ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মো. হোসেন খান। তিনি গত বছরও এ হাটের ইজারা পেয়েছিলেন।

ডিএসসিসির মেরাদিয়া বাজারসংলগ্ন আশপাশের খালি জায়গার পশুর হাটের ইজারা পেয়েছেন খিলগাঁও থানা আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী সদস্য সাংস্কৃতিক সম্পাদক আওরঙ্গজেব টিটু। গতবারও তিনিই ইজারা নিয়েছিলেন। হাটটির নির্ধারিত মূল্য ছিল ১ কোটি ৭২ লাখ টাকা। ১ কোটি ৭৫ লাখ টাকায় ইজারা নিয়েছেন তিনি। টিটু ছাড়া এ হাটের জন্য মাত্র একটি দরপত্র জমা পড়েছিল।

আমুলিয়া মডেল টাউনের আশপাশের খালি জায়গার পশুর হাটের ইজারা পেয়েছেন জসিম উদ্দিন। তিনি ডেমরা ইউনিয়ন যুবলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও ডিএসসিসির ৬৯নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর সালাউদ্দিন আহমেদের বড় ভাই।

লিটল ফ্রেন্ডস ক্লাবসংলগ্ন খালি জায়গাসহ কমলাপুর স্টেডিয়াম এলাকার পশুর হাটের জন্যও মাত্র দুটি দরপত্র জমা পড়ে। ডিএসসিসির ৬নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর এবং আওয়ামী লীগ নেতা সিরাজুল ইসলাম ভাট্টির সহযোগী হিসেবে পরিচিত জাকির হোসেন হাটটির ইজারা পেয়েছেন। যাত্রাবাড়ীর দনিয়া কলেজসংলগ্ন আশপাশের এলাকার পশুর হাটের ইজারা পেয়েছেন স্থানীয় আওয়ামী লীগ কর্মী মো. কামরুজ্জামান।

ডিএনসিসির উত্তরা দিয়াবাড়ি ১৬ ও ১৮ নম্বর সেক্টরের পশুর হাট পেয়েছেন ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী সদস্য মহিবুল হাসান। ভাটারা সাঈদনগর পশুর হাটের ইজারা পেয়েছেন ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগের ৪০ নম্বর ওয়ার্ড সভাপতি সিদ্দিকুর রহমান।

কাউলা শিয়ালডাঙ্গা পশুর হাট পেয়েছেন ভাষানটেক থানা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি শফিকুল ইসলাম। ৪৪ নম্বর ওয়ার্ডের রহমান নগর আবাসিক প্রকল্পের খালি জায়গা পশুর হাটের ইজারা পেয়েছেন স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা জেহাদ-আল ইসলাম। মিরপুর ইস্টার্ন হাউজিংয়ের খালি জায়গা পশুর হাটের ইজারা পেয়েছেন মো. কামাল হোসেন। তিনি সরকারদলীয় সংসদ সদস্য ইলিয়াস উদ্দিন মোল্লার ঘনিষ্ঠ হিসেবে পরিচিত।

ডিএসসিসির প্রধান সম্পত্তি কর্মকর্তা রাসেল সাবরিন বলেন, সর্বোচ্চ দরদাতাকেই হাটের ইজারা দেওয়া হয়। এখানে কার কী রাজনৈতিক পদবি তা দেখা হয় না। এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, প্রতিবছর হাটের ইজারামূল্য বাড়ছে। গত কয়েক বছরের ব্যবধানে কিছু হাটের ইজারামূল্য দ্বিগুণও হয়েছে।

ডিএনসিসির প্রধান সম্পত্তি কর্মকর্তা মাহে আলম বর্জ্য থেকে বিদ্যুৎ উৎপাদন প্রকল্পের সফরে চীনে রয়েছেন। এ পদে ভারপ্রাপ্ত হিসেবে দায়িত্বে আছেন সংস্থাটির আইন কর্মকর্তা তাসনুভা নাশতারান। এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে তিনি প্রতিদিনের বাংলাদেশকে বলেন, ‘আমি এ প্রক্রিয়ার সঙ্গে ছিলাম না। এ-সংক্রান্ত কোনো ফাইলও আমার কাছে নেই। তাই এ নিয়ে কিছু বলতে পারছি না।’

এবার বসছে না আফতাবনগর হাট

ঢাকার দুই সিটি করপোরেশন অস্থায়ী ১৬টি কোরবানির পশুর হাট ইজারা দিলেও উচ্চ আদালতের স্থগিতাদেশের কারণে আফতাবনগর পশুর হাট এবার বসছে না। ফলে অস্থায়ী হাট ১৫টি। গত ১৬ মে ডিএনসিসি এবং ২৩ মে ডিএসসিসি ৮টি করে ১৬টি অস্থায়ী পশুর হাটের ইজারা সম্পন্ন করে। কিন্তু আফতাবনগর হাটের কার্যক্রম দুই মাসের জন্য স্থগিত করেন উচ্চ আদালত। এই স্থগিতাদেশ বহাল থাকলে এবার আফতাবনগরে আর কোরবানির পশুর হাট বসতে পারবে না।

স্থানীয় এক বাসিন্দার রিটের পরিপ্রেক্ষিতে গত ১৫ মে এ হাটের ইজারা কার্যক্রমের ওপর প্রথমে এক সপ্তাহের স্থগিতাদেশ দেন উচ্চ আদালত। এরপর গত ২৮ মে এক সপ্তাহের মেয়াদ শেষ হলে স্থগিতাদেশ দুই মাস বাড়ান একই আদালত। এ হাটটিরও ইজারা পেয়েছিলেন আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা। আফতাবনগরের হাটের জন্য সর্বনিম্ন মূল্য ১ কোটি ৫১ লাখ ৬০ হাজার টাকা নির্ধারণ করেছিল ডিএনসিসি। ১ কোটি ৬১ লাখ টাকায় ইজারা নিয়েছিলেন স্থানীয় ক্ষমতাসীন দলের নেতাকর্মীরা। ইজারাদার আব্দুল মান্নান ঢাকা মহানগর উত্তর যুবলীগের ২১ নম্বর ওয়ার্ডের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক। অস্থায়ী হাটের পাশাপাশি গাবতলী ও সারুলিয়ায় দুটি স্থায়ী হাটে কোরবানির পশু বেচাকেনা চলবে।