ঢাকা ১১:৩১ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৪ জুন ২০২৪, ১০ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম :
আদমদীঘিতে শিশু ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগ: গ্রেফতার-১ মহম্মদপুরে হত্যার মামলার আসামি জামিনে এসে বাদিকে মামলা তুলে নেয়ার হুমকি, পরে মারধর আ.লীগ নেতার হুমকিতে নিরাপত্তাহীনতায় আইসক্রিম ফাক্টরি মালিক কালিহাতীতে লিঙ্গ কাটার অভিযোগ স্ত্রী’র বিরুদ্ধে ফিটনেস বিহীন নৌযানে সয়লাব সদরঘাট,নেই পর্যাপ্ত দক্ষ নাবিক! ৫০ কোটি টাকার মামলা থেকে বাঁচতে প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তার পাল্টা মামলা! ফরিদপুরে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের ঘটনায় তোলপাড় রশুনিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের পরিচালনা পর্ষদের নব সভাপতি হলেন আবু সাঈদ মির্জাগঞ্জে আমর্ড পুলিশ ব্যাটালিয়ন (এপিবিএন) উদ্যোগে ত্রাণসামগ্রী বিতরণ মাগুরার হৃদয়পুরে ফসলি জমির টপসয়েল মাটিকাটার অভিযোগ, ইউএনওর হস্তক্ষেপে কাজ বন্ধ

খাগড়াছড়িতে দূরপাল্লার সাতটি বাস ভাঙচুর

খাগড়াছড়ি থেকে ঢাকার উদ্দেশ্যে ছেড়ে আসা দূরপাল্লার সাতটি বাস ভাঙচুর করেছে দুর্বৃত্তরা। সোমবার রাতে খাগড়াছড়ির গুইমারার বাইল্লাছড়ি এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। হামলার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে আসেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও বিজিবির সদস্যরা।
ভাঙচুরের শিকার নাইট কোচ শান্তি পরিবহনের চালক ছোটন সাহা জানান, সন্ধ্যার পর খাগড়াছড়ি শহর থেকে সাতটি নাইট কোচ যাত্রী নিয়ে ঢাকার উদ্দেশ্যে ছেড়ে আসে। গুইমারা এলাকায় আসার পর ১৫/২০ জন দুর্বৃত্ত চলন্ত বাসগুলো লক্ষ্য করে বৃষ্টির মতো ইট দিয়ে ঢিল ছুড়তে থাকে। এতে সবগুলো বাসের সামনের ও জানালার গ্লাস ভেঙে যায়। ভাঙচুরের পর দুর্বৃত্তরা পাহাড়ের দিকে পালিয়ে যায়। হামলাকারীরা বেশির ভাগ পাহাড়ি বলে জানিয়েছেন তিনি।
এদিকে ভাঙচুরের পর বাসগুলোকে গুইমারা বাজারে আনা হয়। ভাঙচুরের শিকার বাসগুলোর মধ্যে শ্যামলী পরিবহন, রবি পরিবহনের হুন্দাই (এসি), শান্তি পরিবহন রয়েছে।

ট্যাগস
জনপ্রিয় সংবাদ

আদমদীঘিতে শিশু ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগ: গ্রেফতার-১

খাগড়াছড়িতে দূরপাল্লার সাতটি বাস ভাঙচুর

আপডেট টাইম : ০৫:০২:৪১ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২১ নভেম্বর ২০২৩

খাগড়াছড়ি থেকে ঢাকার উদ্দেশ্যে ছেড়ে আসা দূরপাল্লার সাতটি বাস ভাঙচুর করেছে দুর্বৃত্তরা। সোমবার রাতে খাগড়াছড়ির গুইমারার বাইল্লাছড়ি এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। হামলার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে আসেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও বিজিবির সদস্যরা।
ভাঙচুরের শিকার নাইট কোচ শান্তি পরিবহনের চালক ছোটন সাহা জানান, সন্ধ্যার পর খাগড়াছড়ি শহর থেকে সাতটি নাইট কোচ যাত্রী নিয়ে ঢাকার উদ্দেশ্যে ছেড়ে আসে। গুইমারা এলাকায় আসার পর ১৫/২০ জন দুর্বৃত্ত চলন্ত বাসগুলো লক্ষ্য করে বৃষ্টির মতো ইট দিয়ে ঢিল ছুড়তে থাকে। এতে সবগুলো বাসের সামনের ও জানালার গ্লাস ভেঙে যায়। ভাঙচুরের পর দুর্বৃত্তরা পাহাড়ের দিকে পালিয়ে যায়। হামলাকারীরা বেশির ভাগ পাহাড়ি বলে জানিয়েছেন তিনি।
এদিকে ভাঙচুরের পর বাসগুলোকে গুইমারা বাজারে আনা হয়। ভাঙচুরের শিকার বাসগুলোর মধ্যে শ্যামলী পরিবহন, রবি পরিবহনের হুন্দাই (এসি), শান্তি পরিবহন রয়েছে।