ঢাকা ০৬:৪২ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১১ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম :
মির্জাগঞ্জে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ও  শহীদ  দিবসে বাংলাদেশ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির শ্রদ্ধা নিবেদন  ৫২’র ভাষা শহীদদের প্রতি মিরপুর রিপোর্টার্স ক্লাবের শ্রদ্ধা নিবেদন প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তরকে দুর্নীতির স্বর্গরাজ্যে পরিণত করেছেন ডিজি ডা: মো: এমদাদুল হক তালুকদার! বাসাবো এলাকায় রাজউকের উচ্ছেদ অভিযান; ৪ লক্ষ টাকা জরিমানা দুই সাব-রেজিস্ট্রারের বদলী উপলক্ষে বিদায় সংবর্ধনা দুর্নীতির বিরুদ্ধে শূন্য সহনশীল হবেন দুদক কর্মকর্তারা বলিষ্ঠ নেতৃত্বের মাধ্যমে ভূমি অফিস পরিচালনা করুন: ভূমিমন্ত্রী বাসাবো এলাকায় রাজউকের উচ্ছেদ অভিযান; ৪ লক্ষ টাকা জরিমানা মাগুরায় মাদরাসার সভাপতির ধমকে সুপার অজ্ঞান  মাগুরায় সাকিবের পৃষ্ঠপোষকতায় মহান একুশ উপলক্ষে শহরে আলপনার উদ্যোগ 

