ঢাকা ০১:২৫ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম :
দ্বাদশ জাতীয় সংসদের পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির তৃতীয় বৈঠক অনুষ্ঠিত ৫ বছরের অধিক প্রেষনে দায়িত্ব পালন করছেন চীফ ইঞ্জিনিয়ার মঞ্জুরুল কবীর! বিআইডব্লিউটিএর অতি: পরিচালক আরিফ উদ্দিনের সম্পদের পাহাড়! শাহআলীতে গৃহবধূকে গলা কেটে হত্যাকারি পলাতক স্বামী গ্রেফতার  অতি:পরিচালক আরিফ উদ্দিন এখন বিআইডব্লিউটিএ‘র অঘোষিত “রাজা”! সাভারে এক ইউপি চেয়ারম্যানের সম্পদের পাহাড়! সিরাজদিখানে মঈনুল হাসান নাহিদকে বিকল্প ধরার সমর্থন মির্জাগঞ্জের ইউ,পি সচিব পরকীয়া প্রেমিকার হত্যাকাণ্ডে পুলিশ হেফাজতে শেষ মুহূর্তের প্রচারণায় মানুষের ভালবাসায় আমি মুগ্ধ: চেয়ারম্যান প্রার্থী পলাশ মানবতার আড়ালে ভয়ংকর ফয়সাল বাহিনী, পিস্তল ঠেকিয়ে টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগ

খিলক্ষেতে ৭৮ শতাংশ খাসজমি উদ্ধার

মঞ্জুুরুল ইসলাম রতন :
রাজধানীর গুলশান রাজস্ব সার্কেলের আওতাধীন খিলক্ষেত এলাকায় প্রায় ৭৮ শতাংশ খাসজমি উদ্ধার করেছে ঢাকা জেলা প্রশাসন। আরএস এবং মহানগর জরিপের ধারাবাহিকতায় সরকারের নামে নম্বর খাস খতিয়ানে রেকর্ড ৭৮ শতাংশ এই জমি দীর্ঘদিন ধরে নাসা গ্রুপের অবৈধ দখলে ছিল। বৃহস্পতিবার (১৮ এপ্রিল) ঢাকার জেলা প্রশাসক আনিসুর রহমানের সার্বিক নির্দেশনা ও অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) শিবলী সাদিকের তত্ত্বাবধানে গুলশান রাজস্ব সার্কেলের সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট মীর কামরুজ্জামান মোট ৭৭.৮০ শতক খাস জমি উদ্ধার করেন। একইসঙ্গে খাস জমিতে সরকারের পক্ষে মালিকানা সাইনবোর্ড ও কাটা তারের বেষ্টনী নির্মাণ করে জেলা প্রশাসন-ঢাকার দখল ও নিয়ন্ত্রণে নেওয়া হয়। এই অভিযান পরিচালনার সময় গুলশান রাজস্ব সার্কেলের সার্ভেয়ার ও সংশ্লিষ্ট ভূমি সহকারী কর্মকর্তা, খিলক্ষেত থানার কর্মকর্তা ও স্থানীয় লোকজন উপস্থিত ছিলেন। ঢাকার জেলা প্রশাসক আনিসুর রহমান দৈনিক খবর বাংলাদেশকে বলেন, ঢাকার বিভিন্ন স্থানে মূল্যবান অনেক খাস জমি বিভিন্ন দখলদাররা দীর্ঘদিন ধরে অবৈধভাবে দখল করে আছেন। এসব খাস জমি রক্ষায় জেলা প্রশাসনের এ ধরনের অভিযান অব্যাহত থাকবে।

ট্যাগস
জনপ্রিয় সংবাদ

দ্বাদশ জাতীয় সংসদের পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির তৃতীয় বৈঠক অনুষ্ঠিত

খিলক্ষেতে ৭৮ শতাংশ খাসজমি উদ্ধার

আপডেট টাইম : ০৬:৫৫:৪৫ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল ২০২৪

মঞ্জুুরুল ইসলাম রতন :
রাজধানীর গুলশান রাজস্ব সার্কেলের আওতাধীন খিলক্ষেত এলাকায় প্রায় ৭৮ শতাংশ খাসজমি উদ্ধার করেছে ঢাকা জেলা প্রশাসন। আরএস এবং মহানগর জরিপের ধারাবাহিকতায় সরকারের নামে নম্বর খাস খতিয়ানে রেকর্ড ৭৮ শতাংশ এই জমি দীর্ঘদিন ধরে নাসা গ্রুপের অবৈধ দখলে ছিল। বৃহস্পতিবার (১৮ এপ্রিল) ঢাকার জেলা প্রশাসক আনিসুর রহমানের সার্বিক নির্দেশনা ও অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) শিবলী সাদিকের তত্ত্বাবধানে গুলশান রাজস্ব সার্কেলের সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট মীর কামরুজ্জামান মোট ৭৭.৮০ শতক খাস জমি উদ্ধার করেন। একইসঙ্গে খাস জমিতে সরকারের পক্ষে মালিকানা সাইনবোর্ড ও কাটা তারের বেষ্টনী নির্মাণ করে জেলা প্রশাসন-ঢাকার দখল ও নিয়ন্ত্রণে নেওয়া হয়। এই অভিযান পরিচালনার সময় গুলশান রাজস্ব সার্কেলের সার্ভেয়ার ও সংশ্লিষ্ট ভূমি সহকারী কর্মকর্তা, খিলক্ষেত থানার কর্মকর্তা ও স্থানীয় লোকজন উপস্থিত ছিলেন। ঢাকার জেলা প্রশাসক আনিসুর রহমান দৈনিক খবর বাংলাদেশকে বলেন, ঢাকার বিভিন্ন স্থানে মূল্যবান অনেক খাস জমি বিভিন্ন দখলদাররা দীর্ঘদিন ধরে অবৈধভাবে দখল করে আছেন। এসব খাস জমি রক্ষায় জেলা প্রশাসনের এ ধরনের অভিযান অব্যাহত থাকবে।