দুই ফসলি জমি রক্ষায় সরকার বদ্ধপরিকর: ভূমি সচিব

ভূমি সচিব খলিলুর রহমান বলেছেন, দেশের খাদ্য নিরাপত্তা নিশ্চিতে দুই ফসলি জমি রক্ষায় সরকার বদ্ধ পরিকর। গত বৃহস্পতিবার (৭ ডিসেম্বর) সচিবালয়ে ভূমি মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে আয়োজিত ‘বাংলাদেশ ও বৈশি^ক পরিপ্রেক্ষিতে জলবায়ু পরিবর্তন এবং জলবায়ু পরিবর্তনজনিত ঝুঁকি’ শীর্ষক এক কর্মশালায় তিনি এ কথা বলেন। কর্মশালায় ভূমি মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা অংশগ্রহণ করেন।
ভূমি সচিব বলেন, ‘জলবায়ু পরিবর্তনের ফলে ভূ-প্রাকৃতিক যে পরিবর্তন হচ্ছে, তাতে ভূমি মন্ত্রণালয় গুরুত্বের সঙ্গে কাজ করে যাচ্ছে। সারা দেশের মৌজাভিত্তিক ডিজিটাল জোনিং ম্যাপ প্রণয়নের কাজ করে যাচ্ছে ভূমি জোনিং প্রকল্প। এছাড়া ডিজিটাল ভূমি জরিপ করার জন্য কোরিয়ান আর্থিক ও কারিগরি সহায়তায় ইডিএলএমএস প্রকল্পের আওতায় বাংলাদেশ ডিজিটাল সার্ভে কার্যক্রম ছয়টি এলাকায় কাজ করছে।’
এ সব কাজ বাস্তবায়নের ফলে ভূমি মন্ত্রণালয় যেমন ভূমি ব্যবস্থাপনায় আধুনিক সেবা নিশ্চিত করছে, তেমনই জলবায়ু পরিবর্তনে সরকারকে সঠিক তথ্য উপস্থাপনে সাহায্য করতে পারছে বলে মনে করেন ভূমি সচিব। তিনি বলেন, ‘জলবায়ু মোকাবিলায় সরকারের কাজের সফলতার স্বীকৃতি স্বরূপ দুবাইতে চলমান জলবায়ু সম্মেলনে (কপ-২৮) বাংলাদেশ বৈশ্বিক অভিযোজন পুরস্কার লাভ করেছে।’
দেশের খাদ্য নিরাপত্তা নিশ্চিতে তিন ফসলি জমি সুরক্ষায় এ ধরণের জমিতে কোনও ধরনের উন্নয়ন প্রকল্প গ্রহণ না করার নীতিগত সিদ্ধান্ত ইতোপূর্বে নিয়েছে সরকার।
ভূমি মন্ত্রণালয়ের উপ-সচিব ইশরাত ফারজানার সঞ্চালনায় কর্মশালায় বক্তা হিসেবে ছিলেন ভূমি মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব আব্বাছ উদ্দিন এবং উপ-সচিব এ টি এম আজহারুল ইসলাম। কর্মশালার শেষ পর্বে অংশগ্রহণকারী কর্মকর্তারা জলবায়ু সংশ্লিষ্ট বিষয়ে মিথস্ক্রিয়ায় অংশ নেন। কর্মশালায় জলবায়ু পরিবর্তনের কারণ, জলবায়ু পরিবর্তনের ঝুঁকি ও প্রভাব, ঝুঁকি মোকাবিলায় করণীয় এবং অভিযোজন কর্মপরিকল্পনা গ্রহণে ভূমি মন্ত্রণালয়ের করণীয় বিষয়ে সুপারিশমালা প্রণয়ন বিষয়ে আলোচনা হয়।
প্রসঙ্গত, কৃষিজমি সুরক্ষা, অকৃষি জমির সর্বোচ্চ সীমার বিধান, খাদ্য নিরাপত্তা, জলবায়ু পরিবর্তনের ক্ষতিকর প্রভাব হ্রাসের উদ্দেশ্যে ‘ভূমি মালিকানা ও ব্যবহার আইন, ২০২৩’-এর খসড়া চূড়ান্তকরণের কাজ করছে ভূমি মন্ত্রণালয়। ‘বাংলাদেশ ডেল্টা প্ল্যান-২১০০’ বাস্তবায়নের প্রয়োজনীয় পরামর্শ ও দিকনির্দেশনা দিতে প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে গঠিত ডেল্টা কাউন্সিলের পদাধিকার বলে অন্যতম সদস্য ভূমিমন্ত্রী। দেশে বন্যা, নদী ভাঙন, নদী ব্যবস্থাপনা, নগর ও গ্রামে পানি সরবরাহ, বর্জ্য ব্যবস্থাপনা এবং বন্যা নিয়ন্ত্রণ ও নিষ্কাশন ব্যবস্থাপনার দীর্ঘমেয়াদি জাতীয় কৌশল হলো ‘বাংলাদেশ ডেল্টা প্ল্যান-২১০০’।

ট্যাগস

মির্জাগঞ্জে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ও  শহীদ  দিবসে বাংলাদেশ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির শ্রদ্ধা নিবেদন 

দুই ফসলি জমি রক্ষায় সরকার বদ্ধপরিকর: ভূমি সচিব

আপডেট টাইম : ০৭:২৮:৫০ অপরাহ্ন, শনিবার, ৯ ডিসেম্বর ২০২৩

ভূমি সচিব খলিলুর রহমান বলেছেন, দেশের খাদ্য নিরাপত্তা নিশ্চিতে দুই ফসলি জমি রক্ষায় সরকার বদ্ধ পরিকর। গত বৃহস্পতিবার (৭ ডিসেম্বর) সচিবালয়ে ভূমি মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে আয়োজিত ‘বাংলাদেশ ও বৈশি^ক পরিপ্রেক্ষিতে জলবায়ু পরিবর্তন এবং জলবায়ু পরিবর্তনজনিত ঝুঁকি’ শীর্ষক এক কর্মশালায় তিনি এ কথা বলেন। কর্মশালায় ভূমি মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা অংশগ্রহণ করেন।
ভূমি সচিব বলেন, ‘জলবায়ু পরিবর্তনের ফলে ভূ-প্রাকৃতিক যে পরিবর্তন হচ্ছে, তাতে ভূমি মন্ত্রণালয় গুরুত্বের সঙ্গে কাজ করে যাচ্ছে। সারা দেশের মৌজাভিত্তিক ডিজিটাল জোনিং ম্যাপ প্রণয়নের কাজ করে যাচ্ছে ভূমি জোনিং প্রকল্প। এছাড়া ডিজিটাল ভূমি জরিপ করার জন্য কোরিয়ান আর্থিক ও কারিগরি সহায়তায় ইডিএলএমএস প্রকল্পের আওতায় বাংলাদেশ ডিজিটাল সার্ভে কার্যক্রম ছয়টি এলাকায় কাজ করছে।’
এ সব কাজ বাস্তবায়নের ফলে ভূমি মন্ত্রণালয় যেমন ভূমি ব্যবস্থাপনায় আধুনিক সেবা নিশ্চিত করছে, তেমনই জলবায়ু পরিবর্তনে সরকারকে সঠিক তথ্য উপস্থাপনে সাহায্য করতে পারছে বলে মনে করেন ভূমি সচিব। তিনি বলেন, ‘জলবায়ু মোকাবিলায় সরকারের কাজের সফলতার স্বীকৃতি স্বরূপ দুবাইতে চলমান জলবায়ু সম্মেলনে (কপ-২৮) বাংলাদেশ বৈশ্বিক অভিযোজন পুরস্কার লাভ করেছে।’
দেশের খাদ্য নিরাপত্তা নিশ্চিতে তিন ফসলি জমি সুরক্ষায় এ ধরণের জমিতে কোনও ধরনের উন্নয়ন প্রকল্প গ্রহণ না করার নীতিগত সিদ্ধান্ত ইতোপূর্বে নিয়েছে সরকার।
ভূমি মন্ত্রণালয়ের উপ-সচিব ইশরাত ফারজানার সঞ্চালনায় কর্মশালায় বক্তা হিসেবে ছিলেন ভূমি মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব আব্বাছ উদ্দিন এবং উপ-সচিব এ টি এম আজহারুল ইসলাম। কর্মশালার শেষ পর্বে অংশগ্রহণকারী কর্মকর্তারা জলবায়ু সংশ্লিষ্ট বিষয়ে মিথস্ক্রিয়ায় অংশ নেন। কর্মশালায় জলবায়ু পরিবর্তনের কারণ, জলবায়ু পরিবর্তনের ঝুঁকি ও প্রভাব, ঝুঁকি মোকাবিলায় করণীয় এবং অভিযোজন কর্মপরিকল্পনা গ্রহণে ভূমি মন্ত্রণালয়ের করণীয় বিষয়ে সুপারিশমালা প্রণয়ন বিষয়ে আলোচনা হয়।
প্রসঙ্গত, কৃষিজমি সুরক্ষা, অকৃষি জমির সর্বোচ্চ সীমার বিধান, খাদ্য নিরাপত্তা, জলবায়ু পরিবর্তনের ক্ষতিকর প্রভাব হ্রাসের উদ্দেশ্যে ‘ভূমি মালিকানা ও ব্যবহার আইন, ২০২৩’-এর খসড়া চূড়ান্তকরণের কাজ করছে ভূমি মন্ত্রণালয়। ‘বাংলাদেশ ডেল্টা প্ল্যান-২১০০’ বাস্তবায়নের প্রয়োজনীয় পরামর্শ ও দিকনির্দেশনা দিতে প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে গঠিত ডেল্টা কাউন্সিলের পদাধিকার বলে অন্যতম সদস্য ভূমিমন্ত্রী। দেশে বন্যা, নদী ভাঙন, নদী ব্যবস্থাপনা, নগর ও গ্রামে পানি সরবরাহ, বর্জ্য ব্যবস্থাপনা এবং বন্যা নিয়ন্ত্রণ ও নিষ্কাশন ব্যবস্থাপনার দীর্ঘমেয়াদি জাতীয় কৌশল হলো ‘বাংলাদেশ ডেল্টা প্ল্যান-২১০০’।